‘মহারাষ্ট্রের এই সরকার স্থায়ী হবে বলে আশা’, মহারাষ্ট্রে সরকার গঠনে ট্যুইটে অভিনন্দন মমতার

‘মহারাষ্ট্রের এই সরকার স্থায়ী হবে বলে আশা’, মহারাষ্ট্রে সরকার গঠনে ট্যুইটে অভিনন্দন মমতার
Photo Collected
  • Share this:

#মুম্বই: শপথে হাজির না থাকলেও ট্যুইট করে মহারাষ্ট্রে সরকার গঠনের জন্য আঘাধি সরকারকে অভিনন্দন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ৷ ট্যুইট করে তৃণমূলনেত্রী বলেন, ‘মহারাষ্ট্রের এই সরকার স্থায়ী হবে বলে  আশা ৷ আশা করি মানুষের জন্য কাজ করবে সরকার ৷’

একমাস ধরে টানা নাটক শেষে অবশেষে মহারাষ্ট্রে নয়া সরকারের শপথ ৷ ৫৩ বছর আগে মুম্বইয়ের শিবাজী পার্কেই মরাঠা রাজনীতিতে শুরু হয়েছিল নতুন অধ্যায়। শিবসেনা তৈরির পাঁচ দশক পর সেই শিবাজী পার্ক থেকেই প্রথমবার মন্ত্রিসভায় এলেন ঠাকরে পরিবারের এক সদস্য।

দীর্ঘ টানাপোড়েন, পট-পরিবর্তনের পর মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিলেন উদ্ধব বাল ঠাকরে। উদ্ধবের সঙ্গেই শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস জোট থেকে আরও ৬ বিধায়ক মন্ত্রী হিসাবে শপথ নেন। তবে তাদের মধ্যে ছিলেন না অজিত পওয়ার। কংগ্রেস থেকে নিতিন রাউত, বালাসাহেব থোরাট, এনসিপি থেকে ছগন ভুজবল, জয়ন্ত পাটিল  এবং শিবসেনা থেকে একনাথ শিন্ডে, সুভাষ রাজারাম দেশাই শপথ নেন ৷

শপথ অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পরই উদ্ধবের নেতৃত্বে বৈঠকে বসেছে নতুন মন্ত্রিসভা। সোনিয়া - রাহুলকে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে থাকার আমন্ত্রণ জানাতে বুধবার রাতে ১০ নম্বর জনপথে গিয়েছিলেন উদ্ধব পুত্র আদিত্য। দুজনই যে শপথগ্রহণে থাকবেন, তা আগেই স্পষ্ট হয়েছিল। কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্বের তরফে ছিলেন কপিল সিব্বল, আহমেদ পটেল। খুড়তুতো দাদার শপথ গ্রহণে যোগ দিতে এসে পৌঁছন মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনা প্রধান রাজ ঠাকরেও।  এসেছিলেন দেবেন্দ্র ফডণবীসও।

মন্ত্রিসভা, অভিন্ন ন্যূনতম  কর্মসূচি নিয়ে টানাপোড়েন কাটিয়ে শেষপর্যন্ত সহমতে এসেছে তিনদল। কর্মসূচিতে ধর্মনিপরপেক্ষ সরকার কথাটি ব্যবহারে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত রাজি হয়নি শিবসেনা ৷ বৃহস্পতিবার সকালে এনিয়ে উদ্ধবের কাছে বার্তা পাঠান শরদ পওয়ার ৷ অভিন্ন ন্যূনতম কর্মসূচির নথিতে দু’বার ধর্মনিরপেক্ষ সরকার কথাটি উল্লেখ হয়েছে ৷

শপথগ্রহণে না থাকলেও টুইটে উদ্ধবকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, জেডিএস  নেতা দেবেগৌড়ার মতো ব্যক্তিত্বরা। নরেন্দ্র মোদি ট্যুইট করে বলেন, ‘উদ্ধবজিকে নতুন দায়িত্বের জন্য অভিনন্দন। আমি নিশ্চিত, মহারাষ্ট্রের উন্নতির জন্য উনি কাজ করবেন ৷’

অনেক টানাপোড়েন পেরিয়ে মহারাষ্ট্রে স্থায়ী সরকার। কৃষক দুরাবস্থা, কর্মসংস্থানের পাশাপাশি এই সরকার টিকিয়ে রাখাই প্রথম ৬ মাসে উদ্ধবের অন্যতম চ্যালেঞ্জ।

First published: 12:08:49 AM Nov 29, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर