গৃহবধূর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারকে ঘিরে চাঞ্চল্য, খুন না আত্মহত্যা দ্বন্দে পুলিশ

বাপের বাড়ির অভিযোগ, সম্পত্তি নিয়ে বিবাদে স্বপ্নাকে খুন করেছেন তাঁর স্বামী ড্যানি বৈদ্য ওরফে রাজ।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 21, 2019 03:26 PM IST
গৃহবধূর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারকে ঘিরে চাঞ্চল্য, খুন না আত্মহত্যা দ্বন্দে পুলিশ
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 21, 2019 03:26 PM IST

#কলকাতা: নরেন্দ্রপুরে গৃহবধূর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল এলাকায় ৷ ঘটনাটি ঘটেছে নরেন্দ্রপুরের কাদারহাট রামকৃষ্ণপল্লীতে। বছর তিরিশের ওই মহিলাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নার্সের কাজ করতেন।

বাপের বাড়ির অভিযোগ, সম্পত্তি নিয়ে বিবাদে স্বপ্নাকে খুন করেছেন তাঁর স্বামী ড্যানি বৈদ্য ওরফে রাজ। পুলিশ রাজকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে। অন্যদিকে মৃতদেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে ৷ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিশ।

নরেন্দ্রপুরের কুসুম্বা এলাকার বাসিন্দা ওই মহিলার সঙ্গে বছর দশেক আগে মগরাহাটের বাসিন্দা ড্যানির বিয়ে হয়। ড্যানি পেশায় ডেকরেটার্সের কর্মী। দম্পতির বছর আটেকের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে ৷ সে হস্টেলে থাকে। বাপের বাড়ির লোকেদের দাবি, বাড়ি করার জন্য মৃত মহিলার বাবা দু’কাঠা জমি লিখে দিয়েছিলেন মেয়েকে।

অভিযোগ, সেই জমি নিজের নামে লিখে দেওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছিলেন ড্যানি। সেটা না হওয়াতেই তিনি স্ত্রীরে শ্বাসরোধ করে খুন করে ঘরের মধ্যে ঝুলিয়ে দিয়েছেন বিষয়টি আত্মহত্যা বলে চালানোর জন্য। যদিও এটা খুন নাকি আত্মহত্যা তার তদন্ত শুরু করেছে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিশ।

First published: 03:26:04 PM Sep 21, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर