Home /News /life-style /
Recycled Interior|| বাড়িতে পুরনো মদের বোতল রয়েছে? অন্দরসজ্জার কাজে এ ভাবে ব্যবহার করে পারেন...

Recycled Interior|| বাড়িতে পুরনো মদের বোতল রয়েছে? অন্দরসজ্জার কাজে এ ভাবে ব্যবহার করে পারেন...

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

Recycled Interior: ওয়াইন বা যে কোনও মদের বোতলকে নতুন রূপে কাজে লাগানোর ১০ টিপস শেয়ার করা হল।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: এখন বাড়ি মানেই বর্গফুট মাপা ফ্ল্যাট। তার প্রতিটি ঘরও মাপমতো। একচিলতে ফাঁক নেই সেখানে। তবু তারই মধ্যে সাজ সরঞ্জাম চাই তো। না হলে গৃহকোণের চেহারা খুলবে কী করে? এখন ফেলে দেওয়া জিনিসকেই একটু অদলবদল করে সুন্দরভাবে সাজানো যায় গৃহকোণ? এখন বহু ইন্টিরিয়র ডিজাইনার তেমনই কাজ করছেন।

এটাকেই বলা হচ্ছে ‘রিসাইকেলড ইন্টিরিয়র’। ফেলে দেওয়া জিনিসকেও সুন্দর করে নতুন মোড়কে মুড়ে নেওয়া যায়। এখানে ওয়াইন বা যে কোনও মদের বোতলকে নতুন রূপে কাজে লাগানোর ১০ টিপস শেয়ার করা হল।

বোতলে লেসের কাজ: বোতলের নিচের অংশটা মুড়ে দিতে হবে সাদা লেসে। বেশি নয়, চার পাঁচ আঙুল। তাতেই কেল্লা ফতে। এতে একটা বনেদি লুক আসবে। এবার সেন্টারপিস হিসেবে তাকে রেখে দেওয়া যায় টেবিলের মাঝখানে।

গ্লিটার: প্রথমে বোতলকে মনের মতো রঙে রাঙিয়ে নিতে হবে। তারপর মুড়ে ফেলতে হবে মানানসই রঙের গ্লিটার দিয়ে। কোনও পার্টির দিনে ঘর সাজানোর এমন উপকরণ অতিথির চোখ টানতে বাধ্য।

আরও পড়ুন: অন্তত ১০ বছর আয়ু বাড়াতে চান? জীবনযাত্রায় আনুন 'এই' পরিবর্তন...

পাখিদের খাবার: বসন্ত জাগ্রত দ্বারে। পাখির কুজনে ভরে গিয়েছে চারদিক। তাদের খাবার রাখার জন্য ব্যবহার করা যায় মদের বোতল। ছোট কাঠের বাক্সে রেখে বোতলে পাখিদের খাবার ভরে সেটাকে উল্টে টাঙিয়ে দিলেই হবে।

রাঙিয়ে দিয়ে যাও: তিন ধরনের রঙে রাঙাতে হবে বোতলকে। মুখে একটা রঙ, মাঝখানে আরেক আর নিচের দিকে অন্য আরেকটা রঙ। অন্দরসজ্জার চেহারাই বদলে দেবে এমন বোতল।

টুইঙ্কল লাইটস: এতে খাটুনি নেই বললেই চলে। বাড়িতে মিনিয়েচার লাইট আছে নিশ্চয়? চার-পাঁচটা বোতলে সেই লাইটগুলি ভরে দিলেই কাজ শেষ। রাতে রঙের খেলায় ভরে উঠবে ঘর।

বাড ভাস: মাত্র দুটো রঙের কামাল। বোতলের নিচের অংশে থাকবে কোনও উজ্জ্বল রঙ। উপরের দিকে অপেক্ষাকৃত হালকা রঙ। ফুলদানি হিসেবে দিব্যি ব্যবহার করা যায়।

আরও পড়ুন: পুরুষদের এই ধরনের স্বভাব আকৃষ্ট করে মহিলাদের, বলছে সমীক্ষা

রামধনু লন্ঠন: প্রথমে বিভিন্ন রঙের বোতল মাঝ বরাবর কেটে নিতে হবে। তারপর ছোট মোমবাতি জ্বালিয়ে তারওপর সেগুলো চিমনির কায়দায় বসিয়ে দিলেই লন্ঠন তৈরি। এভাবে শুধু ঘরের ভিতরে নয়, বাইরেও সাজানো যায়।

জুটের জাল: ঘর সাজানোর এমন শোপিস আর দুটো হবে না। বরফি আকারের পাটের দড়ির জালে মুড়ে দেওয়া যায় বড় ওয়াইনের বোতল। বোতলের উপরের কর্কটাও হবে পাটের দড়ির। এমন শোপিস কিনতে পাওয়া যায়। তবে একটু কষ্ট করে ঘরে বানিয়ে নিলে তা হবে আরও চমকদার।

সহজ সেন্টারপিস: কয়েকটা বোতল, একটু জল আর ডাঁটিওলা ফুল। ব্যস, সেন্টারপিস তৈরি। একরঙের বোতল হলে দেখতে ভালো লাগে। তবে আলাদা রঙ হলেও সমস্যা নেই।

প্যাস্টেল রঙা: বোতলের গায়ে করতে হবে হালকা প্যাস্টেল রঙ। মনে হবে যেন আকাশ নেমে এসেছে ঘরে। গলার কাছে সরু লেসের বাঁধন দিলে দেখতে আরও ভালো লাগবে।

Published by:Shubhagata Dey
First published:

Tags: Home Decor Tips

পরবর্তী খবর