• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • Winter Ear block Remedies: শীতকালে কনকনে ঠাণ্ডায় কানে তালা? চটপট করুন এই কয়েকটি কাজ, দ্রুত মিলবে স্বস্তি...

Winter Ear block Remedies: শীতকালে কনকনে ঠাণ্ডায় কানে তালা? চটপট করুন এই কয়েকটি কাজ, দ্রুত মিলবে স্বস্তি...

কান বন্ধ হয়ে গেলে ঘরেই করুন এই কাজগুলি

কান বন্ধ হয়ে গেলে ঘরেই করুন এই কাজগুলি

Winter Ear block Remedies: ঘরোয়া কয়েকটি উপায়েও কিন্তু কানের বন্ধভাব দূর করতে পারবেন...

  • Share this:

    #কলকাতা : শীতে ঠাণ্ডা আবহাওয়ায় কান বন্ধভাব বা তালা লেগে যাওয়ার সমস্যায় অনেকেই ভোগেন (Winter Ear block Remedies)। এক্ষেত্রে কানে ব্যথা, ভোঁ ভোঁ শব্দ হওয়া কিংবা কানে কম শোনার সমস্যা দেখা দেয়। বিশেষ করে হাঁচি-কাশি, সর্দি, গলাব্যথা, ঠান্ডা লাগা থেকেই কানে তালা লাগার ঘটনা ঘটে। কিন্তু সঠিক কোন পদ্ধতিতে এই অস্বস্তি থেকে মুক্তিলাভ হবে তা জানেন না অনেকেই।

    বিশেষকরে কানে তালা লেগে যাওয়া বিষয়টিকে প্রায়ই সবাই সাধারণভাবে নেন। অথচ এর থেকে ঘটতে পারে মারাত্মক বিপদ (Winter Ear block Remedies)। বিশেষজ্ঞদের মতে, কানে তালা লাগলে কানের পর্দার ভেতরের দিকে প্রদাহ বা ইনফেকশনের সৃষ্টি হতে পারে। যা মারাত্মক বিপদের কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

    আরও পড়ুন: মাছ-চিকেন-ডিমে 'না'! এবার শুধুই নিরামিষ ভোজ এই সব ‘সাত্ত্বিক’ ট্রেনে, দেখুন তালিকা...

    কানে তালা লাগে বা কান বন্ধ হয়ে যায় কেন?

    অডিটরি টিউব যা নাকের সঙ্গে গলা ও কানের সংযোগ (Winter Ear block Remedies) স্থাপন করে। এই টিউব মধ্যকর্ণ ও আবহাওয়ার বায়ুচাপের ভারসাম্য রক্ষা করে। যদি এই টিউব বন্ধ হয়ে যায় বা ঠিকমতো কাজ না করে তখন মধ্যকর্ণে পানি জমে প্রদাহ হতে পারে।

    সাধারণত হাঁচি-কাশি, সর্দি বা ঠান্ডা লাগার কারণে কানের সঙ্গে নাক ও গলার মধ্যে যোগাযোগ রক্ষাকারী টিউবটি আংশিক বা সম্পূর্ণভাবে সাময়িক বন্ধ (Winter Ear block Remedies) থাকে। ফলে মধ্যকর্ণের সঙ্গে বাইরের পরিবেশের যোগাযোগে বিঘ্ন ঘটে।

    আরও পড়ুন: ঘর পরিষ্কার করার সময় আপনিও এই এক ভুলগুলো করেন না তো? দেখুন তো...

    কাদের এ সমস্যা হওয়ার ঝুঁকি বেশি?

    > ঘন ঘন সর্দি-কাশি-নাক বন্ধ হলে >> প্রায়ই অ্যালার্জিজনিত কারণে নাকের প্রদাহ বা অ্যালার্জিক রেনাইটিস >> ক্রনিক টনসিলের ইনফেকশন >> শিশুদের ক্ষেত্রে নাকের পেছনে এডিনয়েড নামক লসিকাগ্রন্থি বড় হয়ে যাওয়া >> নাকের হাড় বাঁকা বা ক্রনিক সাইনোসাইটিসের সমস্যা >> ভাইরাল ইনফেকশন ও >> নাকের পেছনে ন্যাসোফ্যারিংস নামক স্থানে কোনো টিউমার হলে।

    কানে তালা লাগলে যেসব সমস্যা দেখা দেয় :

    >> মধ্যকর্ণে পানি জমা হয়ে প্রদাহ হলে সর্দি-কাশির সঙ্গে হঠাৎ কান বন্ধ হয়ে যায়। >> হঠাৎ কানে বেশ ব্যথা মনে হয়। >> কানের মধ্যে ফড়ফড় কিংবা ভোঁ ভোঁ শব্দ হয়। >> কানে কম শোনা যায়। >> ইনফেকশন বেশি হলে কান বেয়ে রক্ত মিশ্রিত জল পড়ে কিংবা পুঁজ বেরোতে পারে।

    এই সমস্যায় জটিলতার আগেই একজন নাক-কান-গলা চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়া উচিত। এ ধরনের রোগে চিকিৎসক কান পরীক্ষার মাধ্যমে সাধারণত অ্যান্টি-হিস্টামিন; বয়স উপযোগী নাকের ড্রপ; প্রয়োজনে অ্যান্টিবায়োটিক দিয়ে চিকিৎসা করে থাকেন।

    আরও পড়ুন: মদ্যপান না-করেও ফ্যাটি লিভারের ঝুঁকি! এই লক্ষণগুলি থাকলেই সতর্ক হন...

    পাশাপাশি ঘরোয়া কয়েকটি উপায়েও কিন্তু কানের বন্ধভাব দূর করতে পারবেন-

    লবণজলে গার্গল করলে আপনার নাক ও কানের শ্লেষ্মা কমতে পারে। এজন্য গরম জলে লবণ মিশিয়ে গার্গল করুন। দিনে কয়েকবার করলেই কানের বদ্ধ ভাব সেরে যাবে।

    হালকা গরম জল দিয়ে স্নান করলেও এ সমস্যায় স্বস্তি মিলবে।

    এ ছাড়াও একটি হটব্যাগের সাহায্যে কানে ভাঁপ দিতে পারেন। এতে আপনার কানের অনুনাসিক নালীগুলো খুলে ও কানের শ্লেষ্মা নিষ্কাশন করে।

    কানে তালা লেগে থাকা ফ্লু বা অ্যালার্জির কারণে হতে পারে। বিভিন্ন খনিজ ও প্রাকৃতিক তেল যেমন- চা গাছের তেল, ইউক্যালিপটাস তেল বা পেপারমিন্ট তেল জলে মিশিয়ে ভাঁপ নিলেও উপকার পাবেন। এসব তেলে অ্যান্টিবায়োটিক, অ্যান্টিসেপটিক ও অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য থাকে।

    বারবার চুইংগাম চিবালেও কানের তালা খুলবে দ্রুত। চিকিৎসকরাও চুইংগাম চিবানোর পরামর্শ দেন।

    চাইলে অলিভ অয়েল বা বেবি অয়েল হালকা গরম করে তারপর ঠাণ্ডা করে কানে এক বা দুই ফোঁটা ব্যবহার করতে পারেন। এরপর মাথা কাঁত করে রাখুন ১০-১৫ সেকেন্ড। তবে সতর্ক থাকুন, এটা যেন খুব গরম না হয়!

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: