• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • SPECULATION PROVEN WRONG BJP CHOSEN PAYEL SARKAR OVER SOVON CHATTERJEE AKD

রত্নার উল্টোদিকে শোভন নন পায়েল! প্রস্তাব থাকলেও অন্য কেন্দ্রে না শোভনের...

শোভন চট্টোপাধ্যায় নয়, বেহালা পূর্বে বিজেপির প্রার্থী পায়েল সরকার।

শোনা যাচ্ছে, এই সিদ্ধান্তে খুশি নন শোভন চট্টোপাধ্য়ায়।

  • Share this:

    #কলকাতা: বহু রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকের ভাবনাই ভুল প্রমাণিত হল। বেহালা পূর্ব আসনে শোভন চট্টোপাধ্যায়কে প্রার্থী করল না বিজেপি। বরং ভূমিকন্যা তথা তৃণমূল প্রার্থী রত্না চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে লড়াইয়ে বিজেপি এগিয়ে দিল পায়েল সরকারকে।  আর এই সিদ্ধান্তেই নতুন করে বিজেপির সঙ্গে শোভন-বৈশাখী জুটির সংঘাতের আবহ তৈরি হচ্ছে । কারণ শোনা যাচ্ছে, এই সিদ্ধান্তে খুশি নন শোভন  চট্টোপাধ্য়ায়।

    আজ বিজেপির দুই দফার প্রার্থীতালিকা প্রকাশিত হওয়ার পরেই বৈশাখী বন্দ্য়োপাধ্যায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, "শোভন চট্টোপাধ্যায়কে অন্য কেন্দ্র থেকে লড়াই করার প্রস্তাব দিয়েছে দল। কিন্তু তাতে শোভন রাজি নন। সর্বাত্মক প্রচারের পরেও কেন বেহালা পূর্বে দুঁদে রাজনীতিবিদ শোভনের বদলে  নবাগতা পায়েল? এই নিয়ে অবশ্য কিছু বলতে রাজি হননি বৈশাখী বন্দ্য়োপাধ্যায়। তিনি বলেন, "সাংবাদিক বৈঠক করে শিগগিরই যা জানানোর জানাবেন শোভন চট্টোপাধ্যায়।"

    বেহালার প্রতিটি পাড়া হাতের তালুর মতো চেনা শোভন চট্টোপাধ্যায়ের।  তাছাড়া দক্ষিণ চব্বিশ পরগণায় দখলদারি বাড়াতে তাঁর সাংগঠনিক দক্ষতা বিজেপির একান্তই প্রয়োজন, একথা প্রশ্নাতীত। তাহলে কেন চেনা ব্যাটলগ্রাউন্ডে শোভনের বদলে পায়েল, একাধিক ব্যখ্যা উঠে আসছে এই প্রশ্নে। একদল বলছেন, এখনও ভবানীপুর কেন্দ্রের প্রার্থী ঘোষণা করেনি বিজেপি। সেখানে শোভন চট্টোপাধ্যায়েকে প্রার্থী করে চমকে দিতে পারে বিজেপি। মমমতার গড়ে এবার তৃণমূলের প্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়। তাঁর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ময়দানে নামতে পারেন অতীতের সহযোদ্ধা কানন। কিন্তু সেই তত্ত্ব নস্য়াৎ হয়ে যাচ্ছে বৈশাখী বার্তাতেই, যেখানে তিনি স্পষ্টই জানাচ্ছেন কোনও ভাবেই অন্যত্র লড়তে রাজি নন শোভন।

    প্রসঙ্গত দিন কয়েক আগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বেহালার এই কেন্দ্রে প্রার্থী দেওয়ার সময়ে বলেছিলেন, নারীসুরক্ষার প্রশ্নে এই মনোনয়ন। মুখে একদা প্রিয় কাননের নামে কোনও বিরূপ মন্তব্য না করলেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মমতার ভঙ্গিমাটা ছিল যেন শোভনের প্রতিটি পদক্ষেপের উত্তর রত্নাই। এর আগে বিজেপির তরফে শোভনের নাম এই কেন্দ্রে নেওয়া হবে কিনা তাই নিয়ে যখন প্রবল জল্পনা বাতাসে ভাসছে, তখনই বেহালায় পা রাখেন শোভন। সেই লিটমাস টেস্ট দৃশ্যত খুব সুন্দর হয়নি। রোড শো আটকে, পথে নেমে কালো পতাকা দেখায় তৃণমূল কর্মীরা।  রাজনৈতিক মহলের একাংশের মত, শোভনের জনপ্রিয়তা যেমন রয়েছে, তাঁর ব্যক্তিগত জীবন, বিবাহে ভাঙনের ঘটনা বেহালার খাসতালুকে হাতিয়ার হতে পারে রত্না- ব্রিগেডের। আর এই জায়গা থেকেও শোভনকে অন্যত্র দাঁড় করানোর প্রস্তাব দিয়ে থাকতে পারে বিজেপি । আর এই প্রস্তাব ঘিরেই নতুন করে অশান্তির মেঘ জমছে গেরুয়া শিবিরে।

    সেদিক থেকে পায়েলের টলিউড যোগ, জনপ্রিয়তা, বিজেপির হাতিয়ার। শুধু পায়েলই নয়, বিজেপির প্রার্থীতালিকায় নাম এসেছে যশ দাশগুপ্ত, তনুশ্রী চক্রবর্তীরও।  ভোটযুদ্ধে তারকামুখ ব্যবহার তৃণমূলের পুরনো অস্ত্র।  বিজেপি এই অস্ত্রে শান দিয়ে লাভের ফসল ঘরে তুলতে পারবে কিনা তা জানতে অপেক্ষা আর ৪৯ দিনের।

    Published by:Arka Deb
    First published: