উচ্চপ্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের ইন্টারভিউ নিয়ে SSC-এর নয়া সিদ্ধান্ত

চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে সমস্ত বিভাগে শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া সমাপ্ত করার ইচ্ছা থাকলেও মামলার জটের কারণে তা সম্ভবপর হচ্ছে না ৷

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Dec 27, 2016 02:52 PM IST
উচ্চপ্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের ইন্টারভিউ নিয়ে SSC-এর নয়া সিদ্ধান্ত
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Dec 27, 2016 02:52 PM IST

#কলকাতা: আইনি জটে বহুদিন ধরে আটকে ছিল রাজ্যের শিক্ষক নিয়োগ ৷ রাজ্যে উচ্চ প্রাথমিক স্তরে যোগ্য শিক্ষকের অভাবে অচল হয়ে পড়ছে শিক্ষাব্যবস্থা ৷ সব বাধা মুক্ত হয়েও, আবার কিছু সময়ের জন্য পিছিয়ে যাচ্ছে উচ্চপ্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ ৷ তবে এ সিদ্ধান্ত রাজ্য সরকারেরই ৷ উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগের পরই উচ্চ প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ করবে রাজ্য ৷

চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে সমস্ত বিভাগে শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া সমাপ্ত করার ইচ্ছা থাকলেও মামলার জটের কারণে তা সম্ভবপর হচ্ছে না ৷ স্কুলশিক্ষা দফতর সূত্রে খবর, ফেব্রুয়ারি মাসের পরই উচ্চপ্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের ইন্টারভিউ পর্ব শুরু করবে SSC ৷ তার আগে নতুন বছরের শুরুতে অর্থাৎ জানুয়ারির মধ্যে নবম-দশম, একাদশ-দ্বাদশের শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করতে চায় স্কুল সার্ভিস কমিশন ৷

আপার প্রাইমারির মতো উচ্চমাধ্যমিক স্তরেও বহু শিক্ষক পদ শূন্য ৷ তবে উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগকে প্রাধান্য দেওয়ার পিছনে আরও কারণ রয়েছে ৷ উচ্চ প্রাথমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষকের বেতন কাঠামোর মধ্যে অনেকটাই ফারাক রয়েছে ৷ উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগ পরে হলে উচ্চ প্রাথমিকে নিযুক্ত হওয়া শিক্ষকরাও ওই পোস্টে আবেদন করবেন ৷ পরে তারা উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষকের চাকরি পেয়ে গেলে উচ্চ প্রাথমিকে শিক্ষকের পদটি পুনরায় শূন্য হয়ে যাবে ৷ নতুন করে নিয়োগের পরীক্ষা না হওয়া পর্যন্ত ওই পদে কাউকে নিযুক্ত করা যাবে না ৷

এই অসুবিধা এড়াতেই আগে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত শিক্ষক নিয়োগের আগে একাদশ-দ্বাদশ স্তরে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া আগে সম্পূর্ণ করতে চাইছে কমিশন ৷

অন্যদিকে, একাধিক আইনি জটিলতায় নবম-দশম এবং একাদশ-দ্বাদশের শিক্ষক নিয়োগের চুড়ান্ত ফলপ্রকাশ আটকে রয়েছে ৷ নতুন বছরে আদালতের কাজ শুরু হতেই মামলাগুলির দ্রুত নিষ্পত্তির আবেদন করবে SSC ৷ মামলা দ্রুত শেষ করতে আদালতে একাধিক নথি পেশ করবে স্কুল সার্ভিস কমিশন ৷

Loading...

স্কুলশিক্ষা দফতর সূত্রে, জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ নিয়ে যাবতীয় জটিলতার অবসান চায় রাজ্য ৷ সমস্ত মামলার নিষ্পত্তি ঘটলেই সম্ভব হবে রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগের পালা ৷

কমিশন ও পর্ষদের দেওয়া হিসেব অনুযায়ী রাজ্যে শিক্ষকদের জন্য মোট ৫৯,৪৬৮ শূন্যপদ রয়েছে ৷ তবে শিক্ষামন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রী দু’জনেই আগে শূন্যপদ আরও বাড়ার ইঙ্গিত করেছিলেন ৷ পর্ষদ প্রাথমিকের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ দেওয়ার সময়ও প্রাথমিকে শূন্যপদ বেড়ে ৪১ হাজার ৫৫৯ থেকে বেড়ে হয় ৪২,৯৪৯টি ৷ উচ্চ প্রাথমিকে ১৬ হাজার ৫২৯টি শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি আগেই প্রকাশ করেছে স্কুল সার্ভিস কমিশন ৷

First published: 02:52:59 PM Dec 27, 2016
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर