West Bengal Election: 3rd phase সুজাতার মাথায় বাঁশ দিয়ে আঘাত, উলুবেড়িয়ায় ইভিএম কারচুপি! কমিশনে অভিযোগ তৃণমূলের

West Bengal Election: 3rd phase সুজাতার মাথায় বাঁশ দিয়ে আঘাত, উলুবেড়িয়ায় ইভিএম কারচুপি! কমিশনে অভিযোগ তৃণমূলের

কমিশনে অভিযোগ তৃণমূলের

কর্মীদের মার খাওয়ার পরপরই আরান্দিতে চলে যান সুজাতা। সেখান বিজেপি কর্মীদের ঘেরাও, হামলার মুখে পড়েন তিনি।

  • Share this:

    #কলকাতা: বিধানসভা নির্বাচন শুরু করার কিছুদিন আগেই বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন সুজাতা মণ্ডল (খাঁ)। তৃণমূলে তিনি আরামবাগ বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী। আজ তৃতীয় দফার নির্বাচনে আরামবাগে ভোট প্রক্রিয়া নিয়ে বেশ কিছু অভিযোগ তোলেন সুজাতা। তৃণমূল এজেন্টদের বুথে ঢুকতে না দেওয়া, ইভিএম কারচুপির অভিযোগ আনেন তিনি। এমনকি দাবি করেন আরান্দিতে তৃণমূল কর্মীদের মারধরও করা হচ্ছে।

    কর্মীদের মার খাওয়ার পরপরই আরান্দিতে চলে যান সুজাতা। সেখান বিজেপি কর্মীদের ঘেরাও, হামলার মুখে পড়েন তিনি। এই বিষয়টি নিয়ে তৃণমূল নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ জানালো। অভিযোগে জানানো হয়, বিজেপির গুন্ডারা হুগলির আরান্দির মহল্লাপাড়ায় তৃণমূল প্রার্থী সুজাতার উপরে হামলা করেছে।

    অভিযোগে আরও বলা হয়েছে সুজাতার ব্যক্তিগত নিরাপত্তা আধিকারিক এই হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন। তাঁর মাথায় জোরে আঘাত করার ফলে অবস্থা গুরুতর বলে অভিযোগ। সুজাতার মাথায়ও বাঁশ দিয়ে আঘাত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তৃণমূল।

    নির্বাচন কমিশনের কাছে তৃণমূলের অভিযোগ, এই ঘটনার সময় কেন্দ্রীয় বাহিনীও যথাযথ পদক্ষেপ করেনি। তারা নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছিলেন বলেই অভিযোগ তৃণমূলের। সুজাতার উপর হামলা হওয়ার ভিডিও-ও তৃণমূল কমিশনকে পাঠিয়েছে।

    উলুবেড়িয়ায় ইভিএম কারচুপি নিয়েও কমিশনের কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম। ফিরহাদ কমিশনকে বিজেপির পক্ষপাতদুষ্ট বলেও দাবি করেছেন।

    প্রসঙ্গত, আরান্দিতে পৌঁছলেই সুজাতাকে ঘিরে ধরেন বিজেপি কর্মীরা। কিন্তু হামলার মুখেও সুজাতা বলেন, পালটা হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, 'তোরা বদমাইশি করছিস! বেরিয়ে আয়, লুকিয়ে পড়েছিস কেন, সামনে আয়!'

    সুজাতা বলেন, 'আমি একলা মেয়ে বলে আমার উপর হামলা চালিয়েছে বিজেপি। আমার মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে, কোমরে মেরেছে। কিন্তু আমি দেখে নেব বিজেপিকে। আরামবাগে আমিই জিতব।'

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: