• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • local-18
  • »
  • TEACHER NARSINGH DAS PAID HOMAGE TO BUDDHADEV DASGUPTA BY PAINTING WITH BLACK CUMIN

কালো জিরে দিয়ে ছবি এঁকে পরিচালক প্রয়াত বুদ্ধদেব দাশগুপ্তকে শ্রদ্ধা জানালেন শিক্ষক নরসিংহ দাস

কালো জিরা দিয়ে ছবি এঁকে বাঙালি চলচ্চিত্র পরিচালক প্রয়াত \"বুদ্ধদেব দাশগুপ্তকে\" শ্রদ্ধা জানালেন শিক্ষক নরসিংহ দাস।

কালো জিরা দিয়ে ছবি এঁকে বাঙালি চলচ্চিত্র পরিচালক প্রয়াত \"বুদ্ধদেব দাশগুপ্তকে\" শ্রদ্ধা জানালেন শিক্ষক নরসিংহ দাস।

  • Share this:

    কালো জিরা দিয়ে ছবি এঁকে বাঙালি চলচ্চিত্র পরিচালক প্রয়াত \"বুদ্ধদেব দাশগুপ্তকে\" শ্রদ্ধা জানালেন শিক্ষক নরসিংহ দাস।

    মেদিনীপুর শহরের বাসিন্দা শিল্পী শিক্ষক নরসিংহ দাস বরাবরের মতোই নিজস্ব ঘরনায় কালোজিরা দিয়ে প্রতিকৃতি এঁকে শ্রদ্ধা জানালেন প্রয়াত বুদ্ধদেব দাশগুপ্তকে। বৃহস্পতিবার ভোরে প্রয়াত হয়েছেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বাঙালি চলচ্চিত্র পরিচালক বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত। বেশ কিছু দিন ধরেই কিডনির অসুখে ভুগছিলেন তিনি। ডায়ালিসিস‌ও চলছিল। মৃত্যু কালে বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। তাঁর বিখ্যাত কয়েকটি চলচ্চিত্র হল- \'তাহাদের কথা\', \'দূরত্ব\', \'গৃহযুদ্ধ\', \'চরাচর\'। তাঁর এই প্রয়াণে চলচ্চিত্র জগতে শোকের ছায়া নেমে আসে। মুখ্যমন্ত্রী থেকে শুরু করে টলিউডের অভিনেতা অভিনেত্রীরা তাঁকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। একটু অন্যভাবে নিজস্ব ঘরানায় বিখ্যাত পরিচালকের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন‌ করলেন শিক্ষক শিল্পী নরসিংহ দাস। নরসিংহ বাবু পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা সদর মেদিনীপুর শহরের রবীন্দ্রনগরের বাসিন্দা তথা এলাহিয়া হাই মাদ্রাসা (উঃ মাঃ)-র ভূগোল বিষয়ক শিক্ষক। নরসিংহ বাবু কালোজিরে দিয়ে বুদ্ধবাবুর একটি প্রতিকৃতি এঁকেছেন। কোনরকম আঠার ব্যবহার না করেই সোফা এর কভারের উপর কালোজিরে দিয়ে তিনি এই প্রতিকৃতিটি সৃষ্টি করেছেন। সেই ছবি তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। তাঁর সেই পোস্টে অনুরাগীরা পরিচালককে শ্রদ্ধা জানানোর পাশাপাশি শিল্পী নরসিংহ বাবুকে কুর্নিশ জানিয়েছেন। নরসিংহ বাবু বরাবরই এইরকম। এর আগেও তিনি কাগজে ছবি আঁকার পাশাপাশি তিনি কখনো শাকসব্জি, লতা-পাতা, দেশলাই কাঠি, মুসুর ডাল দিয়ে এই ধরনের শিল্প সৃষ্টি করে থাকেন। এর আগেও তিনি সাহিত্যিক শঙ্খ ঘোষ সহ অন্যান্য অনেক মহান ব্যাক্তিত্বদের প্রয়াণে এভাবেই প্রতিকৃতি এঁকে শ্রদ্ধা জানানোর পাশাপাশি সাধারন মানুষের কাছে বাহবা কুড়িয়েছেন।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published: