Home /News /life-style /
Neem Face Wash: স্বাদে তেঁতো হলেও এই বর্ষায় সব চেয়ে বেশি কাজে দেবে নিম পাতা দিয়ে তৈরি ঘরোয়া ফেসওয়াশ

Neem Face Wash: স্বাদে তেঁতো হলেও এই বর্ষায় সব চেয়ে বেশি কাজে দেবে নিম পাতা দিয়ে তৈরি ঘরোয়া ফেসওয়াশ

Homemade Neem Face Wash: নিম হল প্রাকৃতিক অ্যান্টিসেপটিক, এছাড়াও ত্বকের যত্নে নিম কাজ করে জাদুর মতো।

  • Share this:

Homemade Neem Face Wash: সারা বছর ত্বকের সঠিক ভাবে যত্ন রাখা সহজ কাজ নয়। কারণ একেক ঋতুতে ত্বকের একেক রকম প্রয়োজন হয়। বিশেষ করে বর্ষাকালে বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ থাকে অনেকটাই বেশি। আর্দ্রতা বেশি থাকার দরুণ ঘামও হয় অন্যান্য ঋতুর চেয়ে বেশি। আর এই ঘাম থেকেই দেখা দিতে পারে পিম্পল বা অ্যাকনে। অবশ্য এই সমস্যা সমাধান করার জন্য বাজারে অনেক প্রসাধনী আছে। কিন্তু অনেকেই জানেন যে এই জাতীয় বাজারচলতি প্রসাধনী উপকারের চেয়ে ক্ষতিই করে বেশি। কারণ এর মধ্যে অনেক রকমের রাসায়নিক থাকে যা ত্বকের জন্য একেবারেই ভালো নয়। এত কিছু না করে বাড়িতেই এই সমস্যার সমাধান করা যায়। নিমপাতা, যা সহজলভ্য এবং সস্তা, সেই দিয়ে বাড়িতে তৈরি করে ফেলা যায় ঘরোয়া ফেসওয়াশ। নিম হল প্রাকৃতিক অ্যান্টিসেপটিক, এছাড়াও ত্বকের যত্নে নিম কাজ করে জাদুর মতো।

ত্বকের মধ্যে জমে থাকা ময়লা দূর করে নিম। তাছাড়া নিমের ব্যবহারে মুখে এক উজ্জ্বল আভা চলে আসে। আর নিশ্চিন্ত হওয়ার মতো বিষয় হল যে এই ঘরোয়া ফেসওয়াশ যতই ব্যবহার করা হোক না কেন, এতে ত্বকের কোনও ক্ষতি হয় না। ব্রন বা অ্যাকনের জন্য যাঁদের ত্বকে কালো দাগ হয়ে গিয়েছে তাঁরাও এই ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে পারেন। নিয়মিত ব্যবহার করলে কালো দাগ দূর হবে।

কী ভাবে এই প্রাকৃতিক ফেসওয়াশ ব্যবহার করা যায়?

মধুর সঙ্গে মিশিয়ে

১০-১৫টা নিম পাতা নিয়ে তার মধ্যে দুই টেবিল চামচ মধু ও এক চিমটে দারচিনি গুঁড়ো মিশিয়ে এই ফেসওয়াশ তৈরি করতে হবে। প্রথমে নিম পাতার পেস্ট করে নিতে হবে। দশ মিনিট এই প্যাক মুখে রেখে ধুয়ে ফেলতে হবে।

মুলতানি মাটির সঙ্গে মিশিয়ে

এটা অনেকটা মধু ও নিমের ফেসওয়াশের মতোই। ১৫-২০টা নিম পাতা আগে ভালো করে পেস্ট করে নিতে হবে। তার মধ্যে দুই টেবিল চামচ মুলতানি মাটি ও অল্প কয়েক ফোঁটা গোলাপ জল মিশিয়ে নিতে হবে। ১৫ মিনিট রেখে এই প্যাক ধুয়ে নিতে হবে।

Published by:Ananya Chakraborty
First published:

Tags: Beauty tips, Monsoon, Neem

পরবর্তী খবর