World Cancer Day 2021: সার্ভিকাল ক্যানসারে আক্রান্ত? কার্যকরী ভূমিকা নিচ্ছে HPV ভ্যাকসিন, জানুন বিশদে...

World Cancer Day 2021: সার্ভিকাল ক্যানসারে আক্রান্ত? কার্যকরী ভূমিকা নিচ্ছে HPV ভ্যাকসিন, জানুন বিশদে...
সার্ভিকাল ক্যানসারের টিকা নিচ্ছেন মহিলা। সংগৃহীত ছবি।

সার্ভিকাল ক্যানসারের পিছনে রয়েছে প্যাপিলোমা ভাইরাস (HPV)। কিন্তু এই রোগ নিরাময়ে কার্যকরী ভূমিকা নিতে পারে HPV ভ্যাকসিন।

  • Share this:

#কলকাতা: ক্যানসারের বিরুদ্ধে লড়ছে সমগ্র বিশ্ব। চারদিকে ক্যানসার নিয়ে একাধিক সচেতনতা অভিযান চলছে। কিন্তু এর মাঝেই সাইলেন্ট কিলার হয়ে নিজের সাম্রাজ্য বাড়িয়ে চলেছে সার্ভিকাল ক্যানসার। তথ্য বলছে, দেশে ক্যানসারে মৃত্যুর তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে সার্ভিকাল ক্যানসার। কারণ এই রোগে আক্রান্ত হয়ে মহিলাদের মৃত্যু দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। কিন্তু আপনি কি জানেন, এই ক্যানসার প্রতিরোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয় HPV ভ্যাকসিন? আসুন জেনে নেওয়া যাক বিশদে!

সার্ভিকাল ক্যানসারের পিছনে রয়েছে প্যাপিলোমা ভাইরাস (HPV)। কিন্তু এই রোগ নিরাময়ে কার্যকরী ভূমিকা নিতে পারে HPV ভ্যাকসিন। কী ভাবে কাজ করে এটি? কতটা ডোজ নেওয়া দরকার? জেনে নেওয়া যাক, কী বলছেন চিকিৎসকরা!

কী ভাবে কাজ করে এই ভ্যাকসিন?


এ নিয়ে বিশদে আলোচনা করেছেন BLK সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের গাইনোকলজিস্ট নেহা কুমার। তাঁর কথায়, মূলত দুই ধরনের HPV ভ্যাকসিন থাকে। এগুলি হল বাইভ্যালেন্ট ( Bivalent) ও কোয়াড্রাইভ্যালেন্ট (Quadrivalent)। বাইভ্যালেন্ট HPV-এর দু'টি স্ট্রেইনের এবং কোয়াড্রাইভ্যালেন্ট এই ভাইরাসের চারটি স্ট্রেইনের মোকাবিলা করতে পারে। প্রধানত, 16 ও 18 HPV স্ট্রেইনের বিরুদ্ধে লড়ে কোয়াড্রাইভ্যালেন্ট ভ্যাকসিন। আর এটির থেকেই সার্ভিকাল ক্যানসার হয়।

কারা ভ্যাকসিন নেওয়ার যোগ্য?

কিশোর-কিশোরী থেকে শুরু করে প্রত্যেককে এই ভ্যাকসিন দেওয়া যেতে পারে। তবে ভ্যাকসিন নিলে ৭০ শতাংশ পর্যন্ত রোগের বিরুদ্ধে লড়া যায়। এক্ষেত্রে দ্বিতীয়বারও সার্ভিক্যাল ক্যানসার হতে পারে। তাই ভ্যাকসিন নেওয়ার পরও একটা সম্ভাবনা থেকে যায়। এমনই জানাচ্ছেন চিকিৎসকরা। তাঁদের কথায়, ১৩-২৬ বছরের মধ্যে যে কেউ ভ্যাকসিন নিতে পারেন। আমেরিকায় ৪৫ বছরের মহিলারাও এই ভ্যাকসিন নেন।

ছেলেরা কি নিতে পারে এই ভ্যাকসিন?

চিকিৎসকদের কথায়, একাধিক HPV স্ট্রেইন রয়েছে। এক্ষেত্রে পেনাইল (Penile), ভ্যাজাইনাল (Vaginal), ভালভাল (Valval) ক্যানসার দেখা দিতে পারে। তাই শরীরে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে ও এই মারণ রোগ দূরে রাখতে ছেলেরাও ভ্যাকসিন নিতে পারে।

অন্তঃসত্ত্বারা কি এই ভ্যাকসিন নিতে পারেন?

খড়ঘরের মাদারহুড হাসপাতালের গাইনকোলজিস্ট ও কনসালট্যান্ট ড. সুরভি সিদ্ধার্থ (Surabhi Siddhartha) জানিয়েছেন, বর্তমানে দেশে দু'টি ব্র্যান্ডের ভ্যাকসিন রয়েছে। একটি সারভারিক্স (Cervarix)। অন্যটি গার্ডাসিল (Gardasil) । এই ভ্যাকসিন যে কোনও সময়ে নেওয়া যেতে পারে। তবে অন্তঃসত্ত্বাদের এড়িয়ে যাওয়াই ভালো।

কোন বয়সে কতটা ভ্যাকসিন ডোজের প্রয়োজন?

বিশেষজ্ঞদের মতে, ১৫ বছরের নিচে ছয় মাসের মধ্যে দু'টি ডোজ নিতে হবে। ১৫ বছরের পর তিনটি ডোজ দরকার। প্রথম মাসে, তৃতীয় মাসে ও ষষ্ঠ মাসে দেওয়া হবে ভ্যাকসিনের তিনটি ডোজ। ২৬ বছরের উপরে রোগ চিহ্নিত করার পর ভ্যাকসিন দেওয়া হয়। এখানে ডোজের হিসেব এক মহিলা থেকে অন্য মহিলার ক্ষেত্রে আলাদা হবে।

প্রসঙ্গত, বিশ্বের ১০৬টি দেশে ন্যাশনাল ইমিউনাইজেশন শিডিউলের অংশ হিসেবে ধরা হয় HPV ভ্যাকসিনকে। তবে আমাদের দেশে এখনও তা হয়নি। চিকিৎসকদের কথায়, রোগীর প্রয়োজন অনুযায়ী ভ্যাকসিনের ডোজ ঠিক করতে হবে। এক্ষেত্রে অন্যান্য ভ্যাকসিনের মতো গায়ে ব্যথা, জ্বর-জ্বর ভাব-সহ স্বাভাবিক কিছু পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে।

Published by:Shubhagata Dey
First published: