• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • CONGRESS LEADER GHULAM NABI AZAD CRITICIZES PARTY LEADERS FOR FIVE STAR CULTURE DMG

ফাইভ স্টার হোটেলে থেকেই জনবিচ্ছিন্ন নেতারা, সমালোচনায় সরব কংগ্রেস নেতা গুলাম নবি আজাদ

দলের টানা ব্যর্থতায় চূড়ান্ত হতাশ গুলি নব, কপিল সিবালরা৷ Photo-PTI

এই প্রথম নয়, কয়েকমাস আগেও দলের নেতৃত্বে বদল চেয়ে সরব হয়েছিলেন সিবাল- আজাদরা৷ এবার অবশ্য নেতৃত্বকে দোষ না দিয়ে নিচু স্তরের নেতাদেরই কাঠগড়ায় তুলেছেন আজাদ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: দলের টিকিট পেলেই ফাইভ স্টার হোটেলে থাকছেন কংগ্রেস নেতা এবং প্রার্থীরা৷ এসি গাড়ি ছাড়া বাইরে বেরোনা না তাঁরা৷ নিচু স্তরে নেতাদের এ ভাবে জনবিচ্ছিন্ন হওয়ার ফলই কংগ্রেস নির্বাচনে ভোগ করছে বলে সমালোচনায় সরব হলেন দলের অন্যতম প্রবীণ নেতা গুলাম নবি আজাদ৷ বিহার ভোটে কংগ্রেসের বিপর্যয়ের পর প্রথমে সরব হয়েছিলেন দলের আর এক সিনিয়র নেতা কপিল সিবাল৷ এবার সেই পথেই হাঁটলেন গুলাম নবি আজাদও৷

    তবে এই প্রথম নয়, কয়েকমাস আগেও দলের নেতৃত্বে বদল চেয়ে সরব হয়েছিলেন সিবাল- আজাদরা৷ এবার অবশ্য নেতৃত্বকে দোষ না দিয়ে নিচু স্তরের নেতাদেরই কাঠগড়ায় তুলেছেন আজাদ৷

    সংবাদসংস্থা এএনআই-কে তিনি বলেছেন, 'আমাদের নেতাদের সমস্যা হল টিকিট পেলেই প্রথমে তাঁরা কোনও ফাইভ স্টার হোটেলে একটি ঘর বুক করেন৷ সেখানেও সবথেকে বিলাসবহুল জায়গা খোঁজেন তাঁরা৷ এর পর এসি গাড়ি না পেলে তাঁরা বাইরে যান না৷ যে এলাকায় ভাঙাচোড়া রাস্তায়, সেখানেও যেতে চান না তাঁরা৷'

    হতাশ কংগ্রেস নেতা বলেছেন, 'ফাইভ স্টার হোটেলে থেকে নির্বাচনে লড়া যায় না৷ এই সংস্কৃতি না বদলালে আমাদের ভাল ফল করা মুশকিল৷'

    সাম্প্রতিক নির্বাচনগুলিতে খারাপ ফলের জন্য অনেকেই কংগ্রেস নেতৃত্বকে দোষারোপ করছেন৷ গুলাম নবি আজাদ অবশ্য সেই পথে হাঁটেননি৷ বরং স্থানীয় স্তরের নেতা এবং নিচু স্তরের পদাধিকারীদেরই দায়ী করছেন তিনি৷ আজাদ বলেছেন, 'ব্লক বা জেলা স্তরের নেতারা জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেন৷ যেই তাঁরা কোনও পদ পান, সঙ্গে সঙ্গে লেটার প্যাড আর ভিজিটিং কার্ড ছাপিয়ে নেন তাঁরা৷ এটুকু করেই তাঁরা ভাবেন কাজ শেষ৷ কিন্তু আসলে এখান থেকেই তাঁদের কাজ শুরু করতে হবে৷'

    শীর্ষ নেতৃত্বে যে সমস্যা নেই তা বোঝাতে গুলাম নবি আজাদ মনে করিয়ে দিয়েছেন, সনিয়া গাঁধির নেতৃত্বেই চার থেকে পাঁচ বছরের ব্যবধানে পাঁচটি রাজ্যে জিতেছিল কংগ্রেস৷ সেই সময় তিনিই নির্বাচনের দায়িত্বে ছিলেন বলেও মনে করিয়ে দিয়েছেন কাশ্মীরের এই কংগ্রেস নেতা৷ দলের কাঠামোতেও বদল আনার প্রস্তাব দিয়েছেন আজাদ৷ তাঁর পরামর্শ, মানুষের সঙ্গে একেবারে নিচুস্তরে যোগাযোগ গড়ে তুলতে গেলে সুপারিশের বদলে নির্বাচনের মাধ্যমে পদাধিকারীদের নিয়োগ করতে হবে৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: