Hibiscus Tea : উজ্জ্বল ত্বক ও ঘন চুল পেতে জুড়িহীন জবাফুল চা

ক্যামোমাইল চায়ের মতো এখনও হিবিসকাস টি-ও খুব জনপ্রিয় ৷ হিবিসকাস বা জবা ফুলের চা (Hibiscus Tea ) শরীরের জন্য খুবই উপকারী ৷

ক্যামোমাইল চায়ের মতো এখনও হিবিসকাস টি-ও খুব জনপ্রিয় ৷ হিবিসকাস বা জবা ফুলের চা (Hibiscus Tea ) শরীরের জন্য খুবই উপকারী ৷

  • Share this:

    ত্বক ও চুলের যত্নে ফুলের ভূমিকা অনেকদিন ধরেই সমাদৃত ৷ তবে শুধু মাখার উপকরণ হিসেবে নয় ৷ ডায়েটে রাখা যায় বিভিন্ন সুগন্ধি ফুল ৷ সেরকমই একটি উপকারী ফুল হল জবা ৷  বাঙালির অতি পরিচিত এই ফুলের স্বাস্থ্যসম্মত গুণ বহু ৷ ক্যামোমাইল চায়ের মতো এখনও হিবিসকাস টি-ও খুব জনপ্রিয় ৷ হিবিসকাস বা জবা ফুলের চা (Hibiscus Tea ) শরীরের জন্য খুবই উপকারী ৷

    ভিটামিন সি সমৃদ্ধ হিবিসকাস টি শরীরে কোলাজেনের যোগান বজায় রাখে ৷ এই উপাদানের ফলে ত্বক ঝকঝকে থাকে ৷ চেহারায় জেল্লা ধরে রাখে৷

    হিবিসকাস টি শরীরকে ডিটক্স করে হাইড্রেটেড রাখে ৷ রক্ত সংবহন প্রক্রিয়া ঠিক থাকে ৷ ফলে ত্বক চেহারায় তারুণ্য ধরে রাখে ৷

    ভিটামিন সি, বিটা ক্যারোটিনে মতো অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট থাকায় ত্বকের সংক্রমণের হাত থেকে রেহাই পাওয়া যায় ৷ এই চা পানের ফলে ত্বকে দূষণের ছাপও পড়ে না ৷

    হিবিসকাস টি অ্যামিনো অ্যাসিডে ভরপুর ৷ ফলে চুলের গোড়া মজবুত থাকে ৷ ঘন, কালো চুল আপনার অহঙ্কারের কারণ হয় ৷

    চুল পরিষ্কার করার জন্যেও বেছে নিতে পারেন হিবিসকাস টি-কে ৷ জবাফুলের চা দিয়ে ধুয়ে নেওয়ার পর চুলে দিন কন্ডিশনারের পরশ ৷ এর ফলে খুসকি দূর হয় ৷ চুল থাকে জটমুক্ত ৷

    সাধারণত জবাফুলের পাপড়ি শুকিয়ে চা তৈরি করা হয় ৷ হিবিসকাস টি পান করার পাশাপাশি ব্যবহার করুন রূপটানেও ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: