Home /News /local-18 /
পাখিদের জন্য ফলের বাগান তৈরি করল অরাজনৈতিক প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠন

পাখিদের জন্য ফলের বাগান তৈরি করল অরাজনৈতিক প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠন

পাখিদের জন্য ফলের বাগান তৈরি করল অরাজনৈতিক প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠন।

পাখিদের জন্য ফলের বাগান তৈরি করল অরাজনৈতিক প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠন।

দিঘা বন দপ্তরের ক্যাম্পাসে পাখিদের জন্য ফলের বাগান তৈরি করা হল

  • Share this:

    দিঘা:  পাখিদের জন্য ফলের বাগান তৈরি করল অরাজনৈতিক প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠন \'উস্থি ইউনাইটেড প্রাইমারি টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন।\' সংগঠনের দিঘা চক্রের সদস্যরা বনদপ্তরের সহযোগিতায় বনদপ্তরের ক্যাম্পাসে পাখিদের জন্য তৈরি করল ফলের বাগান। মানুষ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে প্রাকৃতিক দুর্যোগসহ এই করোনা অতিমারির কালে। কিছু মানুষ আছে যারা শুধু মানুষের পাশে নয় পরিবেশে অন্যান্য প্রাণীদের পাশে সমানভাবে থাকার কথা ভেবেছে।

    অরাজনৈতিক প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠন, উস্থি ইউনাইটেড প্রাইমারি টিচার্স অ্যাসােসিয়েশান সেই কাজ করেছে। এই অরাজনৈতিক প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠন রাজ্যে অরণ্য সপ্তাহে সবুজের অভিযান চালিয়েছে। সংগঠনের শাখা হিসাবে পূর্ব মেদিনীপুর জেলাও পিছিয়ে নেই। ১৪ থেকে ২০ জুলাই অরণ্য সপ্তাহে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালনের পাশাপাশি ২৪ জুলাই শনিবার দিঘা বনদপ্তরের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে পাখিদের জন্য ফলের বাগান তৈরী করল। দিঘায় বনদপ্তরের ক্যাম্পাসের সামনে বিভিন্ন ফলের গাছ লাগানাে হয়েছে।

    সংগঠনের সদস্যরা সাধারন মানুষের কাছে এই বার্তা পৌঁছে দিতে চেয়েছেন যে, মানুষের বিপদে মানুষ ছুটে আসে। কিন্তু পাখিদের কথাও মানুষকে ভাবতে হবে। কারন পাখিরা ঘূর্ণিঝড় ইয়াসে বাসা হারিয়েছে। শুধু তাই নয়, দিন দিন কমছে বড় বড় গাছ যার ফলে খাদ্য সংকটে আছে পক্ষীকুল। পাখিদের খাদ্যের অভাব যাতে না হয় তাতে সাধারণ মানুষের এগিয়ে আশা উচিত। তবেই প্রকৃতির ভারসাম্য বজায় থাকবে।

    বন দতরের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে পাখির বাগান গড়ার কাজে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের দীঘা চক্রের সভাপতি তপন সামন্ত, সম্পাদক স্বদেশরঞ্জন বাড়াই, রাজ্য কমিটির সদস্য সবুজ গিরি, গভর্নিং বডির সদস্য রঞ্জিত পণ্ডা। তাঁরা বলেন এই পাখির বাগান দেখাশােনা করার কাজ বন দপ্তরের কর্মীদের সঙ্গে সংগঠনের সদস্যরা  যৌথভাবে করবে।

    দিঘা চক্রের সম্পাদক স্বদেশরঞ্জন বাড়োই বলেন, \"ইয়াস বিপর্যয় উপকূলবর্তী এলাকার অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানাের চেষ্টা করেছে। দীঘা থেকে মায়াচর পর্যন্ত কমিউনিটি কিচেনের ব্যবস্থা করে ইয়াস বিধ্বস্ত সাধারণ মানুষকে রান্না করা খাবার তুলে দেওয়া হয়েছে।  এছাড়া নতুন পোশাক, ওষুধপত্র প্রভৃতি যা মানুষের নিত্য প্রয়ােজনীয় তাও পৌঁছে দেওয়া হয়।  সেই সঙ্গে এবছর অরণ্য সপ্তাহে প্রতিটা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ফলের গাছ ও বিভিন্ন ধরনের গাছের চারা তুলে দেওয়া হয়েছে। মানুষের পাশে এবং পরিবেশ রক্ষার সবসময় অগ্রনী ভুমিকা পালন করে উস্থি ইউনাইটেড প্রাইমারি টিচার অ্যাসোসিয়েশন। তাই এবার পাখিদের কথা ভেবে ফলকর গাছের বাগান তৈরি করা হল।\"

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Digha, Forest Department, Purba medinipur, Yaas

    পরবর্তী খবর