• Home
  • »
  • News
  • »
  • local-18
  • »
  • DOLA SEN AT THE HOUSE OF A DEAD TMC PARTY WORKER IN GARGAJPOTA KESHPUR SDG

মমতার সঙ্গে আন্দোলনের সময় প্রাণ হারিয়েছিলেন, সম্মান জানাতে মৃত তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে দোলা সেন

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আন্দোলনের সময় কেশপুরের গরগজপোতার মৃত তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে দোলা সেন।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আন্দোলনের সময় কেশপুরের গরগজপোতার মৃত তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে দোলা সেন।

  • Share this:

    মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আন্দোলনের সময় কেশপুরের গরগজপোতার মৃত তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে দোলা সেন। ১০ বছর ক্ষমতায় থাকার পরেও শহীদ পরিবার পাকা বাড়ি না পাওয়ায় কেশপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শুভ্রা দে সেনগুপ্তকে শহীদ পরিবারের পাকা বাড়ি তৈরীর অনুরোধ জানিয়ে গেলেন তৃনমূল নেত্রী দোলা সেন।

    ১৯৯৩ সালের ২১ জুলাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আন্দোলন করার সময় মৃত্যু হয়েছিল পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার কেশপুর ব্লকের গরগজপোতা গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল খালেকের। সোমবার সকালে সেই শহীদ পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানাতে হাজির হোন তৃণমূল নেত্রী দোলা সেন সমেত জেলার একাধিক নেতৃত্ব। এদিন পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলার পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটি চিঠি ওই পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়। পাশাপাশি কেশপুরের গরগজপোতার ওই শহীদ পরিবারের পাশে আগামী দিনেও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে থাকবেন, সে প্রতিশ্রুতিও দিয়ে যান তৃণমূল নেত্রী দোলা সেন।

    প্রসঙ্গত, ১০ বছর ক্ষমতায় থাকার পরেও শহীদ পরিবার পাকার বাড়ি না পাওয়ায়, নেত্রী দোলা সেন এদিন কেশপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শুভ্রা দে সেনগুপ্তর কাছে আবেদন করেন, শহীদ পরিবারকে সরকারী প্রকল্পের মাধ্যমে পাকা বাড়ি করে দেওয়ার জন্য। শুভ্রা দে সেনগুপ্ত বলেন, খুব শীঘ্রই করে দেওয়া হবে। এই দিন দোলা সেন সমেত উপস্থিত ছিলেন, কেশপুর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি উত্তমানন্দ ত্রিপাঠী, পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি সুভ্রা দে সেনগুপ্ত, জেলা তৃনমূলের কার্যকরী সভাপতি নির্মল ঘোষ সহ ব্লকের অন্যান্য নেতৃত্ব।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: