• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ভারতের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য হাফিজ সঈদকে একজোট হতে বলেছিলেন বুরহান ওয়ানি !

ভারতের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য হাফিজ সঈদকে একজোট হতে বলেছিলেন বুরহান ওয়ানি !

কাশ্মীরি জঙ্গি সংগঠনের নেতা বুরহান ওয়ানির মৃত্যুর কিছুদিন আগেই, বুরহান কথা বলেছিল লস্কর-ই-তহিবার নেতা হাজিফ সঈদের সঙ্গে

কাশ্মীরি জঙ্গি সংগঠনের নেতা বুরহান ওয়ানির মৃত্যুর কিছুদিন আগেই, বুরহান কথা বলেছিল লস্কর-ই-তহিবার নেতা হাজিফ সঈদের সঙ্গে

কাশ্মীরি জঙ্গি সংগঠনের নেতা বুরহান ওয়ানির মৃত্যুর কিছুদিন আগেই, বুরহান কথা বলেছিল লস্কর-ই-তহিবার নেতা হাজিফ সঈদের সঙ্গে

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #শ্রীনগর: কাশ্মীরি জঙ্গি সংগঠনের নেতা বুরহান ওয়ানির মৃত্যুর কিছুদিন আগেই, বুরহান কথা বলেছিল লস্কর-ই-তহিবার নেতা হাজিফ সঈদের সঙ্গে ৷ হাফিজের থেকে আর্শিবাদ চেয়ে বুরহান, ভারতের বিরুদ্ধে একজোট হওয়ারও কথা বলেছিল হাফিজকে ৷

    CNN-News18-এর হাতে আসে এরকমই এক চাঞ্চল্যকর অডিড টেপ ৷ যার থেকে স্পষ্ট হয়ে যায়, হাফিজ ও সঈদের বার্তালাপ ও ভারতের বিরুদ্ধে দু’জনের একজোট হওয়ার পরিকল্পনা ৷

    অডিও টেপ থাকা পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, পাকিস্তান থেকেই ফোন আসে বুরহান ওয়ানির কাছে ৷ বার্তালাপের শুরুতে, বুরহানকে সঈদ জানায়, ‘তোমরা খুব খারাপ অবস্থার মধ্যে বসবাস করছ ৷ কিন্তু চিন্তা করার কোনও কারণ নেই ৷ তোমাদের লড়াইয়ের জন্য যা প্রয়োজন তা আমাদের বল ৷ আমরা যেকোনও সাহায্যের জন্য তোমাদের পাশে আছি ৷ ’ এর উত্তরে ওয়ানি জানিয়ে ছিল, ‘শত্রুদের প্রায় নাশ করে ফেলেছি ৷ শুধু আর একটু সময় চাই৷ তবে আমার মনে হয়, শত্রু বিনাশে আমাদের একসঙ্গে হয়ে কাজ করা উচিত ৷ ’

    ৮ জুলাই সশস্ত্র বাহিনীর অভিযানে মৃত্যু হয়েছে তাঁর। মুহূর্তে বুরহান সম্পর্কে ধারণা বদলে গিয়েছে কাশ্মীরের। হঠাৎ ভারতীয় এজেন্ট থেকে বিপ্লবীতে উত্তরণ ঘটেছে কাশ্মীরি তরুণের। রাতারাতি মিথ দক্ষিণ কাশ্মীরের সচ্ছল মধ্যবিত্ত পরিবারের বিপথগামী তরুণ।

    সন্ত্রাসবাদের পোস্টার বয় বুরহান ওয়ানির প্রতি পাকিস্তানের সহানুভূতি প্রথম দিন থেকেই ৷ এবার সরাসরি বুরহান ওয়ানিকে শহীদের মর্যাদা দিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ ৷ একইসঙ্গে এই তরুণ জঙ্গির মৃত্যুতে শোক পালনের জন্য ১৯ জুলাই কালাদিবসের ডাক দিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ৷

    সেনাবাহিনীর গুলিতে নিহত কাশ্মীরের তরুণ জঙ্গিকে শহীদ সাজিয়ে কাশ্মীরের উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে পাকিস্তান আরও ঘৃতাহুতির চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ ৷ এদিন বুরহান ওয়ানিকে ‘শহীদ’ এবং ‘কাশ্মীরের স্বাধীনতা সংগ্রামী’ বলে বর্ণনা করেন করেন নওয়াজ শরিফ ৷ তাঁর মতে কাশ্মীরের স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন সেনানী ছিলেন বুরহান ৷

    বৃহস্পতিবার একই সুরে মৃত হিজাবুল মুজাহিদ্দিনের কম্যান্ডারকে ‘স্বাধীনতা সংগ্রামী’ বলে আখ্যা দিয়েছিলেন পাক বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র ৷

    এদিন লাহোরে হওয়া এক বৈঠকে পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন, কাশ্মীরের অধিকারের জন্য যারা লড়ছেন তাদের প্রতি পাকিস্তানের সবরকমের সমর্থন রয়েছে ৷ পাক রেডিও সূত্রে খবর, বুরহান ওয়ানিকে শহীদ বলে চিহ্নিত করেছেন শরিফ ৷ তিনি আরও বলেন, ভারত কাশ্মীরের প্রতি যেরকম নৃশংস ব্যবহার করছে তা কাশ্মীরের স্বাধীনতা আন্দোলনকে আরও তীব্র করবে বলে তাঁর অভিমত ৷

    কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদীদের দিকে তাঁর সমর্থনের হাত বাড়িয়ে দিয়ে শরিফ বলেছেন, ভূস্বর্গের মানুষ তাদের স্বাধীনতা অর্জন করবেই ৷ পাকিস্তান তাদের আন্দোলনের সঙ্গে আছে ৷ কাশ্মীরকে সেনার নজরবন্দি করেও আন্দোলন আটকানো যাবে না ৷

    গত সপ্তাহের শুক্রবার সেনাবাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হয় হিজবুল কমান্ডার বুরহান ওয়ানির ৷ জম্মু-কাশ্মীরের অনন্তনাগের কোকেরনাগে সংঘর্ষে ২২ বছরের হিজবুল মুজাহিদ্দিন বুরহান নিহত হয় বলে জানায় নিরাপত্তারক্ষীবাহিনী । মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গিদের তালিকায় নাম ছিল বুরহানের ৷ তাঁর মৃত্যুর প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে ওঠে কাশ্মীর উপত্যকা ৷

    এখনও পর্যন্ত জনতা-পুলিশ সংঘর্ষে এখনও পর্যন্ত ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে ৷ আহতের সংখ্যা প্রায় হাজার ৷ পরিস্থিতি মোকাবিলায় কাশ্মীর জুড়ে মোবাইল ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে। সমগ্র উপত্যকা জুড়েই এখন জারি হাই অ্যালার্ট।

    First published: