corona virus btn
corona virus btn
Loading

সেপ্টেম্বরে কি পূর্ণ লকডাউন করা যাবে? কেন্দ্রের ব্যাখ্যা চাইল রাজ্য

সেপ্টেম্বরে কি পূর্ণ লকডাউন করা যাবে? কেন্দ্রের ব্যাখ্যা চাইল রাজ্য
প্রতীকী ছবি৷

রাজ্য সরকারের শীর্ষ আধিকারিকদের সূত্রে দাবি করা হয়েছে, পূর্ণ লকডাউন করে পশ্চিমবঙ্গে করোনা নিয়ন্ত্রণে সুফল মিলেছে বলে কেন্দ্রকে বোঝানো হবে৷

  • Share this:

#কলকাতা: কন্টেইনমেন্ট জোনের বাইরে পূর্ণ লকডাউন জারি করতে গেলে কেন্দ্রের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে রাজ্যগুলিকে৷ আনলক ফোরের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার যে গাইডলাইন দিয়েছে, তাতে এমনই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ ফলে সেপ্টেম্বর মাসে রাজ্যে তিন দিন পূর্ণ লকডাউন করা যাবে কি না, তা জানতে চেয়ে কেন্দ্রকে চিঠি দিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার৷ 'দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়া'য় প্রকাশিত একটি রিপোর্টে এমনই দাবি করা হয়েছে৷

সোমবারের পর আগামী মাসের ৭, ১১ এবং ১২ সেপ্টেম্বর রাজ্যে পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে৷ সোমবারের লকডাউন নিয়ে সমস্যা না হলেও সেপ্টেম্বর মাসের লকডাউন আনলক ৪ পর্বের মধ্যে পড়ছে৷

গত বুধবার ক্যাবিনেট বৈঠকের পর সেপ্টেম্বর মাসে তিন দিন পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী৷ একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছিলেন, ২০ সেপ্টেম্বরের আগে রাজ্যের পরিস্থিতি দেখে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে গোটা মাসই সাপ্তাহিক লকডাউন চলবে কি না৷

সংক্রমণের শেকল ভাঙতে অন্যান্য বেশ কয়েকটি রাজ্যের মতো পশ্চিমবঙ্গেও কিছুদিন অন্তর পূর্ণ লকডাউনের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে বলে রাজ্য সরকারকে পরামর্শ দিয়েছিল কোভিড অ্যাডভাইজরি কমিটি৷ মুখ্যমন্ত্রী আরও জানিয়েছিলেন, রাজ্য সরকার ৩ এবং ৪ সেপ্টেম্বরও রাজ্য পূর্ণ লকডাউনের কথা ভেবেছিল কিন্তু যেহেতু ওই ১ থেকে ৬ সেপ্টেম্বরের মধ্যে JEE(Main) পরীক্ষা ঘোষণা করা হয়েছে, তাই ওই দিনগুলিতে লকডাউন রাখা হয়নি৷

রাজ্য সরকারের শীর্ষ আধিকারিকদের সূত্রে দাবি করা হয়েছে, পূর্ণ লকডাউন করে পশ্চিমবঙ্গে করোনা নিয়ন্ত্রণে সুফল মিলেছে বলে কেন্দ্রকে বোঝানো হবে৷ গত ১ থেকে ৩০ অগাস্টের মধ্যে রাজ্যে নতুন করে ৮৭,০০৮টি নতুন সংক্রমণের খবর পাওয়া গিয়েছে৷ কিন্তু ওই সময়ের মধ্যে মাত্র ৫০২৬ জন সক্রিয় রোগীর সংখ্যা বেড়েছে৷ রাজ্যে সুস্থতার হারও বেড়ে ৮১.৯ শতাংশ হয়েছে, যা জাতীয় গড়ের থেকে বেশ কিছুটা বেশি৷ অগাস্ট মাসে রাজ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর হারও ২ শতাংশের নীচে নেমে এসেছে৷ গত ১ অগাস্ট যা ছিল ২.২ শতাংশ৷

এর পাশাপাশি আন্তঃরাজ্য এবং রাজ্যের মধ্যে মানুষের যাতায়াত বা পণ্য পরিবহণের ক্ষেত্রে কোনওরকম বিধিনিষেধ থাকবে না বলে কেন্দ্র যে নির্দেশিকা দিয়েছে, তা নিয়েও বিস্তারিত ব্যাখ্যা চেয়েছে রাজ্য প্রশাসন৷ কারণ পশ্চিমবঙ্গ সরকার এখনও পর্যন্ত শুধুমাত্র স্পেশ্যাল ট্রেন চলাচলের অনুমতি দিয়েছে৷ বিমান পরিবহণের ক্ষেত্রেও করোনার বেশি প্রকোপ রয়েছে এমন ৬টি শহর থেকে সপ্তাহে তিন দিন বিমান আসার অনুমতি দেওয়া হয়েছে৷

আনলক ৪-এর নির্দেশিকায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক আরও জানিয়েছে, সেপ্টেম্বর মাসের ২১ তারিখ থেকে সামাজিক, শিক্ষা সংক্রান্ত, ক্রীড়া বিষয়ক, বিনোদন মূলক, ধর্মীয় এবং রাজনৈতিক অনুষ্ঠান এবং জমায়েতে ১০০ জন জড়ো হতে পারবে৷ এই নির্দেশিকারও ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে কেন্দ্রের থেকে৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: August 31, 2020, 2:22 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर