corona virus btn
corona virus btn
Loading

স্বেচ্ছামৃত্যু নিয়ে আইনের খসড়া তৈরি, নিষ্কৃতি মৃত্যুর উইলে অনুমতি দিতে নারাজ কেন্দ্র

স্বেচ্ছামৃত্যু নিয়ে আইনের খসড়া তৈরি, নিষ্কৃতি মৃত্যুর উইলে অনুমতি দিতে নারাজ কেন্দ্র
Euthanasia

স্বেচ্ছামৃত্যু নিয়ে আইনের খসড়া তৈরি, নিষ্কৃতি মৃত্যুর উইলে অনুমতি দিতে নারাজ কেন্দ্র

  • Share this:

 #নয়াদিল্লি: প্যাসিভ ইউথেনেসিয়ার পক্ষে প্রস্তুত খসড়া বিল। সুপ্রিম কোর্টে হলফনামা দিয়ে জানাল কেন্দ্র। খসড়া বিলে বলা হয়েছে কোনও ব্যক্তির ব্রেন ডেথ হলে তবেই আবেদন করা যাবে স্বেচ্ছামৃত্যুর। জ্ঞানত কোনও ব্যক্তি স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদন করতে পারবেন না। আইনের অপব্যবহার রুখতেই সতর্ক পদক্ষেপ কেন্দ্রের।

মুম্বইয়ের কেইএম হাসপাতালের নার্স ছিলেন অরুণা শনবাগ। যিনি ওয়ার্ড বয়ের দ্বারাই যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছিলেন। গলায় লোহার চেন পেঁচিয়ে তাঁকে ধর্ষণ করা হয়। বিয়াল্লিশ বছর কোমায় থাকার পর 2015 সালে মারা যান শনবাগ। এভাবে বেঁচে থেকে কী লাভ? শনবাগের মৃত্যুর পর ফের মাথাচাড়া দেয় বিতর্ক। স্বেচ্ছামৃত্যুর আইনি অধিকার নিয়ে জোরালো হয় দাবি।

স্বেচ্ছামৃত্যু নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে জনস্বার্থ মামলার শুনানিতে এদিন অতিরিক্ত সলিসিটার জেনারেল পিএস নরসিমহা পাঁচ বিচারপতিকে নিয়ে গঠিত সাংবিধানিক বেঞ্চকে জানান, এই সমস্যা মোকাবিলায় নয়া আইন আনছে কেন্দ্র। MANAGEMENT OF PATIENTS WITH TERMINAL ILLNESS-WITHDRAWAL OF MEDICAL LIFE SUPPORT নামে এই নযা বিলে স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদনের বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হয়েছে। আইন কমিশনের সুপারিশ মেনেই নয়া বিল তৈরি হয়েছে বলে জানান অতিরিক্ত সলিসিটর জেনারেল।

কেন্দ্রের দাবি,

প্যাসিভ ইউথেনেশিয়া বা ব্রেন-ডেথ মানুষের হয়ে স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদন আইন স্বীকৃত দাবি। অরুণা শনবাগ মামলায় তা মেনে নিয়েছে আদালত। তবে সজ্ঞানে স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদন করা নিয়ে নীতিগত আপত্তি রয়েছে সরকারের। পরিবারের প্রবীণ সদস্য, যাঁদের দায়িত্ব নিতে চায় না পরিবার, তাঁদের ক্ষেত্রে অপব্যবহারের সম্ভাবনা থেকে যাবে।

অরুণা শানবাগ মামলার রায় অনুযায়ী বিশেষ ক্ষেত্রে মেডিক্যাল বোর্ডই সিদ্ধান্ত নেবে যে প্যাসিভ ইউথেনেসিয়ার অনুমতি দেওয়া হবে কিনা।

মামলাকারীর আইনজীবী প্রশান্ত ভূষণের দাবি,

সরকার বলছে লাইফ সাপোর্ট খোলার আবেদন করলে সিদ্ধান্ত নেবে মেডিক্যাল বোর্ড। সেক্ষেত্রে সজ্ঞানে স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদনে কেন্দ্রের কীসের আপত্তি? মেডিক্যাল বোর্ড সিদ্ধান্ত নিলে অপব্যবহারের প্রশ্ন কোথায়?

অপব্যবহারের প্রশ্নে প্রধান বিচারপতির পর্যবেক্ষণ, ভেন্টিলেশনে থাকতে চান না কোনও ব্যক্তি। সজ্ঞানেই তিনি এই সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। এটা প্রমাণ করার কী উপায়? এর উত্তরে প্রশান্ত ভূষণ-মেডিক্যাল বোর্ড সেই সিদ্ধান্ত নিলে অপব্যবহারের প্রশ্ন নেই। বিচারপতি - এক জন ব্যক্তি কি চিকিৎসা নিতে অস্বীকার করতে পারেন ? যদি তিনি চিকিৎসা নিতে অস্বীকার করেন তাহলে তিনি রাষ্ট্রের ওপর বোঝা হয়ে দাঁড়াতে পারেন।

অরুণা শানবাগ মামলাতেই সক্রিয় ইউথেনেসিয়া ও প্যাসিভ ইউথেনেসিয়ার মধ্যে পার্থক্য তৈরি হয়। ২৪১ তম রিপোর্টে ল কমিশন প্যাসিভ ইউথেনেসিয়া অনুমোদন দিয়েছিল। আজ ফের এই মামলার শুনানি।

First published: October 11, 2017, 8:57 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर