• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • স্কুল-কলেজের পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত হবে জরুরি অবস্থা: প্রকাশ জাভড়েকর

স্কুল-কলেজের পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত হবে জরুরি অবস্থা: প্রকাশ জাভড়েকর

জরুরি অবস্থার উপর চালু হবে নতুন পাঠ্যক্রম, জানালেন প্রকাশ জাভাড়েকর। ছবিঃ টুইটার

জরুরি অবস্থার উপর চালু হবে নতুন পাঠ্যক্রম, জানালেন প্রকাশ জাভাড়েকর। ছবিঃ টুইটার

নতুন প্রজন্মকে সচেতন করার জন্য জরুরি অবস্থার উপর নতুন অধ্যায় চালু করছে কেন্দ্রীয় সরকার, জানালেন প্রকাশ জাভাড়েকর

  • Share this:

    নয়াদিল্লি:  এবার জরুরি সময়ের কথা অন্তর্ভুক্ত হতে চলেছে পাঠ্যবইয়ে ৷ ১৯৭৫ সালের সালের ২৫ জুন তৎকালীন কংগ্রেস প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী সরকার দেশ জুড়ে জারি করেছিল জরুরি অবস্থা ৷ সেই সময়ের কথাই পড়ুয়াদের কাছে তুলে ধরতে এবার নেওয়া হচ্ছে এই নতুন উদ্যোগ ৷ সম্প্রতি নয়াদিল্লির একটি অনুষ্ঠানে এমন কথাই জানালেন মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর। এদিনের অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয়মন্ত্রী বলেন, সেই সময়ের ঘটনার 'সম্পূর্ণ সত্যতা' তুলে ধরার জন্যই স্কুল ও কলেজের পাঠ্যক্রমে চালু করা হবে এই নতুন অধ্যায়। যদিও পাঠ্যবইগুলিতে জরুরি অবস্থার উপর বেশ কয়েকটি অধ্যায় রয়েছে, জাভড়েকর জানান, নতুন প্রজন্মের উচিৎ সেই দুঃসময়ের কথা আরও ভাল ভাবে জানা। বিশেষজ্ঞদের সাহায্যে পুরনো অধ্যায়গুলি পুনর্বিবেচনা করা হবে এবং নতুন কিছু অধ্যায় যোগ করা হবে।

    আরও পড়ুন: ‘দেশের সংবিধানকে কোনওদিনই গুরুত্ব দেয়নি’, জরুরি অবস্থা নিয়ে কংগ্রেসকে কাঠগড়ায় তুললেন প্রধানমন্ত্রী

    জাভড়েকর জানান দেশের গণতন্ত্রের ইতিহাসের একটি লজ্জাজনক অধ্যায় ছিল এই জরুরি অবস্থা। কংগ্রেস শাসনকে কাঠগড়ায় তুলে জাভরেকর বলেন, কংগ্রেসের কাছে সবার আগে নিজের স্বার্থ, তারপর দল, সবার শেষে আসে দেশের কথা।

    সভাপতি রাহুল গান্ধীকেও এদিন একহাত নেন মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী ৷ রাহুলকে উদ্দেশ্য করে বলেন, কংগ্রেস সভাপতির উচিত সংবাদ মাধ্যম আর বিচারব্যবস্থার স্বাধীনতা নিয়ে কথা বলার আগে জরুরি অবস্থা নিয়ে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়া। কারণ জরুরি অবস্থা চলাকালীন দেশবাসীর মৌলিক অধিকার খর্ব করা হয়েছিল।

    First published: