• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • কী বলছে আজকের খবরের কাগজ ? দেখে নিন

কী বলছে আজকের খবরের কাগজ ? দেখে নিন

প্রতিদিনের ব্যস্ততায় খবর কাগজ খুঁটিয়ে পড়া সম্ভব হয় না ৷ অনেক সময় গুরুত্বপূর্ণ খবর চোখ এড়িয়ে যায় ৷

প্রতিদিনের ব্যস্ততায় খবর কাগজ খুঁটিয়ে পড়া সম্ভব হয় না ৷ অনেক সময় গুরুত্বপূর্ণ খবর চোখ এড়িয়ে যায় ৷

প্রতিদিনের ব্যস্ততায় খবর কাগজ খুঁটিয়ে পড়া সম্ভব হয় না ৷ অনেক সময় গুরুত্বপূর্ণ খবর চোখ এড়িয়ে যায় ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    প্রতিদিনের ব্যস্ততায় খবর কাগজ খুঁটিয়ে পড়া সম্ভব হয় না ৷ অনেক সময় গুরুত্বপূর্ণ খবর চোখ এড়িয়ে যায় ৷ তাছাড়া একাধিক কাগজও পড়ার মতো সময় কারোর হাতেই নেই ৷ তাই আসুন এক নজরে, একজায়গায় দেখে নিন কলকাতার বিভিন্ন কাগজের সেরা খবর গুলি ৷ শনিবারের গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি হল-

    anandabazar11

    ১)গালিব-বচ্চন টেনে মোদীকে খোঁচা রাহুলের মির্জা গালিব থেকে বশির বদর হয়ে পিতৃবন্ধু বিগ বি! নোট বাতিলের জেরে তৈরি হওয়া পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আক্রমণ করতে গিয়ে প্রতিদিনই নতুন নতুন অস্ত্রে শান দিচ্ছেন রাহুল গাঁধী। গত কাল উত্তরপ্রদেশের বাহরাইচের সভায় মোদীর বিদ্রুপের পাল্টা দিতে উদ্ধৃত করেছিলেন মির্জা গালিবের কবিতা। আজ উত্তরাখণ্ডের আলমোড়ায় মোদীর বিরুদ্ধে দেশের ৯৯ শতাংশ ‘গরিব এবং সৎ’ লোকের অর্থ লুঠ করার অভিযোগ এনে অমিতাভ বচ্চন অভিনীত ফিল্মের একটি গান সামান্য বদলে বললেন, ‘‘রাম রাম জপনা গরিব কা মাল আপনা!’’ তার পরেই উর্দু কবি বশির বদরকে উদ্ধৃত করে বলেছেন, ‘‘লোগ টুট যাতে হ্যায় এক ঘর বানানে মে, তুম তরস নেহি খাতে বস্তিয়ো জ্বালানে মে।’’

    ২) গাড়ি আটকে কব্জায় ব্যবসায়ীর চার কোটি পরিবারের লোকজনকে নিয়ে এক ব্যবসায়ী ব্যাঙ্কে যাচ্ছিলেন। ব্রেবোর্ন রোডে ব্যাঙ্কের সামনে গাড়ি থামতেই ঘিরে ধরলেন কিছু লোক। গাড়িতে চালক ছাড়া বাকি যে-চার জন ছিলেন, নামিয়ে আনা হল তাঁদের সকলকেই। সেই সঙ্গে নামানো হল পাঁচ-পাঁচটি ব্যাগ। গাড়িতে চাপিয়ে আগন্তুকেরা নিয়ে গেলেন ব্যবসায়ী এবং তাঁর সঙ্গীদের। সঙ্গে গেল পাঁচটি ব্যাগও। কোনও ডাকাতি বা রাহাজানির ঘটনা নয়। ওই ব্যবসায়ীর জন্য ব্যাঙ্কের সামনে ওত পেতেছিলেন আয়কর অফিসারেরা। শুধু ফাঁদ পাতা নয়, ব্যবসায়ীর গাড়ির পিছনে পিছনে ধাওয়া করছিল আয়করের একটি গাড়ি। যদি ব্যাঙ্কে না-গিয়ে ব্যবসায়ী অন্য কোথাও চলে যান, সেই জন্যই এই সাবধানতা। আয়কর দফতর জানাল, গাড়ি থেকে বাজেয়াপ্ত করা পাঁচটি ব্যাগে ওই ব্যবসায়ী তিন কোটি ৮৬ লক্ষ টাকার বাতিল নোট নিয়ে যাচ্ছিলেন। আগে থেকে খবর পেয়ে ব্যবসায়ীকে নজরে রেখেছিলেন আয়কর দফতরের অফিসারেরা।

    ৩)জ্ঞানপীঠ পুরস্কারে সম্মানিত হলেন শঙ্খ ঘোষ জ্ঞানপীঠ পুরস্কারে সম্মানিত হলেন শঙ্খ ঘোষ। কুড়ি বছর আগে এই পুরস্কার পেয়েছিলেন মহাশ্বেতা দেবী। তার পর বাঙালির ভাগ্যে আর শিকে ছেঁড়েনি। কয়েক মাস আগেই বেরিয়েছে তাঁর সাম্প্রতিক কাব্যগ্রন্থ ‘শুনি শুধু নীরব চিৎকার’। দিন চারেক আগে ‘নিরহং শিল্পী’ নামে এক গদ্যগ্রন্থও। চুরাশি বছর বয়সেও সমান তাজা। কবিতা, স্মৃতিকথার পাশাপাশি লিখে যান হরেক প্রবন্ধ। নন্দীগ্রাম বা কামদুনি পর্বে নেমে আসেন বাস্তব রাজনীতির মাটিতেও। মনে পড়ে যায়, বিভিন্ন সাহিত্যবর্গে অবাধ বিচরণ, মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে ‘নাইট’ উপাধি ত্যাগ, উন্মত্ত জাতীয়তাবাদের বিরোধিতা করা আর এক বাঙালির কথা।

    ৪) যুব এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন ভারত, দ্রাবিড়ের মুকুটে আর এক পালক ভারত ‘এ’ ও যুব দলের (অনূর্ধ্ব ১৯) কোচ হিসেবে তিনি দায়িত্ব নেওয়ার সময়ই ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা অনেকেই বলেছিলেন, ভারতীয় ক্রিকেটে এ বার একটা দুর্দান্ত ‘সাপ্লাই লাইন’ তৈরি হতে চলেছে তাঁর হাত ধরে। রাহুল দ্রাবিড় সম্পর্কে কথাগুলো যে ভুল ছিল না, তা শুক্রবার ফের একবার বোঝা গেল ভারতের যুব দলের এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ায়। কলম্বোর প্রেমদাসা স্টেডিয়ামে শুক্রবার ফাইনালে শ্রীলঙ্কাকে ৩৪ রানে হারিয়ে অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন হল ভারত। এই নিয়ে টানা তিন বার এই খেতাব জিতল ভারতের ছোটরা। ওপেনার হিমাংশু রানার ৭১ ও শুভম গিলের ৭০-ই ভারতকে ২৭৩-এর ইনিংসের ভিত। জবাবে শ্রীলঙ্কার ইনিংস শেষ হয়ে যায় ২৩৯ রানে।

    bartaman_big11

    ১) নোটকাণ্ডে ফের মোদির সঙ্গে রাজ্যের তীব্র সংঘাত, আয়কর তল্লাশিতে আধাসেনা প্রত্যাহার চেয়ে কেন্দ্রকে মমতা আয়কর বিভাগের আধিকারিকদের তল্লাশি অভিযানে কেন্দ্রীয় বাহিনীর (সিআরপিএফ) জওয়ানদের রাখা নিয়ে এবার নরেন্দ্র মোদির সরকারের সঙ্গে বিরোধ বাধল রাজ্যের। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শুক্রবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংকে কড়া ভাষায় চিঠি পাঠিয়ে অবিলম্বে আয়কর তল্লাশি থেকে সিআরপিএফ জওয়ানদের সরিয়ে নেওয়ার জন্য দাবি জানিয়েছেন। চিঠিতে মুখ্যমন্ত্রী অভিযোগ করেছেন, কেন্দ্রীয় সরকারের এই সিদ্ধান্ত পুরোপুরি অসাংবিধানিক, বেআইনি এবং সহযোগিতামূলক যুক্তরাষ্ট্রীয় ব্যবস্থার পরিপন্থী। পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী এও জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সরকারের এজেন্সিগুলি কোনও আইনি কাজে রাজ্য সরকার বা পুলিশের সাহায্য চাইলে তা দেওয়া হবে। তাৎপর্যপূর্ণভাবে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে লেখা এই চিঠির কপি দেশের সব মুখ্যমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার কীভাবে দেশের যুক্তরাষ্ট্রীয় ব্যবস্থার উপর আঘাত হানছে, সেটা সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরার জন্য মমতা এটা করেছেন বলে প্রশাসনিক মহল মনে করছে। আয়কর বিভাগ সূত্রে অবশ্য দাবি করা হয়েছে, আইন অনুযায়ী, কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের তল্লাশি অভিযানে রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। রাজ্যের পুলিশের সাহায্য না পাওয়ায় কেন্দ্রীয় বাহিনীকে নিতে হয়েছে। যদিও নবান্ন এই অভিযোগ মানতে নারাজ।

    ২) হাসপাতালে ভরতি রূপা গঙ্গোপাধ্যায় অসুস্থ বোধ করায় শুক্রবার বিকালের দিকে সল্টলেকের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি করা হল রাজ্যসভার এমপি তথা বিজেপি নেত্রী অভিনেত্রী রূপা গঙ্গোপাধ্যায়কে। নিউরোসার্জেন ডাঃ জি আর বিজয় কুমারের অধীনে হাসপাতালের ৮২৭ নম্বর সুইটে ভরতি করা হয়েছে তাঁকে। এমআরআইসহ প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তাঁর মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বাঁধার চিহ্ন বা হেমাটোমা ধরা পড়েছে।

    ৩) এবার ৩ সমবায় ব্যাংকে হানা ইডি আধিকারিকদের, ক্ষুব্ধ রাজ্য সরকারি-বেসরকারি ব্যাংক, সোনার দোকানের পর এবার কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের (ইডি) নজরে রাজ্য সমবায় ব্যাংক। শুক্রবার রাজ্যের তিন জেলার তিনটি সমবায় ব্যাংকে ‘হানা’ দেন ইডি’র তদন্তকারীরা। তবে তাদের পক্ষ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, সমবায় ব্যাংকগুলিতে কোনও হানা বা তল্লাশি হয়নি। শুধুমাত্র সেইসব ব্যাংকের বিভিন্ন অ্যাকাউন্টের নথি খতিয়ে দেখা হয়েছে। তবে এই কাজের জন্য সমবায় ব্যাংক কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে আগাম অনুমতি নেওয়া হয়েছে। তারপরই এদিন এই প্রক্রিয়া চালানো হয়। বিশেষ সূত্রের দাবি, কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক থেকে ইডি’কে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, রাজ্যের সমবায় ব্যাংকগুলিতে কাদের অ্যাকাউন্ট রয়েছে, পুরানো ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিল হওয়ার পর সেই সমস্ত অ্যাকাউন্টে কত টাকা জমা পড়েছে , তা খতিয়ে দেখার জন্য। উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি গত ৮ নভেম্বর দেশজুড়ে ৫০০ এবং ১০০০ টাকার নোট বাতিলের কথা ঘোষণা করেন। বলা হয়েছিল, পুরানো ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট ব্যাংকে জমা করা যাবে।

    ৪) ১৫ কোটি টাকা তোলা চেয়ে শহরের শিল্পপতিকে হুমকি ১৫ কোটি টাকা তোলা চেয়ে কলকাতার একজন শিল্পপতিকে হুমকি দিল একদল দুষ্কৃতী। গত ৯ ডিসেম্বর আলিপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই শিল্পপতি। যার ভিত্তিতে তোলাবাজির চেষ্টা, হুমকি, জালিয়াতি, অপরাধমূলক ষড়যন্ত্রের মতো একাধিক জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। কলকাতা পুলিশের এক বিশ্বস্ত সূত্রে এখবর জানা গিয়েছে। শহরের অভিজাত এলাকা আলিপুরের পার্ক প্লেসের বাসিন্দা বিশিষ্ট শিল্পপতি দীপক গোয়েল পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগে জানিয়েছেন, নভেম্বর মাসের গোড়ায় ঘটনার সূত্রপাত। দুষ্কৃতীরা তাঁকে জম্মু-কাশ্মীরে একটি খুনের চেষ্টার (৩০৭ ধারা) মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ১৫ কোটি টাকা দাবি করে।

    First published: