হোম /খবর /কলকাতা /
বাংলা নিয়ে মিথ্যাচার করছেন, দেশের অর্থমন্ত্রীকে এটা শোভা পায় না: অমিত মিত্র

বাংলা নিয়ে মিথ্যাচার করছেন, দেশের অর্থমন্ত্রীকে এটা শোভা পায় না: অমিত মিত্র

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন ও পশ্চিমবঙ্গের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন ও পশ্চিমবঙ্গের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র

রাজ্যের অর্থমন্ত্রীর দাবি, গত ২৩ জুন সন্ধ্যায় সমস্ত জেলা ও ব্লক স্তরের পরিযায়ী সংক্রান্ত সব তথ্য কেন্দ্রকে দেওয়া হয়েছে ।

  • Last Updated :
  • Share this:

#কলকাতা: মিথ্যাচার করছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন৷ পরিসংখ্যান দিয়ে পাল্টা আক্রমণে নামলেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র। আমফান থেকে করোনা, পরিযায়ী শ্রমিক ইস্যু থেকে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পে যোগদান না করা, নানা ইস্যুতে রবিবারই বাংলার বিরুদ্ধে নিশানা দাগেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সিতারামন। আক্রমণ করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও ।

এবার নির্মলাকেই পাল্টা 'মিথ্যেবাদী' আখ্যা দিলেন অমিত। সোমবার রাজ্যের অর্থমন্ত্রী বলেন, 'দেশ তলানিতে চলে যাচ্ছে। বিশেষজ্ঞ সংস্থা বলছে, জিডিপি ৫ শতাংশ নেমে যাবে । অথচ এর মধ্যেই উনি বাংলাকে উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে মিথ্যা দিয়ে আক্রমণ করছেন । এটা দেশের অর্থমন্ত্রীকে শোভা পায় না।' এদিন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীকে কার্যত চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন অমিত। পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য প্রকল্প গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানে বাংলাকে শামিল না করার যুক্তি হিসেবে নির্মলা জানিয়েছিলেন, উপযুক্ত তথ্য দেয়নি বাংলা।

এদিন নির্মলার এই কথার চ্যালেঞ্জ জানান অমিত। তথ্য তুলে ধরে রাজ্যের অর্থমন্ত্রীর দাবি, গত ২৩ জুন সন্ধ্যায় সমস্ত জেলা ও ব্লক স্তরের পরিযায়ী সংক্রান্ত সব তথ্য কেন্দ্রকে দেওয়া হয়েছে । একই সঙ্গে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নিয়ে বাংলাকে এই প্রকল্প থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে বলেও এদিন অভিযোগ করেন অমিত মিত্র। আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পকেন বাংলায় লাগু করা হয়নি, তা নিয়ে সরব হয়েছিলেন নির্মলা। অমিত মিত্র বলেন, 'রাজ্যের স্বাস্থ্যসাথী আয়ুষ্মান ভারতেরও আগে থেকে চলে। কেন্দ্র রাজ্যকে নকল করে এই স্কিম চালু করেছে।' রাজ্যের স্কিম কেন্দ্রের স্কিমের চেয়ে অনেক বেশি কার্যকরী বলেও এদিন ইঙ্গিত করেন অমিত।

কেন্দ্রের কৃষক কল্যাণ নিধি স্কিম কেন বাংলা লাগু করা হয়নি, এদিন তারও ব্যাখ্যা দেন অমিত মিত্র ৷ বলেন, 'রাজ্যের কৃষকবন্ধু যোজনা কেন্দ্রের প্রকল্পের চেয়ে অনেক কার্যকর। আমাদের প্রকল্পে ডেথ বেনিফিট এবং বর্গাদারদেরও যুক্ত করা আছে। যা কেন্দ্রীয় প্রকল্পে নেই৷ ' অমিত মিত্রের দাবি নিজেদের প্রকল্পের সীমাবদ্ধতা ঢাকতেই 'শাক দিয়ে মাছ ঢাকছেন ' কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী।

SOURAV GUHA

Published by:Arindam Gupta
First published:

Tags: Amit Mitra, Finance Minister, Nirmala Sitharaman