BIG BREAKING! মধ্যরাতে কমলনাথ মন্ত্রিসভার ২২ সদস্য পদত্যাগ করলেন

BIG BREAKING! মধ্যরাতে কমলনাথ মন্ত্রিসভার ২২ সদস্য পদত্যাগ করলেন

একসঙ্গে ২২ মন্ত্রী পদত্যাগ করেছেন কমলনাথের মন্ত্রিসভায়

  • Share this:

#ভোপাল:  মধ্যপ্রদেশে মাঝরাতে নাটক৷ দীর্ঘক্ষণ আলোচনার পরে মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমলনাথ ঘোষণা করলেন, তাঁর মন্ত্রিসভার সমস্ত সদস্যই পদত্যাগ করেছেন৷ আগামীকালের পর ফের নতুন করে মন্ত্রিসভা তৈরি করা হবে৷ কারণ, একসঙ্গে ২২ মন্ত্রী পদত্যাগ করেছেন কমলনাথের মন্ত্রিসভায়৷

এদিন সকাল থেকেই জটিল হতে শুরু করে মধ্যপ্রদেশের পরিস্থিতি৷ হঠাৎ কংগ্রেসের বিধায়করা বেপাত্তা হয়ে যান৷ ফোন ধরা বন্ধ করে দেন৷ অন্যদিকে শোনা যাচ্ছে, দিল্লিতে রয়েছেন মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া৷ সেখানে সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে কথা হওয়ার কথাও শোনা যাচ্ছে৷ এদিকে ক্রমে একা হয়ে পড়ছেন কংগ্রেসের পোড় খাওয়া সৈনিক কমলনাথ৷ আর সংকটের মাঝেই তিনি বন্ধুবর নেতা দ্বিগ্বিজয় সিংকে নিয়ে সভায় বসেছেন৷ হাতে ১২০ বিধায়ক, সংখ্যগরিষ্ঠতার অঙ্ক থেকে যা মাত্র ৪ আসন বেশি৷ ফলে আসন য়ে সহজে টলমল হবে, সে কথা বুঝতে পেরেছেন কমলনাথ৷

ওদিকে ঝোপ বুঝে কোপ মারতে চাইছে বিজেপিও৷ পরিস্থিতি ঘোরালো হয়ে যাওয়ার পরেই বিশেষ বৈঠক ডেকেছে গেরুয়া শিবির৷ দিল্লিতে অমিত শাহের বাসভবনে সরকার গড়ার আশার আলো দেখতেই হাজির হয়েছেন বিজেপির প্রাক্তন বিধায়ক শিবরাজ সিং চৌহান, মোনেরার সাংসদ নরেন্দ্র সিং তোমার৷ বিজেপি শক্তি প্রদর্শনের জন্য মঙ্গলবার সন্ধ্যায় একটি সভার ডেকেছে৷ সেখানে সমস্ত বিধায়কদের উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে৷ যদিও সরকার গঠনের জন্য বিজেপি অনাস্থা প্রস্তাব আনবে কি না, তা নিয়ে এখনও স্পষ্ট কিছু জানাননি বিজেপির মধ্যপ্রদেশ নেতৃত্ব৷ তবে জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া যদি দল পাল্টে বিজেপিতে আসতে চান, তাহলে কী তাঁকে উচ্চপদ দিয়ে গ্রহণ করবে বিজেপি? সেটাও খোলসা করা হয়নি৷ তবে বলা হয়েছে, রাজনীতিতে সবই হয়৷

উল্লেখ্য, যে বিধায়করা আত্মগোপন করেছেন, তাঁদের সকলেই সিন্ধিয়া শিবিরের লোক৷ রয়েছেন মন্ত্রীরাও৷ ফলে তাঁদের নিয়ে চিন্তায় পড়ে গিয়েছে কংগ্রেস হাইকমান্ড৷

যদিও, দু’দিন আগেই দিল্লিতে গিয়ে সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে মধ্যপ্রদেশ রাজ্য সরকারের মন্ত্রিসভা রদবলদের বিষয়ে আলোচনা করে এসেছেন মুখ্যমন্ত্রী কমলনাথ৷ কিন্তু তারপরেই হঠাৎ সিন্ধিয়া শিবিরের কংগ্রেস নেতারা ক্ষেপে উঠেছেন৷ কারণ, নতুন মন্ত্রিসভাতেও তাঁদের জায়গা হওয়ার নিশ্চিত সম্ভবনা দেখছেন না তাঁরা৷

যদিও এমন চিত্র খুব একটা নতুন নয়৷ এর আগেও একাধিকবার বিভিন্ন রাজ্য সরকারের নেতারা এভাবেই নানা সময়ে উধাও হয়ে যেতেন৷ কর্নাটকেও এমন নাটক বারবার হয়েছে৷ যদিও, মধ্যপ্রদেশ সরকার শেষ পর্যন্ত এই ধাক্কায় পড়ে যায় কি না, এখন সেটাই দেখার৷

First published: March 9, 2020, 11:28 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर