Home /News /national /

২০ মাসের শিশু নিজে মরেও বাঁচিয়ে দিয়ে গেল ৫ জন মৃত্যুপথযাত্রী শিশুকে!

২০ মাসের শিশু নিজে মরেও বাঁচিয়ে দিয়ে গেল ৫ জন মৃত্যুপথযাত্রী শিশুকে!

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

নিজের মেয়েকে হারিয়েও অন্য পাঁচ শিশুকে জীবন ফিরিয়ে দিতে পেরে চোখে জল নিয়েও স্বস্তির হাসি হাসছেন ধনিষ্ঠার বাবা-মা ।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: দেশের সর্বকনিষ্ঠ অঙ্গদাতা হল ছোট্ট ফুটফুটে ওই মেয়েটা । যে নিজে চলে গিয়েও বাঁচিয়ে দিয়ে গেল তারই মতো আর পাঁচ শিশুকে । এ বার থেকে সেই পাঁচ শিশুর মধ্যে দিয়ে বেঁচে থাকবে সে । নিজের মেয়েকে হারিয়েও অন্য পাঁচ শিশুকে জীবন ফিরিয়ে দিতে পেরে চোখে জল নিয়েও স্বস্তির হাসি হাসছেন ধনিষ্ঠার বাবা-মা ।

    ২০ মাসের ধনিষ্ঠা দিল্লির রোহিনী এলাকার বাসিন্দা । ৮ জানুয়ারি নিজের বাড়ির একতলার ব্যালকনি থেকে নীচে পড়ে যায় সে । সঙ্গে সঙ্গে তাকে নিয়ে আসা হয় দিল্লির শ্রী গঙ্গারাম হাসপাতালে । কিন্তু চিকিৎসকদের হাজার চেষ্টা সত্ত্বেও ১১ জানুয়ারি তার ব্রেন ডেইথ ঘোষণা করা হয় । যদিও তারপরেও ধনিষ্ঠার চিকিৎসা চালিয়ে যাচ্ছিলেন তার বাবা-মা ।

    এরই মধ্যে তাঁদের সঙ্গে পরিচয় হয় অসহায় ওই শিশুদের বাবা-মায়ের । চোখের সামনে তাঁরা দেখেন, অঙ্গপ্রতিস্থাপন হচ্ছে না বলে কত বাবা-মা চোখের জল ফেলছেন । তখনই তাঁরা স্থির করেন, তাঁদের মেয়েকে কবর দিয়ে বা পুড়িয়ে না ফেলে তার অঙ্গ দান করবেন তাঁরা । এ বিষয়ে শ্রী গঙ্গারাম হাসপাতালের চেয়ারম্যান ডঃ ডিএস রানার সঙ্গে কথা বলেন ধনিষ্ঠার বাবা আশীষ কুমার । তিনি জানান, মেয়ের অঙ্গদান করতে চান তিনি । আশীষবাবুর এ কথা শুনে সকলেই একবাক্যে রাজি হন । তিনি বলেন, ‘‘প্রতি মিলিয়নে ০.২৬ শতাংশ অঙ্গদান হয় । প্রতি বছর ৫ লাখ মানুষ মারা যান অঙ্গ না পেয়ে ।’’

    মস্তিষ্ক ছাড়া ধনিষ্ঠার অন্য অঙ্গগুলি দারুণভাবে কাজ করছে । তাঁর হৃদপিণ্ড, লিভার, দু’টি কিডনি, কর্নিয়া দান করা হয়েছে । কিনডি দেওয়া হয়েছে একজন প্রাপ্তবয়ষ্ককে ।

    Published by:Simli Raha
    First published:

    Tags: New Delhi, Organ Donation

    পরবর্তী খবর