Citizenship Bill Protests: বিক্ষোভে উত্তাল অসম, পুলিশের গুলিতে মৃত্যু ২ প্রতিবাদীর, বিজেপি বিধায়কের বাড়িতে আগুন

Citizenship Bill Protests: বিক্ষোভে উত্তাল অসম, পুলিশের গুলিতে মৃত্যু ২ প্রতিবাদীর, বিজেপি বিধায়কের বাড়িতে আগুন

পরিস্থিতি আরও অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠায় আরও ২ কলম সেনা মোতায়েন করা হয়েছে অসমে ৷

  • Share this:

#গুয়াহাটি: নাগরিকত্ব সংশোধনী নিয়ে বিক্ষোভে উত্তাল অসম ৷ গুয়াহাটিতে বিক্ষোভকারীদের হঠাতে পুলিশের ছোঁড়া গুলিতে মৃত্যু দু’জনের ৷আহত অনেকে ৷ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গুলি ছোঁড়ে পুলিশ ৷ তখনই দীপাঞ্জল দাস নামে এক আন্দোলনকারীর গুলি লাগে ৷ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে ৷ মৃত দীপাঞ্জল দাস অসমের ছয়গ্রামের বাসিন্দা ৷ পরিস্থিতি আরও অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠায় আরও ২ কলম সেনা মোতায়েন করা হয়েছে অসমে ৷

অন্যদিকে, অভিযোগ ছাবুয়ায় এক বিজেপি বিধায়ক বিনোদ হাজারিকার বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেন বিক্ষোভকারীরা ৷ ঘটনায় কেউ হতাহত না হলেও ওই এলাকায় বিজেপির আরও একটি অফিসে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় ৷

কাজ হল না প্রধানমন্ত্রীর টুইটেও। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরোধিতায় আজও থমথমে অসম। গুয়াহাটিতে কারফিউ ভেঙে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখালেন সাধারণ মানুষ। পরিস্থিতি মোকাবিলায় কৌশল বদলাল অসম পুলিশ। একাধিক বদল করা হল পুলিশের শীর্ষ পদে। শনিবার পর্যন্ত বন্ধ ইন্টারনেট পরিষেবা। অসমের মতো মেঘালয়েও বন্ধ ইন্টারনেট ৷ রাজধানী শিলংয়ে বৃহস্পতিবার রাত ১০টার পর জারি কার্ফু ৷

57f686d6073a256f0e031ea5e8716fc4

পুলিশ-এসএসবির পাহাড়দারি। গুয়াহাটির প্রতিটি রাস্তায় এরকম পাহাড়া। সাধারণ মানুষ ঘর থেকে বেরোচ্ছেন না। প্রত্যেকের মনে আতঙ্ক। বেলা গড়াতেই বদলাল গুয়াহাটির পরিস্থিতি। কারফিউ ভেঙে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখালেন সাধারণ মানুষ। গুয়াহাটির লতাশীল ময়দানে জমায়েত করে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে গলা মেলালেন শহরবাসী।

একদিকে পুলিশ বাহিনী মুহুর্মুহু কাঁদানে গ্যাস ছুড়ছে, উলটোদিকে বিক্ষোভকারীরাও রীতিমতো প্রস্তুত হচ্ছে। যে অস্ত্রে মোদি সরকার হিন্দুদের মন জয় করতে চেয়েছিল, অসমে সেই অস্ত্রই তাদের কাছে উল্টো হয়ে দাঁড়াল। ‘ক্যাব আমি নামানু’। অসমের মানুষের এই স্লোগান আসলে মোদি সরকারের এনআরসি থেকে ক্যাব, প্রত্যেকটির বিরুদ্ধে।

উত্তপ্ত পরিস্থিতির মধ্যেই কৌশল বদলাল অসম পুলিশ। বদল করা হল অসমের এডিজি আইনশৃঙ্খলা এবং গুয়াহাটির পুলিশ কমিশনারকে। এডিজি আইনশৃঙ্খলার পদ থেকে মুকেশ আগরওয়ালের সরিয়ে জিপি সিংকে আনা হয়েছে। গুয়াহাটির সিপি দীপক কুমারকে অপসারণ করা হয়েছে। নতুন সিপি হলেন মুন্না প্রসাদ গুপ্তা। শনিবার পর্যন্ত রাজ্যের দশ জেলাতেই বন্ধ করে দেওয়া হল ইন্টারনেট পরিষেবা।

First published: 08:28:29 PM Dec 12, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर