তাহলে কি এভাবেই মরবে কোভিড ! দোকানির বুদ্ধিতে অবাক আনন্দ মাহিন্দ্রা !

তাহলে কি এভাবেই মরবে কোভিড ! দোকানির বুদ্ধিতে অবাক আনন্দ মাহিন্দ্রা !

photo source twitter

করোনাকে নিয়ে কি ব্যবসা করা যায় মাথায় ঘুরতে থাকে দোকানের মালিকের। অবশেষে তিনি এক আশ্চর্য আবিষ্কার করে ফেলেন।

  • Share this:

    #নয়া দিল্লি:বিশ্বজুড়ে চলছে করোনার দাপট। চিনের ইউহানে গত বছরের নভেম্বরের ১৭ তারিখ হানা বসিয়েছিল করোনা। কোথা থেকে এল, কি তার জন্ম পরিচয় এসব মানুষ বোঝার আগেই ক্ষুদ্র থেকে ক্ষুদ্রতম ভাইরাসটি প্রাণ নিতে শুরু করে হাজার হাজার মানুষের। ভারতেও করোনা এসেছিল এ বছরের ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে। আসার পরেই হু হু করে বিস্তার করে তার জাল। হাজার হাজার মানুষ করোনা আক্রান্ত হতে থাকে। এই অবস্থায় দেশ জুড়ে চালু হয় লকডাউন। দীর্ঘ সময় ধরে চলে কড়া লকডাউন। যদিও এখনও চলছে সেই লকডাউনের প্রভাব। তবে অবশ্যই আগের থেকে হালকা হয়েছে। এই অবস্থায় তলানিতে এসে ঠেকে দেশের অর্থনীতি। বহু মানুষের ব্যবসা বন্ধ হয়েছে, চাকরি গিয়েছে। তবে এসব কিছুর মধ্যেও ঘুরে তো দাঁড়াতেই হবে। সকলকে চমকে দিয়েছেন এক রেস্টুরেন্ট ব্যবসায়ী।

    করোনার জন্য বন্ধ হয়ে যায় পথের ধারের খাবারের দোকান। কিন্তু পেট তো চালাতেই হবে। খাবার বিক্রি বন্ধ হয়েছে। কোভিডের সময় কে আর রাস্তার দোকানে খাবার খেতে আসবে ! কিন্তু এই পরিস্থিতি নতুন কোন ব্যবসাই বা চলতে পারে। করোনাকে নিয়ে কি ব্যবসা করা যায় মাথায় ঘুরতে থাকে দোকানের মালিকের। অবশেষে তিনি এক আশ্চর্য আবিষ্কার করে ফেলেন। তিনি স্টিম থেরাপির দোকান খুলে ফেলেন।

    স্টিম থেরাপি? কিন্তু তা করতে গেলে তো কিছুটা চিকিৎসা বিদ্যা জানা দরকার ! না ওসব চিকিৎসা বিদ্যার ধার ধারেন না এই ব্যক্তি। তিনি নিজের দোকানেই জল গরম করছেন একটি উনোনে। তার ওপর বসানো একটি লোহার পাত্র। যার সঙ্গে পাইপ লাগানো হয়েছে কয়েকটি। তা সব ঠিক আছে এই স্টিম থেরাপি নেবেন কারা? তবে দোকানদার ভাবতেও পারেননি, যে তাঁর এই স্টিম থেরাপি এত ফেমাস হবে। যাদেরই সামান্য গলা ব্যথা বা সর্দি জ্বর লাগছে তারা সবাই বসে পড়ছেন এই দোকানের পাইপের সামনে। চটপট স্টিম থেরাপিতে আরাম মিলছে অনেকটাই। করোনা মনে হলেই মানুষ চলে যাচ্ছে এই দোকানে স্টিম নিতে।

    এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হতেই ভাইরাল হয়। ভিডিওটি ট্যুইটারে শেয়ার করেছেন মাহিন্দ্রা গ্রুপের কর্ণধার আনন্দ মাহিন্দ্রা। তিনি এই ভিডিও শেয়ার করে লিখেছেন, " তারিফ করতে হয় ভদ্রলোকের ব্যবসায়িক বুদ্ধির। হারর্ভাড ইউনিভার্সিটিও আর মানবে তাঁর বুদ্ধির কাছে। কিভাবে এই পরিস্থিতি নিজের নতুন ব্যবসা করা যায় তা তিনি করে দেখিয়েছেন। কোভিড নিয়ে চিন্তিত মানুষদের স্টিম থেরাপি দিচ্ছেন। তবে এটা ভারতের হলেও ঠিক কোথাকার জানা নেই। দারুণ।" এই পোস্ট মুহূর্তে ভাইরাল হয়।

    Published by:Piya Banerjee
    First published: