৪ বছর পর বিহারে মায়ের কাছে ফিরল এরাজ্যে উদ্ধার ভারসাম্যহীন 'বিকাশ', পাশে ওয়েস্টবেঙ্গল হ্যাম রেডিও

৪ বছর পর বিহারে মায়ের কাছে ফিরল এরাজ্যে উদ্ধার ভারসাম্যহীন 'বিকাশ', পাশে ওয়েস্টবেঙ্গল হ্যাম রেডিও

২২ বছর আগে, বাবার মৃত্যুর শোক আর মাথার আঘাত লাগায় মানসিক স্থৈর্য হারায় বিট্টু ওরফে বিকাশকুমার সাহু। ছয় ভাইবোনের মধ্যে সবচেয়ে মেধাবী এবং দুর্বল। ফলে মায়ের একটু বেশি প্রিয়ও বটে।

  • Share this:

Tridip Bhattacharya

#কলকাতা: বিহারের মাধেপুরা থেকে ফোনটা এসেছিল। ওপাশে তখন অঝোর কাঁদছেন মা কল্যাণীকুমারী সাহু। বারবার কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছেন, ওয়েস্টবেঙ্গল হ্যাম রেডিওকে। কারণ, প্রায় ৪ বছর পর, ঘরে ফিরছে লাডলা। এখনও আইনি কাজকর্ম বাকি। থানা-পুলিশ-আদালতের চক্কর বাকি। তবুও তো হদিশ মিলেছে বিট্টুর। এক সময় ভেবেছিলেন, অপহরণ করা হয়েছে বছর ত্রিশের ছেলেকে। কেটে নেওয়া হয়েছে কিডনি-অগ্ন্যাশয়। মাধেপুরা থানায় ডায়েরিও করেছিলেন। তবু খোঁজ মেলেনি।

মা কল্যাণীকুমারী সাহু জানিয়েছেন, ২২ বছর আগে, বাবার মৃত্যুর শোক আর মাথার আঘাত লাগায় মানসিক স্থৈর্য হারায় বিট্টু ওরফে বিকাশকুমার সাহু। ছয় ভাইবোনের মধ্যে সবচেয়ে মেধাবী এবং দুর্বল। ফলে মায়ের একটু বেশি প্রিয়ও বটে।

বনেদি বাড়ি বিহারের মাধেপুরায়। মা-বাবা কল্যাণীকুমারী সাহু অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক। বাবাও পড়াতেন কলেজে। ২০১৭র ১৭ জুলাই মাধেপুরার বাড়ি থেকে বেড়িয়ে আর ফিরে আসেননি। মাস ছয়েক আগে, বনগাঁ থেকে আহত বিকাশকে উদ্ধার করা হয়। মানসিক ভারসাম্যহীন বিকাশ নিজের নাম-পরিচয় বলতে পারেননি। বনগাঁ সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের সুপার ডাক পাঠান ওয়েস্টবেঙ্গল হ্যাম রেডিওকে। জানা যায়, কিছুটা সুস্থ হলে, চিকিত্সকদের বিভিন্ন সময়ে মুম্বই-পুনের বিভিন্ন ঠিকানা বলছিলেন বিকাশ। সেইমত খোঁজ শুরু করেন পশ্চিমবঙ্গ হ্যাম রেডিও ক্লাবের সদস্যরা। ঠিকানা মিললেও, পরিচয় জানা যায় না আহত যুবকের। হ্যাম-রেডিওর সদস্যরা সরাসরি কথা বলে বিহারের পূর্ণিয়া জেলার মাধেপুরার এক ঠিকানা পান। সেখানে যোগাযোগ করে ছবি দেখাতেই বিট্টুর খোঁজ মেলে।

মাধেপুরা থেকে বনগাঁ। হ্যাম-রেডিও যোগাযোগ চলে। শেষ পর্যন্ত বিট্টু ডাকেই সাড়া মেলে। জানা যায় যুবকের স্কুল-কলেজের নাম বিকাশকুমার সাহু। কল্যাণীকুমারী সাহুর ছোট ছেলে। বিকাশের পায়ের ক্ষতে গ্যাংগ্রিন হওয়ায়, বনগাঁ সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে জরুরী অপারেশনও হয়েছে। মায়ের অপেক্ষা শেষ। সন্তানের খোঁজ আর কান্নার দিনও শেষ। আইনি জটিলতা মিটলেই বনগাঁ থেকে ৬০০ কিলোমিটার দূরে মাধেপুরার চারতলা বাড়ির নিজস্ব চেনা ঘরে দিন কাটবে বিকাশের। কৃতজ্ঞ মা বারবার ধন্যবাদ জানিয়েছেন, ওয়েস্টবেঙ্গল হ্যাম রেডিও ক্লাবের সভাপতি অম্বরীশ নাগ বিশ্বাসকে। অম্বরীশ জানিয়েছেন, এমন অনেক হারিয়ে যাওয়া মানুষকে খুঁজে বার করেছে হ্যাম রেডিও ক্লাবের বন্ধুরা। সরকারের সঙ্গে যৌথভাবে বিভিন্ন দুর্যোগে, গঙ্গাসাগর বা পৌষমেলায় কাজ করে ওয়েস্টবেঙ্গল হ্যাম রেডিও ক্লাব।

First published: 07:46:20 PM Dec 01, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर