Home /News /life-style /
Chyawanprash Immunity Booster: রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় চ্যবনপ্রাশ, কিন্তু নিয়ম মেনেই খাওয়া উচিত এই ইমিউনিটি বুস্টার!

Chyawanprash Immunity Booster: রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় চ্যবনপ্রাশ, কিন্তু নিয়ম মেনেই খাওয়া উচিত এই ইমিউনিটি বুস্টার!

Chyawanprash Immunity Booster: ছোটবেলা থেকে আমাদের ঠাকুমা-দিদিমারা চ্যবনপ্রাশ খাওয়াতেন, তার কারণ এতে ভিটামিন, মিনারেল, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে।

  • Share this:

#কলকাতা: শীতকাল মানেই নানান রোগের পাহাড়। কখনও জ্বর, কখনও ঠান্ডা লাগা– এই সব লেগেই আছে। কিন্তু এর থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে কী করে? আবহাওয়া তো আর বদলানো যাবে না। তবে নিজেদের শরীরের ইমিউনিটি (Chyawanprash Immunity Booster) বাড়ানো যেতে পারে। তার জন্য দরকার এমন কিছু খাদ্য, যা শরীরকে করে তোলে ভেতর থেকে সতেজ।

সেই কারণেই ছোটবেলা থেকে আমাদের ঠাকুমা-দিদিমারা চ্যবনপ্রাশ (Chyawanprash) খাওয়াতেন, তার কারণ এতে ভিটামিন, মিনারেল, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট (antioxidant) থাকে। যা শরীরের জন্য ভালো। এতে সব থেকে বেশি জরুরি যে জিনিসগুলো থাকে সেগুলি হল আমলা, ভিটামিন সি এবং গুসবেরি (gooseberry) ইত্যাদি। এই চ্যবনপ্রাশ যেমন শরীরের ইমিউনিটি বাড়ায়, তেমনই যে কোনও সংক্রমণের হাত থেকে শরীরকে রক্ষা করে।

চ্যবনপ্রাশ খাওয়ার আরও কিছু উপকার:

শীতকাল মানে ঠান্ডা লাগা বা জ্বর, সর্দি, কাশি লেগেই থাকে। আর এই করোনাকালে তো জ্বর অথবা ঠান্ডা লাগা মানেই তো আতঙ্ক আর আশঙ্কা। তাই প্রত্যেক দিনে এক বার করে চ্যবনপ্রাশ খাওয়া উচিত। যা নাসারন্ধ্র ও শ্বাসতন্ত্র পরিষ্কার করে। সেখানে জমে থাকা শ্লেষ্মাকে সরিয়ে দেয় এবং ভাইরাসের আক্রমণ থেকেও বাঁচায়।

চ্যবনপ্রাশ খাওয়ার উপায়:

বড়দের জন্য দিনে দু’বার করে চ্যবনপ্রাশ (Chyawanprash Immunity Booster) খাওয়া ভালো। ছোটদের জন্য এক টেবিলচামচ চ্যবনপ্রাশই যথেষ্ট। আবার এর থেকেও বেশি খাওয়া উচিত নয়, কারণ এতে অনেক সময় হজমের অসুবিধা হতে পারে। চ্যবনপ্রাশ হলুদ দুধের সঙ্গেও খাওয়া যেতে পারে। তবে যাঁদের শ্বাসকষ্টের সমস্যা রয়েছে, বা যাঁদের অতিরিক্ত শ্লেষ্মার সমস্যা আছে, তাঁদের দুধ ও হলুদ এড়িয়েই চলা উচিত।

কাদের চ্যবনপ্রাশ খাওয়া উচিত নয়?

চ্যবনপ্রাশ (Chyawanprash Immunity Booster) মধুর মতো মিষ্টি হয় এবং তাতে মিষ্টির পরিমাণও বেশ ভালোই থাকে। তাই যাঁদের হাই ব্লাড সুগারের মতো রোগ আছে, চ্যবনপ্রাশ তাঁদের জন্য ভালো নয়। তাই তাঁরা দিনে বড় জোর ৩ গ্রাম চ্যবনপ্রাশ খাওয়া যায়। কিন্তু যদি কেউ ডায়বেটিসে ভোগে তাদের চ্যবনপ্রাশ খাওয়ার আগে এক বার অন্তত ডাক্তারের সঙ্গে আলোচনা করে নেওয়া উচিৎ।

 আরও পড়ুন: 'আপনি কে হে? আমার বাচ্চাদের খারাপ বলার!' ট্রোলারদের মোক্ষম জবাব দিলেন ইমন

ডাক্তারদের মতে, দিনে অন্তত দুই থেকে তিন বার চ্যবনপ্রাশ খাওয়া উচিত। তবে মনে রাখতে হবে যে, কোনও কিছুই এক দিনে হয় না। তার জন্য ধৈর্য্য ধরতে হবে। রোজ এটি খাওয়া অভ্যেস করলে তবেই ইমিউনিটি বাড়বে।

Published by:Piya Banerjee
First published:

Tags: Covid ১৯, Health, Immunity

পরবর্তী খবর