Rajeev Kumar Update: ফের সুপ্রিম কোর্টে ২ সপ্তাহের জন্য পিছিয়ে গেল রাজীব কুমার-মামলার শুনানি

Rajeev Kumar Update: ফের সুপ্রিম কোর্টে ২ সপ্তাহের জন্য পিছিয়ে গেল রাজীব কুমার-মামলার শুনানি
সারদা মামলায় রাজ্যের বিশেষ তদন্তকারী দলের প্রধান ছিলেন রাজীব কুমার৷ সেই সূত্রেই এই কাণ্ডে তাঁকে জেরা করা প্রয়োজন বলে বার বার দাবি করেছে সিবিআই৷

সারদা মামলায় রাজ্যের বিশেষ তদন্তকারী দলের প্রধান ছিলেন রাজীব কুমার৷ সেই সূত্রেই এই কাণ্ডে তাঁকে জেরা করা প্রয়োজন বলে বার বার দাবি করেছে সিবিআই৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: দু’‌সপ্তাহের জন্য পিছিয়ে গেল রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে মামলার শুনানি। সারদা-মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে হেফাজতে চেয়ে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানায় সিবিআই। তার প্রেক্ষিতেই আজ শুনানি হওয়ার কথা ছিল।

    রাজীবের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল সিবিআই-এর সঙ্গে অসহযোগিতা ও আদালত অবমাননার। আজ মঙ্গলবার রাজীব কুমার মামলা সুপ্রিম কোর্টে ওঠার কথা ছিল । কাকতালীয় ভাবে আজই কয়লা পাচার কাণ্ডে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে গিয়ে সাংসদ পত্নী রুজিরাকে জিজ্ঞাসাবাদ করার কথা সিবিআই-এর৷ আর সেই সময়েই রাজীব কাণ্ডের শুনানি হওয়ার কথা ছিল বিচারপতি এস আব্দলু নজির ও সঞ্জীব খান্নার বেঞ্চে। অবশ্য তালিকায় দ্বিতীয় নম্বরে থাকায় আজ শুনানি না হওয়ারও সম্ভাবনা ছিল প্রথম থেকেই। এর আগেও বেশ কয়েকবার এই মামলার শুনানি হয়নি। কিন্তু আজ অভিষেকের বাড়িতে সিবিআই প্রতিনিধিদের যাওয়ার দিনে যদি সিবিআই-এর রাজীবকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের আবেদনে সুপ্রিম কোর্ট সাড়া দিত, তবে নতুন করে হইচই শুরু হত এ কথা অনস্বীকার্য।

    সারদা মামলায় রাজ্যের বিশেষ তদন্তকারী দলের প্রধান ছিলেন রাজীব কুমার৷ সেই সূত্রেই এই কাণ্ডে তাঁকে জেরা করা প্রয়োজন বলে বার বার দাবি করেছে সিবিআই৷ এর আগে অবশ্য সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনেই ২০১৯ সালে শিলংয়ে সিবিআই-এর জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হয়েছিলেন রাজীব কুমার৷ কিন্তু তারপরেও সারদা কাণ্ডে আরও তথ্য পেতে রাজীব কুমারকে জেরা করা প্রয়োজন বলেই দাবি কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার৷


    সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টে এ বিষয়ে একটি হলফনামাও দিয়েছে সিবিআই। ২৭৭ পাতার সেই হলফনামায় সিবিআই দাবি তুলেছে রাজীব বারংবার সারদার টাকা ও সুবিধে নেওয়া বেশ কয়েকজন উচ্চপদস্থ ব্যক্তিদের আড়াল করার চেষ্টা করেছেন।

    রাজীবকে পেতে মরিয়া সিবিআই একটি টিম ২০১৯ সালে কলকাতায় আসে। রাজীব ধরা দেননি, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অমান্য করারও অভিযোগ ওঠে রাজীবের বিরুদ্ধে। কেন্দ্র রাজ্য সংঘাত চরমে ওঠে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেই সময় রাস্তায় নামলে। তাঁর ধর্নামঞ্চে রাজীব কুমারের উপস্থিতি নিয়েও বিতর্ক দানা বেঁধেছিল। তারপর গঙ্গা দিয়ে অনেক জল বয়ে গিয়েছিল, রাজীব কাণ্ডের নিষ্পত্তি আজও হয়নি। মরিয়া সিবিআই কবে পারবে রাজীবকে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমোদন জোগাড় করতে, জানতে এখনও দু’সপ্তাহের অপেক্ষা ।

    Published by:Simli Raha
    First published:

    লেটেস্ট খবর