• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • রাজ্যের একমাত্র মহিলা মুখ্যমন্ত্রী, নাম নেই নাগরিকপঞ্জিতে

রাজ্যের একমাত্র মহিলা মুখ্যমন্ত্রী, নাম নেই নাগরিকপঞ্জিতে

Picture Courtesy: Twitter

Picture Courtesy: Twitter

নিজের ও পরিবারের সদস্যদের নাম নাগরিকপঞ্জিতে নথিভুক্ত করার জন্য তিনি দেশে ফিরছেন । ১৯৮০ সালের ডিসেম্বর মাস থেকে ১৯৮১ সালের জুন মাস পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী পদে ছিলেন তিনি ।

  • Share this:

    #গুয়াহাটি: বর্তমানে তিনি আছেন অষ্ট্রেলিয়ায় । দেশের একমাত্র মহিলা মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার কৃতিত্বও জুড়ে আছে তাঁর নামের সঙ্গে । অথচ সেই সৈয়দ আনোয়ারা তৈমুরের নামই নেই খসড়া নাগরিকপঞ্জিতে । খালি পড়ে রয়েছে তাঁর দিশপুরের বাড়িটিও ।

    নিজের ও পরিবারের সদস্যদের নাম নাগরিকপঞ্জিতে নথিভুক্ত করার জন্য তিনি দেশে ফিরছেন । ১৯৮০ সালের ডিসেম্বর মাস থেকে ১৯৮১ সালের জুন মাস পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী পদে ছিলেন তিনি । ১৯৮৮ সালে রাজ্যসভার সদস্যও ছিলেন তিনি । ১৯৭২, ১৯৭৮,১৯৮৩ ও ১৯৯১ সালে বিধায়ক পদেও ছিলেন । ২০১১ তে কংগ্রেস ছাড়েন ও যোগ দিয়েছিলেন সর্বভারতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্টে । শারীরিক অবস্থার অবনতির কারণে গত কয়েক বছর ধরে অষ্ট্রেলিয়াতেই থাকেন তিনি । নিজের এক আত্মীয়ার মাধ্যমে তিনি যাবতীয় প্রমাণপত্র জমাও দিয়েছিলেন তিনি । কিন্তু খসড়া নাগরিকপঞ্জিতে নাম ওঠেনি তাঁর ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের।

    যদিও এনআরসি কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে জানানো হয়েছে এ বিষয়ে তাঁদের কাছে কোনও সুনির্দিষ্ট তথ্য নেই , ফলে তাঁর আবেদনের বিষয়টিও স্পষ্ট করে বলতে পারেননি এনআরসি কর্তারা । গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট সচিব আমিনুল ইসলাম জানিয়েছেন গোটা এনআরসি প্রক্রিয়াই ভুলে ভরা ও সেইজন্যই এই ধরনের ঘটনা ঘটে চলেছে। প্রসঙ্গত, এর আগে এনআরসি তালিকায় নাম ওঠেনি প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি ফকরুদ্দিন আলির ভাইপোর ।

    বিষয়টি নিয়ে এনআরসি রাজ্য কোঅর্ডিনেটর প্রতীক হাজেলার সাথেও সাক্ষাৎ করবে গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট ।

    First published: