Home /News /kolkata /
Sealdah Metro: শিয়ালদহ স্টেশনেই লক্ষ্মী লাভ মেট্রোর

Sealdah Metro: শিয়ালদহ স্টেশনেই লক্ষ্মী লাভ মেট্রোর

শিয়ালদহ স্টেশনেই লক্ষ্মী লাভ মেট্রোর

শিয়ালদহ স্টেশনেই লক্ষ্মী লাভ মেট্রোর

শিয়ালদহ মেট্রো চালু হতেই যাত্রী বাড়ল তিনগুণ। 

  • Share this:

আবীর ঘোষাল, কলকাতা: পাতালেই লক্ষ্মী লাভ। শিয়ালদহ স্টেশন (Sealdah Metro) পর্যন্ত মেট্রোর চাকা গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে যাত্রী লাভ। আর তাকে কেন্দ্র করেই মেট্রোর গ্রিন লাইনে বাড়ছে আশা।

২০২০ সালের ফ্রেব্রুয়ারি মাসে চালু হওয়া সেক্টর ফাইভ থেকে সল্টলেক স্টেডিয়াম। ওই একই বছরে ফুলবাগান পর্যন্ত চালু হওয়া মেট্রো যা করে দেখাতে পারেনি, তাই গত দু'দিনে করে দেখাল শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশন।বুধবার পর্যন্ত ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্পে যাত্রী হত গড়ে তিন হাজার করে। যা কোনও ভাবেই এই আধুনিক মানের বা পরিকাঠামোর সঙ্গে যুতসই ছিল না। বরং সপ্তাহে সোম থেকে শনি এই মেট্রো পথে ট্রেন চালিয়ে আর্থিক ক্ষতির বহর ক্রমশ বাড়ছিল। অবশেষে শিয়ালদহ সেই খরা কাটাল।

আরও পড়ুন- দুর্নীতি ইস্যুতে দলীয় মন্ত্রীর বক্তব্য খারিজ বঙ্গ বিজেপির

বৃহস্পতিবার যাত্রী নিয়ে যাত্রা শুরুর প্রথম দিনে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্পে মোট যাত্রী হয়েছিল ৩১ হাজার ৩৭ জন ৷ আর শিয়ালদহ স্টেশন থেকে যাত্রী হয়েছিল ১২৬৮১ জন। শুক্রবার সেই অবস্থার আরও কিছুটা উন্নতি হয়েছে৷ শুক্রবার ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রো পথে যাত্রী হয়েছে ৩১৮৮৩ জন ৷ আর শিয়ালদহ স্টেশন থেকে যাত্রী হয়েছে ১২ হাজার ৮১৮ জন। যা প্রথম দিনের তুলনায় দু’দিক থেকেই বেশি ৷ আর এতেই মুখের হাসি চওড়া হচ্ছে মেট্রো আধিকারিকদের।

এই মুহূর্তে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্পের যা অবস্থা তাতে ১ টাকা আয় করতে গিয়ে খরচ হয়ে যাচ্ছে ৬ টাকা। অপারেটিং রেশিও'র এই বিস্তর ফারাক বেশ চিন্তায় রেখেছে মেট্রো রেলের আধিকারিকদের ৷ যাত্রী না হলে যে সমস্যা মিটবে না তা ভালোই বুঝেছেন আধিকারিকরা৷ তাই যাত্রা শুরুর প্রথম দু'দিনেই হাসি ফুটেছে তাদের। এক আধিকারিকের কথায়, রোগীকে আইসিসিইউ থেকে বার করে জেনারেল বেডে দেওয়া হয়েছে। যে পরিমাণ যাত্রী হচ্ছে তাতে এক ধাক্কায় অপারেটিং রেশিও ৬ থেকে কমে যাবে না। তবে ৩ বা ৪-এ নেমে আসতে পারে। পুরো পথে মেট্রো চালু হলে নিয়ন্ত্রণ হবে অর্থনৈতিক গতিবিধি।

আরও পড়ুন- সহজেই বন্ধু তৈরি হয়? আর কী হয় 'R' দিয়ে নাম শুরু হলে?

মেট্রো রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক একলব্য চক্রবর্তী জানিয়েছেন, “প্রায় ১০ গুণ যাত্রী বেড়েছে। ভবিষ্যতে ৫০ হাজার হবে বলে আশা।’’ ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো সূত্রে খবর, বর্তমানে ১ টাকা রোজগার করতে ৬ টাকা খরচ করতে হয়। শিয়ালদহ মেট্রো চালুর পরই যে লাভের মুখে দেখা যাবে, এমনটা নয়। তবে ক্ষতির বোঝা কমবে। পুরো রুটে মেট্রো চালু হয়ে গেলে এই ছবিটা আরও আশাব্যঞ্জক হবে বলে মনে করছেন মেট্রো কর্তারা। সেক্টর ফাইভ থেকে শিয়ালদহ মেট্রো চালু হওয়ায় যখন আশার আলো দেখছেন মেট্রো কর্তারা তখন, যাত্রী সংখ্যা নিয়ে হতাশ অটোচালকরা।  রবিবার বাদে প্রতিদিন শিয়ালদহ থেকে সেক্টর ফাইভ পর্যন্ত চলবে ১০০টি ট্রেন। মেট্রো কর্তৃপক্ষের আশা, আগামী বছর ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর মানচিত্রে জুড়ে যাবে হাওড়াও।

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: Kolkata Metro Rail, Sealdah Metro

পরবর্তী খবর