corona virus btn
corona virus btn
Loading

তৃতীয় দফার লকডাউনে রেড জোনে কী কী ছাড় দেওয়া হবে ?

তৃতীয় দফার লকডাউনে রেড জোনে কী কী ছাড় দেওয়া হবে ?

রেড জোনে জরুরি পণ্য উৎপাদন করা হয় এমন শিল্প বা কারখানা, ওষুধ বা চিকিৎসা সরঞ্জাম উৎপাদন শিল্প খুলে রাখার অনুমতি দেওয়া হয়েছে৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: আরও দু'সপ্তাহ বাড়ছে লকডাউন। গৃহ মন্ত্রালয়ের তরফে শুক্রবার ঘোষণা করা হয় ৪ মে থেকে লকডাউনের সময়সীমা বাড়িয়ে করা হল ১৭ মে ৷ তৃতীয় দফার লকডাউনের জন্য দেশকে তিনটি জোন--রেড, অরেঞ্জ ও গ্রিন হিসেবে ভাগ করা হয়েছে ৷ রেড জোনে লকডাউন নিয়ে কড়াকড়ি থাকলেও অর্থনীতিকে সচল রাখার স্বার্থে বেশ কিছু ছাড় দিল কেন্দ্রীয় সরকার৷ গ্রামীণ এলাকায় শিল্প ও নির্মাণ কাজে ছাড় দেওয়া হয়েছে ৷ MNREGA কাজ, ফুড প্রসেসিং ইউনিট চালু থাকবে ৷ মল ছাড়া সমস্ত দোকান খোলা থাকবে ৷ কৃষি সংক্রান্ত সমস্ত কাজ করা যাবে ৷ তবে সেলুন, মাসাজ পার্লারের মতো পরিষেবা বন্ধই থাকবে৷ হোটেল ও রেস্তোরাঁও বন্ধ রাখা হবে ৷ কোনও রকমের জনসমাগম করা যাবে না ৷ সিনেমা হল, মল, জিম, স্পোর্টস কমপ্লেক্স সমস্ত কিছু আপাতত বন্ধ থাকবে ৷ সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সমাগম করা যাবে না ৷ ধর্ম স্থানগুলিও বন্ধ রাখা হবে ৷

রেড জোনে জরুরি পণ্য উৎপাদন করা হয় এমন শিল্প বা কারখানা, ওষুধ বা চিকিৎসা সরঞ্জাম উৎপাদন শিল্প খুলে রাখার অনুমতি দেওয়া হয়েছে৷ একই সঙ্গে রেড জোনেও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং কাজের সময় ভাগ করে দিয়ে চটকল খোলার অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার৷ পাশাপাশি  নির্মাণ শিল্প এবং প্যাকেজিং ইউনিট খোলার অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার৷

ফাইন্যান্সিয়াল সেক্টর খোলা রাখা হবে যার মধ্যে ব্যাঙ্ক সামিল রয়েছে ৷ NBFCs, ইনস্যুরেন্স ও ক্যাপিটল মার্কেট , ক্রেডিট কো অপারেটিভ সোসাইটি খোলা থাকবে ৷ বিদ্যুৎ, জল, স্যানিটেশন, টেলিকমিউনিকেশন ও ইন্টারনেট পরিষেবা খোলা থাকবে ৷ ক্যুরিয়র ও পোস্টল পরিষেবাকে অনুমতি দেওয়া হয়েছে কাজ করার ৷

First published: May 1, 2020, 8:42 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर