কন্যাশ্রীদের জন্য সুখবর, ৭৫০ থেকে ভাতা বেড়ে হল ১০০০ টাকা

কন্যাশ্রীদের জন্য সুখবর, ৭৫০ থেকে ভাতা বেড়ে হল ১০০০ টাকা

Photo Collected

মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প কন্যাশ্রী। দেশ ছাড়িয়ে নিজগুণে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায় করে নিয়েছে এই প্রকল্প।

  • Share this:

    #কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প কন্যাশ্রী। দেশ ছাড়িয়ে নিজগুণে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায় করে নিয়েছে এই প্রকল্প। কন্যাশ্রীর উৎসাহকে পাথেয় করে আরও দুটি নতুন সামাজিক প্রকল্পকে এবারের বাজেটে অন্তর্ভুক্ত করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গরিব পরিবারগুলি মেয়েদের বিয়ে দিতে গিয়ে বহুক্ষেত্রেই সর্বস্বান্ত হয়। অনেকে বিয়ের টাকা জোগাড়ও করতে পারেন না। এবার তাদের পাশে দাঁড়াতেই মুখ্যমন্ত্রীর নতুন প্রকল্প রূপশ্রী। বাজেটে প্রস্তাব,

    কন্যাশ্রী প্রকল্পে মেয়েদের প্রতিমাসে সাড়ে সাতশো টাকা করে বৃত্তি দেওয়া হয়। এবার বাজেটে সেই বৃত্তির অঙ্ক এক হাজার করার প্রস্তাব করা হয়েছে। বিশেষভাবে সক্ষমদের জন্য সরকারি ভাতার ব্যবস্থা ছিলই। কিন্তু যাঁদের প্রতিবন্ধকতা বেশি তাদের জন্য মানবিক নামে নতুন প্রকল্প হাতে নিচ্ছে সরকার। বাজেটে প্রস্তাব করা হয়েছে,

    - যাঁদের প্রতিবন্ধকতা ৫০ শতাংশের বেশি তাঁরাই এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন

    - ছাত্রীদের বার্ষিক বৃত্তি বাড়ানো হল’ ‘৭৫০ থেকে বাড়িয়ে ১ হাজার টাকা হল

    রাজ্য বাজেটে ফের চমক। রূপশ্রী ও মানবিক। সামাজিক সুরক্ষা বৃদ্ধির লক্ষ্যে দুটি নতুন প্রকল্প ঘোষণা করল সরকার। দুটি প্রকল্পই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মস্তিষ্ক প্রসূত। রূপশ্রী প্রকল্পে সাবালক মেয়ের বিয়ের জন্য গরিব পরিবারগুলি এককালীন পঁচিশ হাজার টাকা আর্থিক সাহায্য পাবে। মানবিক প্রকল্পে মাসে এক হাজার টাকা করে বাড়তি আর্থিক সাহায্য পাবেন বিশেষভাবে সক্ষম মানুষেরা।

    - ১.৫ লক্ষ টাকার কম বার্ষিক আয়ের পরিবারকে মেয়ের বিয়ের জন্য এককালীন ২৫ হাজার টাকা দেবে সরকার

    - ৬ লক্ষ পরিবার এই প্রকল্পের জেরে উপকৃত হবেন - এই প্রকল্পের রাজেট বরাদ্দ ১৫০০ কোটি টাকা

    আগামী অর্থবর্ষে বাজেটে ব্যয় বরাদ্দ দু লক্ষ চোদ্দ হাজার নশো আটান্ন কোটি টাকা করার প্রস্তাব দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র।

    First published: