হোম /খবর /মালদহ /
জেলা প্রশাসনিক ভবনের সামনে চালু হল স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলা পরিচালিত ক্যান্টিন

Malda News: জেলা প্রশাসনিক ভবনের সামনে চালু হল স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলা পরিচালিত ক্যান্টিন

X
title=

জেলা প্রশাসনিক ভবনের সামনে চালু হল সরকারি ক্যান্টিন। স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলাদের দ্বারা পরিচালিত হবে এই সরকারী ক্যান্টিন। টিফিন থেকে দুপুরে খাবার সমস্ত কিছুই পাওয়া যাবে এখানে। এতদিন জেলা প্রশাসনিক ভবন চত্বরে কোন খাবারে দোকান ছিলনা।

আরও পড়ুন...
  • Hyperlocal
  • Last Updated :
  • Share this:

#মালদহ : জেলা প্রশাসনিক ভবনের সামনে চালু হল সরকারি ক্যান্টিন। স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলাদের দ্বারা পরিচালিত হবে এই সরকারী ক্যান্টিন। টিফিন থেকে দুপুরে খাবার সমস্ত কিছুই পাওয়া যাবে এখানে। এতদিন জেলা প্রশাসনিক ভবন চত্বরে কোন খাবারে দোকান ছিল না। প্রশাসনের উদ্যোগে এই খাবারের দোকান চালু করায় অনেকটাই সুবিধা হবে জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আশা সাধারণ মানুষের। বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসনিক ভবন চত্বরে নবনির্মিত এই ক্যান্টিনের শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আছেন রাজ্যের মন্ত্রী শশী পাঁজা। এ দিল ফিতে কেটে কেটে ক্যান্টিনের উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনের পর স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলাদের হাতের রান্না খেয়ে দেখেন।ক্যান্টিনে বসে খাবার খান রাজ্যের দুই মন্ত্রী শশী পাঁজা এবং সাবিনা ইয়াসমিন। তাঁদের সঙ্গে একইভাবে সেই খাবারের স্বাদ চেখে দেখলেন জেলাশাসক নীতিন সিংহানিয়া, পুলিশ সুপার প্রদীপ কুমার যাদব। মহিলা স্বনির্ভর গোষ্ঠীদের আরও বেশি ভাবে নির্ভরশীল করতেই একাধিক পরিকল্পনা নিয়েছে রাজ্য সরকার । যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য রয়েছে বিভিন্ন ধরনের আহার কেন্দ্র। বৃহস্পতিবার বিকালে জেলাশাসকের দফতরের পাশেই রাজ্য সরকারের উদ্যোগে চালু হলো "সেঁজুতি" আহার কেন্দ্র।

আরও পড়ুনঃ মাধ্যমিক স্তরে সরকারি ইংরেজি মাধ্যম ছেলেদের স্কুল নেই মালদহে, বিপাকে পড়ুয়ারা

রাজ্যের স্বনির্ভর গোষ্ঠী ও স্বর্ণযুক্তি দফতরের আর্থিক সহযোগিতায় এই আহার কেন্দ্রটি শুভ সূচনা করেন রাজ্যের নারী ও শিশু উন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্রী শশী পাঁজা। ১৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ে এই আহার কেন্দ্রটি চালু করা হলো। যেখানে মহিলা স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যরা বিভিন্ন ধরনের খাওয়ার সামান্য অর্থের বিনিময়ে পরিবেশন করবেন। এদিন এই আহার কেন্দ্র চালুর পর মিষ্টি, পিঠে, পায়েস চেখে দেখেন মন্ত্রীসহ জেলা প্রশাসনের পদস্থ কর্তারা। এদিন মন্ত্রী শশী পাঁজা বলেন, জেলাশাসকের দপ্তরের প্রতিদিনই বহু মানুষ বিভিন্ন কাজে আসেন।

আরও পড়ুনঃ আগ্নেয়াস্ত্র বিক্রি করতে এসে পুলিশের জালে এক পাচারকারী

সেইসব মানুষদের স্বল্প খরচে এই ক্যান্টিন থেকেই খাবার মিলবে। স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা সেই খাবার তৈরি করবেন। মালদহ জেলাতে ইতিমধ্যে এরকম পাঁচটি আহার কেন্দ্র অথবা ক্যান্টিন চালু হয়েছে । যা সম্পূর্ণভাবে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা চালাচ্ছেন। আগামীতে আরও দুটো এই ধরনের আহার কেন্দ্র চালু করার উদ্যোগ নেওয়া হবে। এর ফলে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলাদের আর্থিক স্বাবলম্বী হওয়ার ক্ষেত্রে কোন বাধা থাকবে না। জেলা প্রশাসনের নির্দিষ্ট দফতর থেকে এই ক্যান্টিন চালানোর ক্ষেত্রেও সবরকম ভাবে সহযোগিতা করা হবে।

Harashit Singha

Published by:Soumabrata Ghosh
First published:

Tags: Malda, North Bengal