• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • JEE-NEET: ছাত্র-ছাত্রীরাই পরীক্ষা দিতে ইচ্ছুক, ডাউনলোড হয়েছে প্রায় সব অ্যাডমিট কার্ডই, দাবি কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রীর

JEE-NEET: ছাত্র-ছাত্রীরাই পরীক্ষা দিতে ইচ্ছুক, ডাউনলোড হয়েছে প্রায় সব অ্যাডমিট কার্ডই, দাবি কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রীর

File Photo

File Photo

নির্দিষ্ট সূচি মেনেই NEET ও JEE পরীক্ষার পক্ষে অধিকাংশ পড়ুয়া ৷ দাবি কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী রমেশ পোখরিয়ালের ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে JEE-NEET পরীক্ষার দিন ঘোষণা করেছে কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রক বলছে,পড়ুয়ারা চাইছে বলেই পরীক্ষা হচ্ছে। পরীক্ষা পিছোতে এককাট্টা বিরোধী মুখ্যমন্ত্রীরা। সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করতে পারেন তাঁরা। কেন্দ্র বলছে, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ, পরীক্ষা তো নিতেই হবে। তাছাড়া পরীক্ষার্থীরাও পরীক্ষা দেওয়ার জন্য দরবার করছেন। ৮৫ শতাংশ পরীক্ষার্থী অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড করেছেন। বিরোধী মুখ্যমন্ত্রীরা কিন্তু বলছেন, সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে পরীক্ষা নেওয়াটা ঝুঁকি হয়ে যাচ্ছে।

    কেন্দ্র সাড়া দেবে না, মোটামুটি নিশ্চিত বিরোধী রাজ্যগুলি। সময়ও কম। তাই তড়িঘড়ি সুপ্রিম কোর্টেই আবেদন জানাতে চাইছেন বিরোধী রাজ্যগুলির মুখ্যমন্ত্রীরা। বিরোধীদের অঙ্কটা স্পষ্ট। শেষ পর্যন্ত JEE- NEET পিছোক বা না পিছোক, রাজনৈতিক লাভটা ঝুলিতে ঢুকবে। সেই হিসেব কষেই এগোতে চাইছেন সনিয়া-মমতারা। কিন্তু মুশকিল হল, পরীক্ষা দিতে মুখিয়ে রয়েছেন ছাত্রছাত্রীরা।

    কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল বৃহস্পতিবার সংবাদসংস্থা এএনআই-কে জানান, ‘‘গত ২৪ ঘণ্টায় JEE-র ৮.৫৮ লক্ষ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৭.৫ লক্ষ পরীক্ষার্থীই তাঁদের অ্যাডমিট কার্ড ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে নিয়েছেন ৷ পাশাপাশি NEET-এর ১৫.৯৭ লক্ষ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১০ লক্ষের বেশি পরীক্ষার্থী ইতিমধ্যেই তাঁদের অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড করেছেন ৷ এর থেকেই বোঝা যাচ্ছে যে পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিতে চান ৷ এর পাশাপাশি জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষার জন্য এবছর সেন্টার সংখ্যা ৫৭০-এর বদলে বাড়িয়ে ৬৬০টি করা হয়েছে ৷ অন্যদিকে NEET-এর জন্য ৩৮৪২টি সেন্টার রয়েছে ৷ এবং পরীক্ষার্থীদের তাঁদের পরীক্ষার কেন্দ্র জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ৷ ’’

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: