৪ বছরের নাতনিকে যৌন নির্জাতন করল খোদ দাদু-দিদা, গ্রেফতার মহারাষ্ট্রের দম্পতি

দাদু- দিদা দু'জনে মিলে শিশুটিকে যৌন নির্জাতন করে

দাদু- দিদা দু'জনে মিলে শিশুটিকে যৌন নির্জাতন করে

  • Share this:

    #মহারাষ্ট্র: পাশের বাড়ির ছোট্ট মেয়েটি তাদের ভীষণ ভালবাসত, দাদু-দিদা বলেই ডাকত! কিন্তু ফুলের মতো ফুটফুটে মেয়েটির সমস্ত ভালবাসা-বিশ্বাস দুমড়ে-মুচড়ে শেষ করে দিল মহারাষ্ট্রের আশি ঊর্ধ্ব দম্পতি! ৪ বছরের শিশুকন্যাকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে তাদের ১০ বছর কারাদণ্ডের নির্দেশ দিল বিশেষ আদালত।

    ঘটনাটি ২০১৩-র। Protection of Children from Sexual Offences Act (POCSO) আদালতের বিচারক রেখা এন পানধারে জানান, অভিযুক্ত দম্পতি, যাদেরকে আজন্ম দাদু-দিদা বলে জানত শিশুটি, তাদের কাছে মেয়েকে রেখে কাজে বের হতেন মা-বাবা! সেই সুযোগেই নিজের বিকৃত কাম লালসা চরিতার্থ করতে থাকে অভিযুক্ত। বয়ানে নির্জাতিতা জানায়, ২০১৩ সালের ৪ সেপ্টেম্বর স্কুল থেকে ফিরে বাড়িতে টিভিতে কার্টুন দেখছিল সে। বিকেলবেলায় আবাসনের চার তলায় খেলতে যায়। কিন্তু বন্ধু ঘুমোচ্ছিল, তাই নিজের ফ্ল্যাতেই ফিরে আসে। অভিযোগ, সেই সময়েই অভিযুক্ত 'দাদা-দিদা' তাকে ফোন করে ডেকে পাঠায়।

    নির্জাতিতার অভিযোগ, অভিযুক্ত তাকে বাড়ির ভিতরে নিয়ে গিয়ে কোলে বসিয়ে দোল খাওয়াতে লাগে। যখন সে পালিয়ে যেতে চায়, তখন তাকে থাপ্পর মারে। এরপর মহিলা তাকে জোর করে চেপে ধরে আর পুরুষটি তাকে নগ্ন করে যৌন নির্জাতন চালায়। এখানেই শেষ নয়, মহিলাও শিশুটিকে যৌন নির্জাতন করে। চলতে থাকে মারধর, মুখে থুতু ছেটানো।

    বয়ানে নির্জাতিতার মা জানিয়েছেন, রাতে ঘুমানোর সময় মেয়েটি তাকে গোটা ঘটনা বলে। মহিলা দেখেন মেয়ের গোপনাঙ্গ ক্ষতে দগদগ করছে। সঙ্গে সঙ্গে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন মহিলা। আগামী দিনই বৃদ্ধ দম্পতিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published: