• Home
  • »
  • News
  • »
  • local-18
  • »
  • June Malia| Midnapore: মেদিনীপুরের বিধায়ক জুন মালিয়ার নির্দেশে দ্বারিবাঁধ খাল সংস্কারে পৌরসভা

June Malia| Midnapore: মেদিনীপুরের বিধায়ক জুন মালিয়ার নির্দেশে দ্বারিবাঁধ খাল সংস্কারে পৌরসভা

photo source local 18

photo source local 18

June Malia| Midnapore:মেদিনীপুরের (Midnapore)বিধায়ক জুন মালিয়ার (June Malia) নির্দেশে শহরের দ্বারিবাঁধ খাল সংস্কারের কাজ জোর কদমে শুরু করলো মেদিনীপুর পৌরসভা

  • Share this:

    #মেদিনীপুর: মেদিনীপুরের (Midnapore)বিধায়ক জুন মালিয়ার (June Malia) নির্দেশে শহরের দ্বারিবাঁধ খাল সংস্কারের কাজ জোর কদমে শুরু করলো মেদিনীপুর পৌরসভা। দায়িত্ব নেওয়ার পরই চেয়ারপারসন সৌমেন খানের নেতৃত্বে এই খাল সংস্কারের কাজ শুরু হয়েছে। সৌমেন খান জানিয়েছেন, "বিধায়িকা জুন মালিয়া(June Malia) নির্দেশ দিয়েছিলেন মেদিনীপুর বাসীকে জলমগ্ন হওয়া থেকে রক্ষা করতে বা শহরের দূষণ রোধ করতে দ্বারিবাঁধ খাল দ্রুত সংস্কার করা হোক। তাঁর নির্দেশ মেনে গত চারদিন ধরে দ্বারিবাঁধ খাল সংস্কারের কাজ চলছে পুরোদমে।" এছাড়াও, বিকল্প আরেকটি খাল তৈরির বিষয়েও উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সৌমেন বাবু।

    প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সেই ব্রিটিশ আমল থেকে ঐতিহ্যমন্ডিত মেদিনীপুর শহরের একমাত্র নিকাশি নালা হল- দ্বারিবাঁধ খাল (Dwaribandh canal) । এই প্রধান নালা বা খালের মাধ্যমেই মেদিনীপুর শহরের জমা জল বা আবর্জনা যুক্ত জল শহরের বাইরে বের করে দেওয়া হয়। কিন্তু, সুপ্রাচীন এই নালা ক্রমশ মজে যাচ্ছে এবং সঙ্কীর্ণ হয়ে যাচ্ছে। এদিকে, আয়তন দৈর্ঘ্যৈ ও প্রস্থেও বেড়ে চলেছে। হু হু করে বাড়ছে শহরবাসীর সংখ্যা। তাই, অবিলম্বে দ্বিতীয় একটি খাল নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মেদিনীপুর পৌরসভার দায়িত্বপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন সৌমেন খান। তিনি জানিয়েছেন, "ইয়াসের পর দ্বারিবাঁধ খালে বড় বড় গাছ পড়ে এই খালের অবস্থা আরও খারাপ হয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় জমা হয়ে যাচ্ছে জল। তাই, এই খাল সংস্কারের সাথে সাথে দ্বিতীয় একটি খাল নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে, আমাদের বিধায়ক জুন মালিয়ার (June Malia) পরিকল্পনা মেনে।" এর ফলে, শহরের একপ্রান্তে অবস্থিত গিরিধারি চক, রামকৃষ্ণ নগর, বিবেকানন্দ পল্লী প্রভৃতি এলাকা বাসিন্দারা উপকৃত হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

     Partha Mukherjee

    Published by:Piya Banerjee
    First published: