হোম /খবর /পূর্ব মেদিনীপুর /
দিঘায় মৎস্যদপ্তরের আধিকারিক সংগঠনের দু’দিনের সম্মেলন!

Bangla news: দিঘায় মৎস্যদপ্তরের আধিকারিক সংগঠনের দু’দিনের সম্মেলন! মৎস্য ক্ষেত্রে উন্নয়ন ও পুনর্গঠনে জোর

দিঘায় মৎস্য দপ্তরের সম্মেলন।

দিঘায় মৎস্য দপ্তরের সম্মেলন।

Bangla news: মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র বলেন, 'মৎস্যক্ষেত্রে বন্দোপাধ্যায় পরিচালিত রাজ্য সরকার নানা উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড রূপায়ন করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

  • Share this:

#দিঘা: পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারী কর্মচারী ফেডারেশনের অন্তর্গত স্টেট ফিশারিজ অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশানের ৩০তম দু'দিনের দ্বিবার্ষিক সম্মেলন দীঘায় শুরু হল শুক্র ও শনিবার। শুক্রবার নিউ দিঘার জাহাজবাড়িতে এই সম্মেলনের সূচনা হয়। সম্মেলনের উদ্বোধন করেন মৎস্যমন্ত্রী অখিল গিরি। প্রধান অতিথি ছিলেন সেচ ও জলপথ দপ্তরের মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র। বিশেষ অতিথি ছিলেন খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ ও উদ্যান পালন দপ্তরের মন্ত্রী সুব্রত সাহা।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন পটাশপুরের বিধায়ক উত্তম বারিক, এগরার বিধায়ক তরুন কুমার মাইতি। কোলাঘাটের বিধায়ক বিপ্লব রায় চৌধুরী, রামনগর এক নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শম্পা মহাপাত্র, মৎস্যজীবী নেতা আমিন সোহেল সহ অন্যান্য জনপ্রতিনিধিরা। এছাড়া ফেডারেশানের নেতৃবৃন্দ ও সংশ্লিষ্ট সংগঠনের নেতৃত্বরা উপস্থিত ছিলেন।

এই অনুষ্ঠানে মৎস্যক্ষেত্রে উন্নয়ন ও মৎস্য দপ্তরে পুনর্গঠন শীর্ষক আলোচনা সভায় আগামী দিনে মৎস্য দপ্তরের উন্নয়নের রূপরেখা তুলে ধরা হয়। মৎস্যমন্ত্রী অখিলবাবু বলেন, 'রাজ্য এখনও মৎস্য উৎপাদনে কিছুটা হলেও পিছিয়ে। মাছের আমদানির জন্য আমাদের অন্ধ্রের উপর নির্ভর করতে হয়। মৎস্য উৎপাদনে রাজ্যকে স্বনির্ভর হতে হবে।'

তিনি মৎস্য উৎপাদনে রাজ্যাকে শীর্ষস্থানে নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ প্রদান ও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করার আশ্বাস দেন। এব্যাপারে মৎস্যদপ্তরের আধিকারিকদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র বলেন, 'মৎস্যক্ষেত্রে বন্দোপাধ্যায় পরিচালিত রাজ্য সরকার নানা উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড রূপায়ন করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। মৎস্য সম্পদকে কাজে লাগিয়ে উৎপাদন বৃদ্ধি, কর্মসংস্থানের বিরাট সুযোগ তৈরী হয়েছে। এই ধারাকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।'

সংগঠনের সাধারন সম্পাদক দেবাশিস হালদার জানান, 'মৎস্যদপ্তরের আধিকারিকদের এই বৃহত্তর সংগঠন মৎস্যজীবী, মৎস্যদপ্তর ও সদস্যদের সার্বিক উন্নয়নে সর্বদা কাজ করে যাবে। পাশাপাশি তিনি দাবী করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দ্বারা গঠিত স্পেশাল টাস্কফোর্সের সুপারিশ মেনে রাজ্যের প্রায় ৩৫ লক্ষ মৎস্যজীবীদের স্বার্থে কৃষি ও প্রানী সম্পদ দপ্তরের সমতুল করে মৎস্য দপ্তরের পুনর্গঠনের অতি দ্রুত বাস্তবায়ন দরকার।'

এদিনের সম্মেলনে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের বেশ কয়েকজন প্রগতিশীল মৎস্যজীবীকে সম্মানিত করা হয়। সম্মেলনে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আড়াইশোর বেশি প্রতিনিধি অংশ নিয়েছেন। আজ সম্মেলনের শেষ দিন। এদিন সংগঠনের মুখপত্র 'মৎস্যকাহন'- এর প্রথম সংখ্যার প্রচ্ছদ উদ্বোধন করেন মৎস্য মন্ত্রী অখিল গিরি।

Saikat Shee

Published by:Piya Banerjee
First published:

Tags: Digha, New Digha, Purba medinipur