Home /News /life-style /

Pain and Compress : ঠান্ডা না গরম সেঁক? কোন ব্যথায় কাজ দেয় কোন দাওয়াই, রইল তার খোঁজখবর!

Pain and Compress : ঠান্ডা না গরম সেঁক? কোন ব্যথায় কাজ দেয় কোন দাওয়াই, রইল তার খোঁজখবর!

কোন ব্যথায় ঠাণ্ডা সেঁক দিতে হবে আর কোনটায় গরম, সেটা অনেকেই জানেন না

কোন ব্যথায় ঠাণ্ডা সেঁক দিতে হবে আর কোনটায় গরম, সেটা অনেকেই জানেন না

সাধারণত পেশির ব্যথায় গরম সেঁক আর ফুলে যাওয়ায় ঠাণ্ডা সেঁক দিতে হয়।

  • Share this:

ব্যথা হলে ঠান্ডা (Cold Compress) বা গরম সেঁক (Hot Compress) দেওয়ার পদ্ধতি এই দেশে নতুন নয়। ডাক্তাররাও ব্যথা হলে সেঁক দিতে বলেন। একেবারেই নিখরচায় যে কোনও ব্যথা, ফুলে যাওয়া ইত্যাদির যন্ত্রণা কম করা যায় সেঁক দিয়ে। কিন্তু কোন ব্যথায় ঠাণ্ডা সেঁক দিতে হবে আর কোনটায় গরম, সেটা অনেকেই জানেন না। সঠিক উপায় না জানা থাকলে হিতে বিপরীত হতে পারে। সাধারণত পেশির ব্যথায় গরম সেঁক আর ফুলে যাওয়ায় ঠাণ্ডা সেঁক দিতে হয়। ডাক্তাররা অনেক সময় দু'টোই একসঙ্গে দিতে বলেন। তবে আদতে কীরকম ব্যথায় কীরকম সেঁক দেওয়া উচিত, সেটা বিস্তারিত জেনে নেওয়া দরকার।

হিট থেরাপি বা গরম সেঁক

একে থার্মোথেরাপিও বলা হয়। আহত স্থানে তাপ প্রয়োগ রক্তসঞ্চালন বাড়িয়ে দেয় এবং অস্বস্তি কমিয়ে পেশির নমনীয়তা বৃদ্ধি করে। হিট থেরাপি দীর্ঘস্থায়ী ব্যথা, জয়েন্টের ব্যথায় কাজে দেয়। যে কোনও খেলাধুলা করার আগে গরম জলে স্নান করার পরামর্শ দেওয়া হয় কারণ এটি পেশিগুলিকে শিথিল করে। হিট থেরাপি প্রয়োগ করা হয়-

স্ট্রেন

মুচকে গেলে

অস্টিওআর্থ্রাইটিসে

দীর্ঘস্থায়ী জ্বালা এবং টেন্ডন শক্ত হয়ে গেলে

কোনও কাজের আগে শক্ত পেশি বা টিস্যু শিথিল করার ক্ষেত্রে

পিঠের নীচের অংশ-সহ ঘাড় বা পিঠের আঘাতের ক্ষেত্রে ব্যথা উপশম করার সময়ে

হিট থেরাপির প্রকার

হিট থেরাপির তাপ এমন হবে যা পুড়িয়ে দেবে না, কিন্তু আরাম লাগার মতো উষ্ণ হবে।

ড্রাই হিট- ইলেকট্রিক্যাল হিটিং প্যাড, গরম জলের বোতল এবং সনা এখানে অন্তর্ভুক্ত। শুষ্ক তাপ ৮ ঘণ্টা পর্যন্ত প্রয়োগ করা যেতে পারে। এটি প্রয়োগ করা সহজ।

আর্দ্র তাপ- এতে স্টিমড তোয়ালে, আর্দ্র হিটিং প্যাক বা গরম স্নানের মতো পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়। এটি শুকনো তাপের চেয়ে বেশি কার্যকর এবং কম সময়ে কাজে দেয়।

হিট থেরাপি দীর্ঘ সময় ধরে ব্যবহার করা যেতে পারে। সামান্য আঘাতের ক্ষেত্রে ১৫ থেকে ২০ মিনিটের জন্য হিট থেরাপি ব্যবহার করার পরামর্শ দেওয়া হয়। মাঝারি থেকে গুরুতর আঘাতের জন্য উষ্ণ স্নানের মতো হিট থেরাপির প্রয়োজন।

হিট থেরাপি ব্যথা উপশমের একটি ভাল পদ্ধতি হলেও এটি এমন জায়গায় ব্যবহার করা উচিত নয় যেখানে আঘাতপ্রাপ্ত এলাকা ফুলে গিয়েছে অথবা খোলা ক্ষত রয়েছে। গর্ভবতী মহিলাদের এবং ডায়াবেটিস, ডার্মাটাইটিস, ভাস্কুলার রোগ, থ্রম্বোসিস, মাল্টিপল স্ক্লেরোসিস (এমএস) রোগীদের হিট থেরাপি প্রয়োগ করার আগে ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করা উচিত, কারণ তাঁদের জটিলতার ঝুঁকি বেশি।

খুব গরম থার্মোথেরাপি ত্বক পুড়িয়ে দিতে পারে, তাই তাপমাত্রা যেন খুব বেশি না হয়- এটা খেয়াল রাখতে হবে। সংক্রমিত এলাকায় তাপ প্রয়োগ করলে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি বাড়তে পারে। এক সপ্তাহের জন্য হিট থেরাপি প্রয়োগ করার পর ফলাফল দেখতে না পেলে একজন ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করা প্রয়োজন।

কোল্ড থেরাপি বা ঠাণ্ডা সেঁক

একে ক্রায়োথেরাপিও বলা হয়। কোল্ড থেরাপি আহত স্থানে রক্তসঞ্চালন কম করে টিস্যুকে রক্ষা করে। এই থেরাপি আঘাতের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে সব চেয়ে কার্যকর। তবে কখনই ক্ষতস্থানে সরাসরি বরফ প্রয়োগ করা ঠিক নয় কারণ এতে ভালর চেয়ে বেশি ক্ষতি হতে পারে।

কোল্ড থেরাপি কাজে দেয়

অস্টিওআর্থ্রাইটিসে

সাম্প্রতিক আঘাতে

গাউট

স্ট্রেন

কোনও কাজের পরে টেন্ডনে জ্বালা হলে

মাইগ্রেনে

কোল্ড থেরাপির প্রকার

ক্রায়োথেরাপি পণ্য: এর মধ্যে রয়েছে আইস প্যাক, কুল্যান্ট স্প্রে এবং আইস মাসাজের মতো জিনিস

ক্রায়ো স্ট্রেচিং: এই ক্ষেত্রে, স্ট্রেচিংয়ের সময়ে পেশির খিঁচুনি কমাতে ঠাণ্ডা তাপমাত্রা ব্যবহার করা হয়

ক্রায়োকিনেটিক্স: এই ধরনের থেরাপি ঠান্ডা চিকিৎসা এবং সক্রিয় ব্যায়ামের সমন্বয়ে কাজ করে। লিগামেন্ট ব্যথার ক্ষেত্রে এটি একটি দরকারি উপশম প্রক্রিয়া।

বরফ দিয়ে স্নান: এটিও ক্রায়োথেরাপির আরেকটি প্রকারভেদ।

আরও ভাল ফলাফলের জন্য, একটি তোয়ালে মোড়ানো আইস প্যাক অল্প সময়ের জন্য আহত স্থানে দিনে কয়েকবার প্রয়োগ করা যায়। ২০ মিনিটের বেশি বরফ প্রয়োগ করা কখনওই উচিত নয় কারণ এটি স্নায়ু, ত্বক এবং টিস্যুর ক্ষতি করতে পারে। কোল্ড কম্প্রেস লাগানোর আগে হৃদরোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত। যদি কোল্ড থেরাপি ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে কাজ না করে তবে একজন ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করা জরুরি।

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published:

Tags: Cold Compress, Hot Compress, Pain

পরবর্তী খবর