• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • TMC WHIP TRINAMOOL CONGRESS ISSUES WHIP TO MLAS FOR MANDATORY PRESENCE IN ASSEMBLY SESSION SANJ

TMC Whip : বিধায়কদের প্রতি হুইপ জারি করল তৃণমূল কংগ্রেস, ২০৯ জনের উপস্থিতি বাধ্যতামূলক!

উপস্থিতি বাধ্যতামূলক Photo : File Photo

দুপুর পৌনে দুটোর মধ্যে ২০৯ জন বিধায়ককে বিধানসভায় পৌঁছতেই হবে, এমনটাই জানাচ্ছেন তৃণমূলের পরিষদীয় দলের মুখ্য সচেতক নির্মল ঘোষ (Nirmal Ghosh)।

  • Share this:

    #কলকাতা : তৃণমূলের তরফে আজ হুইপ (TMC Whip) জারি করা রয়েছে। দুপুর পৌনে দুটোর মধ্যে ২০৯ জন বিধায়ককে বিধানসভায় পৌঁছতেই হবে, এমনটাই জানাচ্ছেন তৃণমূলের পরিষদীয় দলের মুখ্য সচেতক নির্মল ঘোষ (Nirmal Ghosh)। করোনার জন্য মৃত্যু হয়েছে খড়দহ এবং গোসাবার বিধায়কের। পদমর্যাদা বলে স্পিকার হুইপ এর আওতায় পড়েন না। তাঁকে বাদ দিয়ে বাকি সবাইকেই তৃণমূল (Trinamul Congress) আজ বিধানসভায় (Assembly Session) অধিবেশন কক্ষে চাইছে।

    সপ্তদশ বিধানসভার বাজেট অধিবেশন শুরুর আগের দিন সব বিধায়কদের কাছে নির্দেশ পৌঁছে গিয়েছে। কোনওভাবেই রাশ আলগা করতে চাইছে না শাসক দল। এমনকী উপস্থিতি নিয়ে হুইপ জারি করা হয়েছে। এসএমএস পাঠিয়ে সব বিধায়কদের রাজ্যপালের ভাষণে অধিবেশন শুরুর অন্তত ১৫ মিনিট আগে নির্ধারিত আসনে পৌঁছে যাওয়ার কথা বলা হয়েছে। নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রতিটি বিষয়ে যেন তাঁরা অংশ নেন। এই হুইপ জারিকে একপ্রকার প্রতীকী শক্তি প্রদর্শন হিসেবেই দেখছে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

    রাজভবন নবান্ন সংঘাতের মধ্যে আজ বিধান সভার প্রথম অধিবেশন সেখানে বক্তব্য রাখবেন রাজ্যপাল। রীতি অনুযায়ী রাজ্যপাল সরকার পক্ষের দেওয়া বক্তব্যই রাখেন। কিন্তু গত কয়েক দিনে জৈন হাওয়ালা কাণ্ডে রাজ্য-রাজ্যপাল সম্পর্ক তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। তৃণমূলের পক্ষ থেকে ছবি প্রকাশ করে দেখানো হয়েছে দেবাঞ্জন এর নিরাপত্তারক্ষী অরবিন্দ বৈদ্য রাজ্যপালের কাছেও পৌঁছে গিয়েছে। এই আবহে তৃণমূলের আশঙ্কা রাজ্যপাল বক্তব্যে কাটছাঁট করতে পারেন বা সংযোজন করতে পারেন। বেনজির পরিস্থিতি তৈরি হলে যাতে বিধায়কেরা সকলে নিজেদের স্পষ্ট অবস্থান জানাতে পারে সেই কারণেই হুইপ জারি করেছে তৃণমূল।

    এদিকে, বিরোধী পক্ষ ইতিমধ্যেই সিদ্ধান্ত নিয়েছে, বিধানসভায় গঠনমূলক সহযোগিতার বদলে সংঘাতের রাস্তায় হাঁটবেন তাঁরা। বিধানসভায় এবার মুকুল রায় বিজেপির কাছে কাঁটা হয়ে দাঁড়াতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে। খাতায়–কলমে বিজেপির এই বিধায়কের নাম আবার পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির জন্য তৃণমূল কংগ্রেসোর পক্ষ থেকে প্রস্তাব করা হয়েছে।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: