• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ABHISHEK BANERJEE IN AN EMERGENCY MEETING IN DELHI ON PARLIAMENTARY STRATEGY SANJ

Abhishek Banerjee : ২২ জুলাই দিল্লিতে জরুরি বৈঠকে অভিষেক! তৈরি হবে সংসদীয় রণনীতির ব্লু-প্রিন্ট

রণনীতি নির্ধারণে অভিষেক

Abhishek Banerjee : শহীদ দিবসের অনুষ্ঠানের পরে একুশে জুলাই রাতে দিল্লি পৌঁছচ্ছেন অভিষেক। ২৬শে জুলাই দিল্লি পৌঁছবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (CM Mamata Banerjee) দিল্লি সফরের আগে আগামী বাইশে জুলাই দলের দুই কক্ষের সাংসদদের নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসতে চলেছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়(Abhishek Banerjee)। সূত্রের খবর মূলত সংসদে দলের রণনীতি নির্ধারণ করতেই এই বৈঠকের ডাক দিয়েছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক।

তৃণমূলের লোকসভার দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজ্যসভার দলনেতা ডেরেক ও'ব্রায়েন, সৌগত রায়, সুখেন্দুশেখর রায়ের কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়, কাকলি ঘোষ দস্তিদার, মহুয়া মৈত্র, শান্তনু সেনদের সামনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বার্তা তুলে ধরবেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়(Abhishek Banerjee)।লোকসভা ও রাজ্যসভার সমস্ত সাংসদ উপস্থিত থাকবেন ওই সভায়।

সূত্রের খবর, ২২ জুলাই তৃণমূলের রাজ্যসভার মুখ্য সচেতক সুখেন্দু শেখর রায়ের(Sukhendu Sekhar Roy) বাড়িতে সাংসদদের নিয়ে বৈঠকে বসবেন অভিষেক Abhishek Banerjee। ৭নং, মহাদেব রোডে ইতিমধ্যেই তাবু খাটানোর কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। অভিষেক সংসদের বাদল অধিবেশনে দলের রণনীতি নিয়ে আলোচনা করবেন এই বৈঠকে।

সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee) শুধু নন, এবার তিনি দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। তাই কার্যত জাতীয় রাজনীতিতে নিজের জায়গা আরও পাকা করে নিচ্ছেন অভিষেক। সংসদের বাদল অধিবেশন শুরু হয়েছে। যা প্রথম দুদিন ভেস্তে গিয়েছে বিরোধীদের নানা দাবির চাপে। মোদি সরকারকে আরও কোণঠাসা করতে এবার আসরে নামছেন অভিষেক।

মোদি বিরোধিতায় তৃণমূলের নয়া নীতি- 'অল আউট অ্যাটাক'। সূত্রের খবর, এই নীতিকে সামনে রেখে মোদি সরকার যে বিলগুলো আনতে চলেছে, বয়সের বৈঠকে তা নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণ করবেন অভিষেক। পাশাপাশি পেট্রোল ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি, করোনা মোকাবেলায় সরকারের ব্যর্থতা এবং টিকা বন্টনে একচোখা নীতির ঘোরতর বিরোধিতায় তৃণমূল কংগ্রেস ঝাঁপিয়ে পড়তে চলেছে। তার দিশা নির্দেশ নির্দিষ্ট করবেন অভিষেক।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সুখেন্দুশেখরের বাড়িতে আসতে বলা হয়েছে দলের সাংসদদের। আয়োজন করা হয়েছে মধ্যাহ্নভোজের। অভিষেক নিজে সংসদ অধিবেশনে যোগ দেবেন। তার আগে দলের সাংসদদের নিয়ে রণনীতি তৈরি করে বেশ কিছু নির্দেশ দিতে চাইছেন তিনি।

শহীদ দিবসের অনুষ্ঠানের পরে একুশে জুলাই রাতে দিল্লি পৌঁছচ্ছেন অভিষেক। ২৬শে জুলাই দিল্লি পৌঁছবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দেখা করবেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী-সহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে। ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই দিল্লি সফর বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

Published by:Sanjukta Sarkar
First published: