corona virus btn
corona virus btn
Loading

ফোনে কথা বলতে বলতে গাড়ি চালাছিলেন চালক, লাইসেন্স বাতিল করলেন খোদ পরিবহণ মন্ত্রী

ফোনে কথা বলতে বলতে গাড়ি চালাছিলেন চালক, লাইসেন্স বাতিল করলেন খোদ পরিবহণ মন্ত্রী
মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে গাড়ি চালানোয় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল রাজ্য পরিবহণ দফতর

চালক ইন্দ্রনাথ তালুকদারের ড্রাইভিং লাইসেন্স পুরোপুরি ভাবে বাতিল করে দিল রাজ্য পরিবহণ দফতর।

  • Share this:

#কলকাতা: স্কুলের বাচ্চাদের নিয়ে গাড়ি চালানোর সময় মোবাইল ফোনে কথা বলা। চালকের এমন আচরণ দেখতে পেলেন খোদ পরিবহণ মন্ত্রী। শুধু দেখাই নয়। মোবাইলে তুলে রাখলেন ছবিও। গত সোমবার ফোর্ট উইলিয়ামের সামনে এই ঘটনা নজরে আসে পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর। তারপরেই তিনি তড়িঘড়ি ওই চালকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বলেন তাঁর দফতরকে। গাড়ির নম্বর WB 19K 3243 দেখে জানতে পারা যায় গাড়ির যাবতীয় নথি। চিহ্নিত করা হয় পুলকারের চালকটিকেও। সেই চালক ইন্দ্রনাথ তালুকদারের ড্রাইভিং লাইসেন্স পুরোপুরি ভাবে বাতিল করে দিল রাজ্য পরিবহণ দফতর। ২-বছর আগে চালকদের সচেতন করতে মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে গাড়ি চালানোয় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল রাজ্য পরিবহণ দফতর। মোটর ভেহিক্যালসের এনফোরসমেনট বিভাগ রাস্তায় নেমে গাড়ি ধরার কাজও শুরু করেছিল। তাদের সাহায্য করতে এগিয়ে আসে কলকাতা পুলিশও। তাদের তরফ থেকে চালু করা হয় একটি বিশেষ নম্বর। যেখানে ছবি তুলে পাঠালে দেওয়া হচ্ছিল পুরষ্কারও। প্রথম ৩ মাস ব্যাপক সাড়া মিলেছিল এই কাজে। এমনকি যারা ছবি তুলে পাঠিয়েছিলেন তাদের হাতে পুরষ্কারও তুলে দেওয়া হয়। কিন্তু ধাপে ধাপে তা বন্ধ হয়ে যায়। বর্তমানে তাই মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতেই চলে দিব্যি গাড়ি চালানো।

3601_IMG-20200115-WA0000
মুর্শিদাবাদের বাস দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধান করতে গিয়ে দেখা যায় চালক মোবাইলে কথা বলতে বলতে গাড়ি চালাচ্ছিলেন। পরবর্তী সময়ে গোটা রাজ্য থেকে বেশ কয়েকটি এমন অভিযোগ আসে। তার পরেই ফোনে কথা বলতে বলতে গাড়ি চালানোয় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। কিন্তু চালকদের যে তাতে হুঁশ ফেরেনি ইন্দ্রনাথ তালুকদারের ঘটনা সে দিকেই ইঙ্গিত করছে। রাজ্য পরিবহণ দফতরের তরফ থেকে জানানো হচ্ছে, এবার থেকে পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে ফের অভিযানে নামবে তারা। ধরা পড়লে কড়া শাস্তিরও ব্যবস্থা থাকবে। তবে অনেকেরই প্রশ্ন যে ঘটনা মন্ত্রীর নজরে আসে সে ঘটনা পুলিশের কেন নজরে আসেনা?

ABIR GHOSHAL
Published by: Ananya Chakraborty
First published: January 15, 2020, 5:57 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर