হোম /খবর /পশ্চিম বর্ধমান /
অতিমারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এবার ময়দানে পড়ুয়ারাও

অতিমারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এবার ময়দানে পড়ুয়ারাও

করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে পড়ুয়াদের সক্রিয়ভাবে সামনের সারিতে এগিয়ে আসায় শুভ লক্ষণ দেখছেন সবাই।

  • Share this:

#পশ্চিমবর্ধমান: করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এবার এগিয়ে এলো  পড়ুয়ারাও। কমিউনিটি কিচেন হোক বা অসহায়ের বাড়িতে গিয়ে সটান হাজির হওয়া, অতিমারির সঙ্গে লড়াইয়ে নেতৃত্ব দিতে এবার এগিয়ে এলো স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরাও।

করোনাকালে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন অনেকেই। সাধারণ মানুষের কথা ভেবে হাত বাড়িয়েছে রাজনৈতিক দল থেকে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। তবে রাজ্যের এই কঠিন সময়ে পড়ুয়াদের লড়াইকে কুর্নিশ জানাচ্ছেন আট থেকে আশি সকলেই।

করোনা ভাইরাসের জেরে বেশিরভাগ পড়ুয়া সময় কাটিয়েছে ভার্চুয়াল ক্লাসে। পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়েছে সবাই। যদিও কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারের পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্তে কিছুটা হলেও ভেঙে পড়েছে অনেক ছাত্রছাত্রী। তবে পরীক্ষার প্রস্তুতি এবং এসবের মাঝেও দুঃস্থ মানুষদের সাহায্য করতে নেমে পড়েছে একদল পড়ুয়া। একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণীর একদল ছাত্র পশ্চিম বর্ধমানের রুপনারায়নপুরে দুঃস্থ মানুষদের সাহায্য করে চলেছে লাগাতার। কোনও ছাত্র দুস্থ মানুষের বাড়িতে হাজির হচ্ছেন শুকনো খাদ্যসামগ্রী নিয়ে। কেউ আবার পৌঁছে যাচ্ছে প্রয়োজনীয় জিনিস নিয়ে কোন অসহায় মানুষের বাড়িতে।

সমাজতত্ত্ববিদরা বলছেন, সমাজ গঠনে ছাত্র ছাত্রীদের ভূমিকা অপরিসীম। একজন ভালো মানুষ হওয়া অথবা মানুষের পাশে দাঁড়ানো, এই সমস্ত কিছুর বীজ বপন করতে হয় ছাত্রজীবনে। অতিমারির মতো কঠিন সময়ে সেই কাজটাই করে দেখিয়েছে রুপনারায়নপুরের একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণীর পড়ুয়াদের দলটি।

চলতি সপ্তাহে তারা জানতে পারে, ৭০ বছরের এক বৃদ্ধ অসহায় অবস্থার মধ্যে রয়েছেন। বর্তমানে তার কাজ বন্ধ। তার প্রতিবন্ধী ছেলে ভিক্ষা করে সংসার চালান। কিন্তু এখন সেটাও হচ্ছে না। তাই ওই বৃদ্ধের বাড়িতে, চাল-ডাল-আলু সমেত বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়ে আসে ওই পড়ুয়াদের দল।

অন্যদিকে, দুর্গাপুরের মাইকেল মধুসূদন কলেজের পড়ুয়াদের উদ্যোগে শুরু হয়েছে কমিউনিটি কিচেন। তৃণমূল ছাত্র পরিষদের পড়ুয়ারা উদ্যোগ নিয়ে এই কমিউনিটি কিচেন শুরু করেছেন। সেখানে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। গতবছরের লকডাউনে মাইকেল মধুসূদন কলেজের পড়ুয়ারা কমিউনিটি কিচেনের মাধ্যমে অসহায় বহু মানুষের মুখে অন্ন তুলে দিয়েছিল। চলতি বছরের কার্যত লকডাউনেও একই উদ্যোগ তারা নিয়েছে। মাইকেল মধুসূদন কলেজ সংলগ্ন কমিউনিটি কিচেন থেকে প্রতিদিন গড়ে দেড়শ থেকে দুইশ মানুষের খাবার জোগান দেওয়া হচ্ছে।

করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে পড়ুয়াদের সক্রিয়ভাবে সামনের সারিতে এগিয়ে আসায় শুভ লক্ষণ দেখছেন সবাই। অনেকেই বলছেন, এই অতিমারির সময়, মানুষকে মানুষের পাশে দাঁড়াতে শিখিয়েছে। ছাত্রদের এই উদ্যোগ যথেষ্ট গুনগানের দাবি রাখে। পড়ুয়াদের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন শিক্ষক থেকে সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তি এবং রাজনৈতিক মহলের হেভিওয়েটরা।

নয়ন ঘোষ

Published by:Piya Banerjee
First published:

Tags: Community kitchen, Corona, Durgapur, Lockdown, Students