বাঁশদ্রোণীতে পা পিছলে কুয়োয় যুবক, হদিশ মিললেও উদ্ধার করা যায়নি যুবককে

বাঁশদ্রোণীতে পা পিছলে কুয়োয় যুবক, হদিশ মিললেও উদ্ধার করা যায়নি যুবককে

শুক্রবার দুপুরে স্নান করতে গিয়ে বাড়ির পাতকুয়োয় পড়ে যান সম্রাট। দফায় দফায় চেষ্টার পর, রাতে ডুবুরি নামিয়ে উদ্ধার করা হয় তাঁর দেহ।

  • Share this:

#কলকাতা: স্নান করতে গিয়ে পাতকুয়োয় যুবক। আজ দুপুরে বাঁশদ্রোণীতে পাতকুয়োয় পড়ে যান বছর তিরিশের সম্রাট সরকার। কুয়োয় যুবকের হদিশ মিললেও উদ্ধার করা যায়নি। প্রায় ছ'ঘণ্টা চেষ্টার পর, আজকের মতো বন্ধ রাখা হয়েছে উদ্ধারকাজ। আগামিকাল ফের নামানো হবে ডুবুরি। যদিও সম্রাটের বেঁচে থাকার ক্ষীণ সম্ভাবনাও নেই বলে জানিয়েছেন উদ্ধারকারীরা।

বাঁশদ্রোণীর সোনালি পার্ক। এখানেই মা-দিদার সঙ্গে ভাড়া বাড়িতে থাকতেন বছর তিরিশের সম্রাট সরকার। শুক্রবার দুপুরে স্নান করতে গিয়ে পাতকুয়োয় পড়ে যান সম্রাট। দফায় দফায় চেষ্টার পরেও, এদিন উদ্ধার করা যায়নি সম্রাটকে। সম্রাট মৃগী রোগে আক্রান্ত ছিলেন বলে জানিয়েছে তাঁর পরিবার।

পরিবারের দাবি, এদিন দুপুর আড়াইটে নাগাদ বাড়ি লাগোয়া পাতকুয়োয় স্নান করতে যান সম্রাট। কিছুক্ষণ পর হঠাৎই আওয়াজ শুনে ছুটে আসেন প্রতিবেশী মহিলা। ততক্ষণে পঞ্চাশফুট কুয়োর গভীরে তলিয়ে গিয়েছেন সম্রাট।

খবর পেয়ে ছুটে আসে দমকল ও রিজেন্ট পার্ক থানার পুলিশ। ডাকা হয় রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা দলকে। বিকেল চারটে নাগাদ শুরু হয় উদ্ধারকাজ। পাম্পের সাহায্যে জল বের করার পর, নামানো হয় ডুবুরি। ঘটনাস্থলে এসে উদ্ধারকাজে তদারকি করেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস।

রাত দশটা নাগাদ রণে ভঙ্গ দেন উদ্ধারকারীরা। এদিনের মতো বন্ধ করে দেওয়া হয় উদ্ধারকাজ। যদিও উদ্ধারকারীদের ভূমিকায় অসন্তুষ্ট যুবকের পরিবার। দমকল ও পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান এলাকাবাসী। অশান্তির খবর পেয়ে ফের ঘটনাস্থলে ছুটে যান অরূপ বিশ্বাস।

শনিবার সকালে ফের শুরু হবে উদ্ধারকাজ। চেষ্টা হবে কুয়োয় ডুবুরি নামানোর।

First published: 09:55:23 PM Dec 27, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर