corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা রুখতে চ্যালেঞ্জিং পদক্ষেপ, ১০ জুলাইয়ের মধ্যে প্রতিটা বাড়িতে যাবে দিল্লি প্রশাসন

করোনা রুখতে চ্যালেঞ্জিং পদক্ষেপ, ১০ জুলাইয়ের মধ্যে প্রতিটা বাড়িতে যাবে দিল্লি প্রশাসন
Photo- File

করোনা রুখতে দিল্লি সরকারের নজিরবিহীন ভাবনা

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: দিল্লিতে মারণ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে রাজধানী দিল্লি নিয়ে সরকার বিশেষ পদক্ষেপ নিল ৷ এক প্ল্যান নিয়ে তারা এই সংক্রমণের লড়াই করবে ৷ দিল্লির প্রতিটা বাড়িতে পৌঁছে যাবে কেজরিওয়াল প্রশাসন ৷ দাবি করা হয়েছে, ৬ জুলাই অবধি দিল্লির প্রতিটা বাড়িতে পৌঁছে যাবে প্রশাসন ৷ নতুন কোভিড রেসপন্স প্ল্যানের দরুণ প্রতি ঘরে পৌঁছনোর চ্যালেঞ্জিং সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ৷

কেজরিওয়াল সরকার জানিয়েছে ৩০ জুনের মধ্যেই এই খোঁজ শেষ হয়ে যাবে , আর যদি ওই তারিখে শেষ না হয়, তাহলে ৬ জুলাই অবধি অতি অবশ্যই শেষ হয়ে যাবে ৷

সারা দেশে যে সব অঞ্চলে দ্রুত করোনার বৃদ্ধি হচ্ছে তার মধ্যে দিল্লি অন্যতম ৷ সংবাদমাধ্যমে পাওয়া খবর অনুযায়ী, মঙ্গলবার দিল্লিতে করোনা সংক্রমণের ৩৯৪৭টি কেস সামনে এসেছে ৷ যা একদিনে সর্বাধিক সংক্রমণের নতুন রেকর্ড ৷ করোনা সংক্রমণ নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ গত সপ্তাহেই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সঙ্গে বৈঠক করেন ৷ এখনও অবধি দিল্লিতে মোট করোনা সংক্রমিত ৬২ হাজারের কাছাকাছি ৷

দিল্লিতে ২৬১ টি এলাকায় করোনা সংক্রমণ যথেষ্ট তীব্র তাই পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝে সেই এলাকাগুলি সিল করে দেওয়া হয়েছে ৷ দিল্লি সরকার জানিয়েছে প্রতিদিন গড়ে ২৫০০ বেশি নতুন সংক্রমণ সামনে আসছে ৷ মৃত্যু ৭৫৷ আর এই সংক্রমণের ৪৫ সতাংশ কনটেইমেন্ট এলাকা থেকেই আসছে ৷

কোভিড ১৯ পরিস্থিতি সামাল দিতে জেলা ম্যাজিস্ট্রেটদের নজরজারিতে বিশেষ টাস্কফোর্স তৈরি করা হয়েছে ৷ এরমধ্যে দিল্লি নগর নিগম, জেলা পুলিশ, উচ্চপদস্থ সরকারি আধিকারিক মহামারী বিজ্ঞানীদের রাখা হয়েছে ৷ আর ভরসা রাখা হচ্ছে আরোগ্য সেতু অ্যাপের ওপর ৷ যে জায়গায় সংক্রমণ অধিক সেখানে যেন অতি অবশ্যই আরোগ্য সেতু অ্যাপ ডাউনলোড হয়ে থাকে তা নিশ্চিত করতে চাইছে সরকার ৷

এদিকে সীমান্ত এলাকায় সিসিটিভি ক্যামেরার মাধ্যমে নজরদারি বাড়িয়েছে পুলিশ৷ দিল্লিতে করোনা ভাইরাসের ব্যপ্তি মাপতে বাজারেও নমুনা সংগ্রহের ব্যবস্থা করা হবে ৷ ২৭ জুন থেকে ১০ জুলাই অবধি এই অভিযান চলবে ৷

 
Published by: Debalina Datta
First published: June 24, 2020, 12:40 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर