শরীরচর্চার সময় নেই? পেটের চর্বি ঝরাতে কাজে লাগতে পারে এক টুকরো আদা

পেটের চার পাশে জমে থাকা মেদ! আদায় লাভ হতে পারে। কী ভাবে, দেখে নেওয়া যাক চট করে!

পেটের চার পাশে জমে থাকা মেদ! আদায় লাভ হতে পারে। কী ভাবে, দেখে নেওয়া যাক চট করে!

  • Share this:

#কলকাতা: স্নেহ জিনিসটা ভালো বইকি, এ নিয়ে কোনও সন্দেহই প্রকাশ করা চলে না! তবে তা ততক্ষণ পর্যন্তই, যতক্ষণ স্নেহ আছে মনে! শরীরে যদি জমা হয়, তবে স্নেহপদার্থ বা মেদ মোটেই সুবিধার জিনিস নয়। বিশেষ করে পেটের চার পাশে জমে থাকলে তো জীবন অন্ধকার- ফ্যাশনেবল পোশাক তখন যেন চাঁদ আর আমরা বামন হয়ে যাই, হাত বাড়ানোরও সাহস হয় না! ব্যাপারটা যদি এখানেই শেষ হয়ে যেত, তাহলেও একরকম ছিল! ফ্যাশন করব না বলে দিব্যি ভুঁড়িটাকে সামনের দিকে এগিয়ে দেওয়া যেত সদর্পে! কিন্তু শরীরে মেদ তো আর একা জমে থাকে না, তার পরতে পরতে বাসা বেঁধে থাকে নানা রকমের রোগব্যাধিও! মহিলাদের ক্ষেত্রে সন্তানধারণেও সমস্যা তৈরি করে অতিরিক্ত ওজন, পুরুষদের ক্ষেত্রে যৌনসুখের অন্তরায় হয়ে ওঠে!

ফলে, মেদ ঝরাতেই হবে! কিন্তু এটা লেখা যতটা সহজ, করে ওঠা ততটা নয়! আসলে সময় কই? ওয়ার্ক ফ্রম হোমের দিনে সকালে ঘুম থেকে উঠেই আমরা বসে যাই কমপিউটারখুলে। তার পর যখন কমপিউটার বন্ধ হয়, একই সঙ্গে বন্ধ হয়ে চোখদুটোও ঘুমে- আর কিছু করার সময় মোটে জোটে না! তবে খাওয়ার সময়টা তো জোটে- একথা অস্বীকার করা যাবে না! আর কিছু না হোক, কাজের ফাঁকে চা বা কফির কাপে চুমুক দেওয়াটা কি আর বাদ থাকে?

থাকে যখন না, তখন এই পথেই জব্দ করতে হবে পেটের চার পাশে জমে থাকা মেদকে! হাতিয়ার হবে আদা! কী ভাবে, দেখে নেওয়া যাক চট করে!

১. আদা চা আমরা অনেকেই খেয়ে থাকি। তবে সেটায় দুধ, চিনিও থাকে। যা আবার ওজন বাড়িয়ে দেয়। ফলে, গরম জলে আদা ফুটিয়ে তাতে কয়েক ফোঁটা পাতিলেবুর রস মিশিয়ে খাওয়া যেতে পারে। আদা আর লেবুর রস হু-হু করে চর্বি ঝরাতে সাহায্য করবে। এটা যদি খেতে ভালো না লাগে, তাহলে লেবু চায়ে আদা ফুটিয়ে খেলেও একই কাজ হবে।

২. জিনিস একই, তবে লেবুর বদলে যদি এতে অ্যাপল সাইডারল ভিনিগার (Apple Cider Vinegar) ব্যবহার করা যাবে, তাহলে কাজ হবে আরও দ্রুত গতিতে। পাশাপাশি এর প্রোবায়োটিক উপাদান শরীরে শক্তিও জোগাবে, তরতাজা রাখবে।

First published: