Home /News /local-18 /
traditional durga puja 2021:  তাম্রলিপ্ত রাজ পরিবারের পুজো এখনও হয় বহিচবেড়ার রাজ গড়ে

traditional durga puja 2021:  তাম্রলিপ্ত রাজ পরিবারের পুজো এখনও হয় বহিচবেড়ার রাজ গড়ে

traditional durga puja 2021: দেবী বর্গভীমা তমলুকের অধিষ্ঠাত্রী দেবী। এক সময় দেবী বর্গভীমা পুজো ছাড়া তমলুকে অন্য দেবীর পুজো হত না।

  • Share this:

    #তমলুক:    মেদিনীপুর অধুনা পূর্ব মেদিনীপুরের(purba midnapore) সবচেয়ে প্রাচীন নগরী তাম্রলিপ্ত বা তমলুক(Tamluk)। তমলুক শহরের পুরনো ইট পাজরে আজও শোনা যায় মহাভারত থেকে এ ভারতের কাহিনী। দেবী বর্গভীমা তমলুকের অধিষ্ঠাত্রী দেবী। এক সময় দেবী বর্গভীমা পুজো ছাড়া তমলুকে অন্য দেবীর পুজো (Durga puja 2021) হত না।

    এমনকি দেবী দুর্গার আরাধনা হতো না এই তাম্রলিপ্ত নগর বা তমলুক শহরের। তাম্রলিপ্ত রাজবাড়ির পুজো হত তাম্রলিপ্ত রাজার(Durga puja 2021) গড় বহিচবেড়িয়ায়। কথিত আছে তাম্রলিপ্ত নগরীর রাজা রাজ পরিবার ও সপারিষদ দুর্গা ষষ্ঠীর দিন এই রাজ গড়ে এসে পৌঁছাতেন। তারপর শুরু হতো পুজো। একাদশীর দিন আবার ঘর থেকে ফিরে যেতেন তমলুক বা  নগরের রাজবাড়ীতে। সেই পুজো এখনও হয়ে আসছে প্রাচীন রীতিনীতি অনুসারে।

    বর্তমানে তমলুক মহাকুমার নন্দকুমার থানার অন্তর্গত এই বহিচবেড়িয়া। বহিচবেড়িয়া গ্রামে এখনো তাম্রলিপ্ত রাজ(Durga puja 2021) পরিবারের পুজো হয়। সময়ের কাল দন্ডি বেয়ে এই পুজো হারিয়েছে জৌলুস। কিন্তু এখনও প্রাচীন রীতিনীতি বর্তমান। প্রাচীন রীতি অনুসারে পঞ্চ ঘটে দেবী দুর্গার আরাধনা হয়। পঞ্চ ঘটে দুর্গাপুজো আর কোথাও হয় না।

    বহিচবেড়িয়া রাজগড়ের ইতিহাস ঘাটলে উঠে আসে নানান চমকপ্রদ তথ্য। একসময় শুধু তাম্রলিপ্ত রাজার সৈন্য-সামন্ত হাতি ঘোড়া থাকতো (Durga puja 2021)এই গড়ে। এই রাজ গড়ে আনুমানিক বয়স কত তা আজও নির্ণয় করা যায়নি। অনেক পরে তাম্রলিপ্ত রাজপরিবারের সদস্য এখানে বসবাস শুরু করে। সেই থেকে এখানে রাজপরিবারের বাস।

    তাম্রলিপ্ত রাজার গড় বহিচবেড়িয়াতে রাজপরিবারের পুরনো প্রথা অনুযায়ী দেবী দুর্গা পূজিত হয়।  পঞ্চঘটে মায়ের আরাধনা হয় এখানে। মায়ের আরাধনার প্রথম ঘট স্থাপিত প্রায় এক মাস আগে চপেটি ষষ্ঠী বা লুন্ঠন ষষ্ঠীর দিন। দ্বিতীয় ঘট স্থাপিত হয় দুর্গা ষষ্ঠীর এক সপ্তাহ আগে কৃষ্ণা নবমীর দিন। বাকি তিনটি ঘটের মধ্যে দুটি স্থাপিত(Durga puja 2021) হয় ষষ্ঠী অধিবাসের দিন। এবং বাকি ঘটটি স্থাপিত হয় মহা সপ্তমীতে।

    প্রাচীন তাম্রলিপ্ত বা তমলুক পরগনার এই পুজোর বয়স কত তা নির্ণয় করা যায়নি। এই গড় রাজবাড়ির(Durga puja 2021) প্রবীণ সদস্য শোভন নারায়ন রায় জানান, বহু প্রাচীন এই পুজো। রাজবাড়ীর এই পুজো ঘিরে সেই সময়কার মানুষের উন্মাদনা ছিল চোখে পড়ার মতো। ষষ্ঠীর দিন কামান দাগা হতো। সেই তোপ ধ্বনির আওয়াজ শুনে তমলুকের অন্যান্য বনেদী বাড়ির দেবী পূজার ঘট স্থাপন শুরু হত।"

    এক মাস আগে থেকে ঘট স্থাপিত হলেও, মূল পূজা শুরু হতো ষষ্ঠীর দিন থেকেই। ঐদিন দেবী প্রতিমার চক্ষুদান(Durga puja 2021) করা হতো। নিয়ম মেনে এখনো ষষ্ঠীর দিন দেবীর চক্ষুদান করা হয়। ষষ্ঠীর দিনে ঘট স্থাপনের সময় কামান দাগা বন্ধ হয় প্রায় দেড়শো বছর আগে। একবার ষষ্ঠীর দিনে কামান দাগার জন্য কামানে গোলা বারুদ ভরার সময় ভুল হয়। ফলে অগ্নি সংযোগ করার সঙ্গে সঙ্গে কামান ফেটে মারা যায় সিপাহীরা। সেই থেকে বন্ধ হয় কামান দাগা। তাম্রলিপ্ত রাজার এই রাজ গড়ে অনেক কামান ছিল। কিন্তু একটা সময় পর ব্রিটিশ এরা সেগুলি মেদিনীপুরে নিয়ে চলে যায়।

    তাম্রলিপ্ত রাজার গড়ের দুর্গাপুজো(Durga puja 2021) তাম্রলিপ্ত বা তমলুক পরগনা সবচেয়ে প্রাচীন পুজো। প্রায় ছয়শো বছরের বেশি সময় ধরে চলে আসছে। পুজো ঘিরে চারদিন চলতো মহোৎসব। মায়ের ভোগের প্রসাদ বিতরণ। কালের নিয়মে মায়ের ভোগের প্রসাদ বিতরণ বন্ধ হয়েছে। শোভন নারায়ন রায় জানান, একসময় পুজোয় মায়ের ভোগ রান্না হতো মণ মণ চালের। ষষ্ঠীতে রান্না করা হতো ছয় মণ চালের অন্নভোগ সঙ্গে বহু পদ ব্যঞ্জন।

    সপ্তমীতে (Durga puja 2021)সাত মণ চালের অন্নভোগ সঙ্গে বহু পদ ব্যঞ্জন। অষ্টমীতে আট মণ চালের। নবমীতে নয় মণ চালের এবং দশমীতে দশ মণ চালের অন্নভোগ সঙ্গে বহু পদ ব্যঞ্জন রান্না করা হত। সঙ্গে ছিল ফল ও মিষ্টান্নের নৈবেদ্য।  কমতে কমতে বর্তমানে পুজোর চারদিন পাঁচ সের অর্থাৎ পাঁচ কেজি চালের অন্নভোগ প্রতিদিন রান্না হয়। নিয়ম মেনে সন্ধিপুজো হয়। এই প্রাচীন রাজবাড়ির পুজোতে কখনোই পশু বলি বা কুমড়ো আঁখ বলি কোনোটাই হয় না।

    প্রাচীন এই পুজোর (Durga puja 2021)জৌলুস কমেছে। ভাটা পড়েছে উন্মাদনায়। পুজো আজ পরিবারের মধ্যেই সীমাবদ্ধ। পুজোর দালানে নেই মানুষের সেই চেনা ভিড়। প্রাচীন ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে প্রতি বছর চলে দেবী দুর্গার আরাধনা। গৌরবের ইতিহাসে জমে যাচ্ছে ধুলো বালি। তবুও প্রতি বছর ঢাকে কাঠি পড়ার অপেক্ষায় থাকে রাজ পরিবারের বর্তমান সদস্যরা।

    সৈকত শী

    Published by:Piya Banerjee
    First published:

    Tags: Durga Puja 2021, Tamluk, Tamralipta, Traditional Durga Puja 2021

    পরবর্তী খবর