corona virus btn
corona virus btn
Loading

Coronavirus|করোনা সংক্রমণ রোধে কী প্রয়োজনীয়, রাজ্যকে পরামর্শ দিতেই দ্বিতীয় কেন্দ্রীয় দল

Coronavirus|করোনা সংক্রমণ রোধে কী প্রয়োজনীয়, রাজ্যকে পরামর্শ দিতেই দ্বিতীয় কেন্দ্রীয় দল
করোনা পরিস্থিতি দেখতে রাজ্যে দ্বিতীয় দল

কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের প্রথম দলটি আজ রাজ্য ছাড়ার আগে দলের প্রধান অপূর্ব চন্দ্রা রাজ্যের মুখ্যসচিবকে লেখা কড়া চিঠিতে ফের রাজ্যের বিরুদ্ধে অসহযোগিতার অভিযোগ সহ করোনা নিয়ে নানান বিষয়ে সরব হন।

  • Share this:

#কলকাতা :  উত্তরবঙ্গ এবং কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল যারা প্রথমে রাজ্যে এসেছিল তারা মূলত করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখা এবং লকডাউন ঠিক ভাবে মানা হচ্ছে কিনা তার মূল্যায়ন করার জন্য এসেছিল।

আজ, সোমবার  কেন্দ্রের তরফে যে দ্বিতীয় বিশেষ কেন্দ্রীয় দল কলকাতায় আসছে তারা করোনা  সংক্রমণ রোধে কী কী  করা প্রয়োজন সে ব্যাপারে রাজ্য সরকার তথা স্বাস্থ্য দফতরকে পরামর্শ দেবে। সাহায্য করবে বলেই খবর । আজকে কলকাতায় আসা দলটির কলকাতা বা অন্য কোথাও গিয়ে সরেজমিনে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার সম্ভাবনা কম। কলকাতার জন্য নিযুক্ত দলে থাকছেন অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব হাইজিন অ্যান্ড পাবলিক হেলথ-এর প্রধান মধুমিতা দোবে এবং  জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ লীনা বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়াও দলে থাকবেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ, চিকিৎসক, ভাইরোলজিস্টরাও বলে বিশ্বস্ত সূত্রের খবর। আজকে যে দলটা কলকাতায় আসছে তারা সম্ভবত আগামিকাল অর্থাত্‍ মঙ্গলবার রাজ্য প্রশাসন তথা স্বাস্থ্য দপ্তরের কর্তাদের সঙ্গে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে পর্যালোচনা  বৈঠকে বসবেন। সূত্রের খবর

কেন্দ্রের মতে দেশের কুড়িটি জেলার করোনা  পরিস্থিতি উদ্বেগের। সেই তালিকায় নাম রয়েছে কলকাতারও। সেই কারণেই কলকাতা সহ অন্যান্য জায়গাতেও এই ধরনের কেন্দ্রীয় বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধিদল রাজ্য সরকারকে সাহায্য করার জন্য পাঠানোর সিদ্ধান্ত।

এদিকে কেন্দ্রীয় দল রাজ্যে আসা এবং কেন্দ্রীয় দলের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে রাজ্য সরকারের সঙ্গে মতবিরোধ চরমে ওঠে রাজ্যের । রেড জোন নিয়েও  অবিলম্বে বিভ্রান্তি দূর করুক কেন্দ্র। কেন্দ্রকে রীতিমতো চিঠি লিখে আগেই জানিয়েছেন মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা।  রেড জোন নিয়ে কেন্দ্রের মূল্যায়ন ঠিক নয়। কেন্দ্রকে চিঠি দিয়ে প্রতিবাদও জানায় রাজ্য।  রেড জোন নিয়ে সুর চড়াল তৃণমূলও।

নবান্নের মতে,  'রীতিমতো কেন্দ্রীয় সচিবের সঙ্গে বৈঠক করে, তাদের দেওয়া মাপকাঠি অনুযায়ী রাজ্যের চার  জেলাকে রেড জোনে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। আচমকাই সেই  তালিকা নস্যাৎ করে, কেন্দ্র ১০ জেলাকে রেড  জোন হিসেবে চিহ্নিত করে। যা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।' কেন্দ্রের সঙ্গে এই বিষয় নিয়েও বিরোধ দেখা যায় রাজ্যের। তথ্য, পরিসংখ্যানের ভিত্তিতে, রাজ্যের জেলাগুলিকে  রেড,  অরেঞ্জ ও গ্রিন জোনে  চিহ্নিত করা হয়েছে।'

কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের প্রথম দলটি আজ রাজ্য ছাড়ার আগে দলের প্রধান অপূর্ব চন্দ্রা রাজ্যের মুখ্যসচিবকে লেখা কড়া  চিঠিতে ফের রাজ্যের বিরুদ্ধে অসহযোগিতার অভিযোগ সহ করোনা  নিয়ে নানান  বিষয়ে সরব হন।

এদিকে  প্রথম কেন্দ্রীয় দল সোমবার  রাজ্য ছাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই এদিনই দিল্লি থেকে দ্বিতীয় কেন্দ্রীয় বিশেষ প্রতিনিধি দল করোনা  পরিস্থিতি সংক্রান্ত ব্যাপারে কলকাতায় আসায়  নতুন করে রাজ্য ও কেন্দ্রের মধ্যে কোনও  বিরোধ  সৃষ্টি হয় কিনা তার উত্তর দেবে সময়ই।

VENKATESWAR  LAHIRI

First published: May 4, 2020, 3:44 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर