• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • কৃষকদের সামনে বসার হিম্মত নেই, তাই ভার্চুয়াল বৈঠকের নামে লুকোচ্ছেন, মোদিকে আক্রমণ অধীরের

কৃষকদের সামনে বসার হিম্মত নেই, তাই ভার্চুয়াল বৈঠকের নামে লুকোচ্ছেন, মোদিকে আক্রমণ অধীরের

অধীররঞ্জন চৌধুরী।

অধীররঞ্জন চৌধুরী।

'আমরা শুধু এইটুকুই চাইছি প্রধানমন্ত্রী ওদের সঙ্গে বসে ওনাদের কথা শুনুন ৷ কিন্তু তা না করে সমাধান বের না করে উনি উল্টে কৃষকদের উপরই মিথ্যে অপবাদ দিচ্ছেন ৷ আন্দোলনের ছবিকেই কলুষিত করতে চাইছেন ৷ ’

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: রাজনৈতিক কারণে প্রধানমন্ত্রী কিষাণ নিধি প্রকল্প বাংলায় চালু করছে না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার, বড়দিনের ভার্চুয়াল বৈঠকে কৃষকদের উদ্দেশে বার্তায় মোদির টার্গেট বাংলা ৷ শুধু তাই নয়, কৃষকদের ভুল বোঝানোর জন্য দায়ী করে বাম-কংগ্রেসেও তীব্র আক্রমণ করেন প্রধানমন্ত্রী ৷ মোদির বক্তব্যের পাল্টা প্রতিবাদ জানান লোকসভায় কংগ্রেসের নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী৷ একইসঙ্গে তাঁর দাবি, কৃষকদের টাকা দেওয়ার যে যোজনা মোদি ঘোষণা করেছেন, তা নতুন কিছু নয় অনেক আগে থেকেই বাংলায় আছে ৷

    কৃষকদের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানো নিয়ে মোদির দাবি সম্পূর্ণ ভ্রান্ত বলে দাবি করেছেন অধীর ৷ তিনি বলেন, ‘বহুদিন ধরেই বছরে তিন বার ২ হাজার টাকা করে কৃষকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে জমা পড়ছে ৷ দেশের অনেক রাজ্যেই এই ব্যবস্থা রয়েছে ৷ মনে হচ্ছে মোদিজি এতদিনে জানতে পেরেছেন ৷ প্রধানমন্ত্রী কোনও নতুন কথা বলছেন না ৷ ’

    কৃষকদের ভুল বোঝাচ্ছে কংগ্রেস ৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির এই অভিযোগের জবাবে লোকসভায় কংগ্রেসের নেতা অধীর বলেন, ‘করোনা মহামারির কারণে বেহাল কৃষকদের অবস্থা ৷ আমাদের দাবি, কৃষকদের ঋণ মাফ করে দেওয়া হোক ৷ কৃষকেরা আজ আন্দোলনে নেমেছেন কিন্তু মোদিজির ওদের সঙ্গে বৈঠকে বসার সাহসটুকুও নেই ৷ কৃষকদের এতটা মূর্খ ভাববেন না যে ভার্চুয়াল বৈঠকের মন ভোলানো কথায় ওরা ভুলবে৷ ’

    প্রধানমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে অধীর আরও বলেন, ‘এক মাস হতে চলল দিল্লির এই ঠান্ডায় এরকম করুণ অবস্থায় আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন কৃষকেরা ৷ লাখ লাখ কৃষকের এমন দুদর্শাতেও মন গলছে না কেন্দ্রের ৷ আমরা শুধু এইটুকুই চাইছি প্রধানমন্ত্রী ওদের সঙ্গে বসে ওনাদের কথা শুনুন ৷ কিন্তু তা না করে সমাধান বের না করে উনি উল্টে কৃষকদের উপরই মিথ্যে অপবাদ দিচ্ছেন ৷ আন্দোলনের ছবিকেই কলুষিত করতে চাইছেন ৷ ’

    অধীর রঞ্জন চৌধুরীর মতে, ‘কেন্দ্র সরকারের নিজের জেদ ছেড়ে এই মানুষগুলোর কথা ভেবে একটু নমনীয় হওয়া দরকার ৷ নইলে সমস্যা কমার বদলে লাগাতার বেড়েই চলেছে ৷’ লোকসভায় বিরোধী দল কংগ্রেসের নেতার পরামর্শ, ‘কেন্দ্রকেই এই সমস্যার সমাধান করতে হবে ৷ বিল প্রত্যাহার করলে তো আর আকাশ ভেঙে পড়বে না! কেন্দ্রের উচিত এই বিল প্রত্যাহার করে কৃষক এবং তাদের শুভাকাঙ্খীদের সঙ্গে আলোচনা করে বিলে প্রয়োজনীয় সংশোধন করে ফের পেশ করা উচিত ৷’

    Published by:Elina Datta
    First published: