তৃতীয় ঢেউয়ের ভয়! দিল্লি এইমস-এ শুরু হচ্ছে শিশুদের উপর কোভ্যাক্সিনের ট্রায়াল

প্রতীকী চিত্র-রয়টার্স থেকে নেওয়া।

সারা দেশের বিভিন্ন জায়গার ৫২৫ জন স্বাস্থ্যবান শিশু ভলেন্টিয়ারের উপর এই ট্রায়াল হবে।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: বহু গবেষকের অনুমান করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের বলি হতে পারে শিশুরা, দেশজুড়েই স্বাস্থ্যকর্মীরা তাই চাইছেন আগেভাগেই সুরক্ষাকবচের ব্যবস্থা করতে। সোমবার থেকেই তাই রাজধানী দিল্লিতে শিশুদের উপর ভারত বায়োটেকের কোভ্যাক্সিনের ট্রায়াল শুরু করছে অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্সেস, এমনটাই খবর সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে। ইতিমধ্যেই এইমস পাটনার তরফে শিশুদের ওপর এই দেশীয় ভ্যাকসিনের ট্রায়াল শুরু হয়ে গিয়েছিল। গত ১১ মে ড্রাগ কন্ট্রোল জেনারেল অব ইন্ডিয়া এইমস কর্তৃপক্ষকে এই ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের ছাড়পত্র দেয়।

    জানা যাচ্ছে, এইমস পাটনায় ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সিদের ট্রায়াল' শুরু হয়েছে। এরপরে যথাক্রমে ৬ থেকে ১২ এবং ২ থেকে ৬ বছর বয়সি শিশুদের উপর ট্রায়াল' শুরু হবে, জানিয়েছেন এইমস পাটনার ডিরেক্টর প্রভাত কুমার সিং।

    এর আগে অবশ্য নীতি আয়োগের সদস্য ভি কে পাল বলেন, ড্রাগ কন্ট্রোল বোর্ড শিশুদের উপর দুই এবং তিন নম্বর ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের ছাড়পত্র দিয়েছে ।সেক্ষেত্রে ২ থেকে ১৮ বছর বয়সিদের মধ্যে এ ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল করা যাবে।

    সারা দেশের বিভিন্ন জায়গার ৫২৫ জন স্বাস্থ্যবান শিশু ভলেন্টিয়ারের উপর এই ট্রায়াল হবে। ২৮ দিনের ব্যবধানে দুটি ডোজ দেওয়া হবে একজন ভলেন্টিয়ারকে, এমনটাই সূত্র মারফত খবর।

    টিকাদানের ক্ষেত্রে এক দিকে যেমন শিশুর সুরক্ষার বিষয়টি মাথায় রাখা হবে তেমনই দেখা হবে ওই শিশুর শরীরে কোনও পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া হচ্ছে কিনা,   কী ভাবে শিশুর শরীরে ভ্যাকসিনটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলে তা খতিয়ে দেখা হবে।

    উল্লেখ্য ভারত বায়োটেকের সঙ্গে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চ গাঁটছড়া বেঁধে তৈরি করেছে দেশীয় এই ভ্যাকসিন। কোভ্যাক্সিন ইতিমধ্যেই সারা ভারত জুড়ে টিকাকরণে ব্যবহৃত হচ্ছে।

    Published by:Arka Deb
    First published: