corona virus btn
corona virus btn
Loading

মোদির ‘মাস্টারস্ট্রোক’-এ ফাঁক, রেলের হাত ধরে সাদা হচ্ছে কালো টাকা

মোদির ‘মাস্টারস্ট্রোক’-এ ফাঁক, রেলের হাত ধরে সাদা হচ্ছে কালো টাকা

কালো টাকা রুখতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সার্জিক্যাল স্ট্রাইক ৷ রাতারাতি বাতিল ৫০০ ও ১০০০-এর নোট ৷ শোনার পর থেকে কালা ধনের মালিকদের রাতের ঘুম উধাও ৷

  • Share this:

#কলকাতা: কালো টাকা রুখতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সার্জিক্যাল স্ট্রাইক ৷ রাতারাতি বাতিল ৫০০ ও ১০০০-এর নোট ৷ শোনার পর থেকে কালা ধনের মালিকদের রাতের ঘুম উধাও ৷ তবু কুছ পরোয়া নেই ৷ আয়কর ও রাজস্ব বিভাগের নজর গলে কালো টাকাকে সাদা করার অভিনব পন্থা খুঁজে বার করলেন বেশ কিছু নাগরিক ৷

প্রথমে রেলের টিকিট কেটে তারপর তা বাতিল করে কালো টাকা সাদা করার অভিনব পন্থা নিলেন দেশের কিছু অসাধু নাগরিক ৷ তাতেও শেষ রক্ষা হল না রেল কর্তৃপক্ষের তৎপরতায় সামনে এ নতুন জালিয়াতি ৷

রেল কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর, অসৎ উপায়ে আয় করা টাকাকে বৈধ করার জন্য লক্ষ লক্ষ টাকার টিকিট বুক করে তারপর তা বাতিল করছেন অনেকে ৷ ইন্দোরের বিজয়নগর রেলওয়ে বুকিং অফিসে থেকে ৫ লাখ ২৭ হাজার টাকার টিকিট বুক করে বাতিল করার খবর এসেছে ৷

রেলের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা জানিয়েছেন, এই পদ্ধতিতে কালো টাকা সাদা করার চেষ্টা হতে পারে বুঝে বুকিংয়ের উপর নজরদারি চালানো হচ্ছিল ৷ আপাতত জালিয়াতি রুখতে রেলের তরফ থেকে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ৷

জালিয়াতি রুখতে আপাতত সন্দেহজনক টিকিট বুকিংয়ে কনফার্মেশন দেওয়া বন্ধ করল রেল ৷ পুরো ব্যাপারটি খতিয়ে দেখার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে রেল মন্ত্রককে ৷ একইসঙ্গে ৯ ও ১১ তারিখ বুকিং হওয়া টিকিট বাতিল করা হলে তার টাকা সরাসরি গ্রাহকের অ্যাকাউন্টে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল ৷

পশ্চিম রেলওয়ে কতৃপক্ষের থেকে পাওয়া তথ্য অনুসারে, বিজয়নগরের রেল রিজার্ভেশন কাউন্টার থেকে সকাল আটটা থেকে দুপুর দুটোর মধ্যে দিল্লি থেকে ত্রিবান্দ্রাম ও দিল্লি থেকে গুয়াহাটি যাওয়ার ১১৬ টি টিকিট বুক করা হয়েছে ৷ যার মোট মূল্য ৫ লাখ ২৭ হাজার টাকা ৷ একসঙ্গে এতটাকার এতগুলো ফার্স্ট ক্লাসের টিকিট বুক হওয়ায় সন্দেহ হয় রেল আধিকারিকদের ৷ তাদের আশঙ্কা, টিকিট বুক করে পরে বাতিল করলে গ্রাহকদের টাকা ফেরত দেওয়ার অপশনের ফায়দা তুলে নিজের বেআইনী অর্থকে বৈধ করতে চাইছে একদল অসৎ নাগরিক ৷

৮ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঘোষণার পর ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিল হয়ে যায় ৷ তবে সাধারণ মানুষদের সুবিধা ও অসুবিধার কথা মাথায় রেখে কিছু অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবায় নতুন নোট বন্টন শুরু না হওয়া পর্যন্ত অচল নোট গ্রহণ করার ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয় ৷ এই অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবার মধ্যে রেলের টিকিট বুকিংকেও ছাড় দেওয়া হয়েছিল ৷

এই ছাড়ের ফায়দা তুলেই জালিয়াতরা কালো টাকাকে সাদা করার সুবিধে নিচ্ছে বলে আশঙ্কা করছে রেল মন্ত্রক ৷

First published: November 10, 2016, 6:51 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर