কী বলছে আজকের খবরের কাগজ ? দেখে নিন

কী বলছে আজকের খবরের কাগজ ? দেখে নিন

এক নজরে, একজায়গায় দেখে নিন কলকাতার বিভিন্ন কাগজের সেরা খবর গুলি ৷ শনিবারের গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি হল-

  • Share this:

প্রতিদিনের ব্যস্ততায় খবর কাগজ খুঁটিয়ে পড়া সম্ভব হয় না ৷ অনেক সময় গুরুত্বপূর্ণ খবর চোখ এড়িয়ে যায় ৷ তাছাড়া একাধিক কাগজও পড়ার মতো সময় কারোর হাতেই নেই ৷ তাই আসুন এক নজরে, একজায়গায় দেখে নিন কলকাতার বিভিন্ন কাগজের সেরা খবর গুলি ৷ শনিবারের গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি হল-

anandabazar11

শিল্প সম্মেলনের প্রথম দিনে প্রস্তাবিত বিনিয়োগের অঙ্ক ২৭ হাজার কোটি টাকা

মাঠে নেমেই মেরে খেলা। মঞ্চে প্রথম বক্তা সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের খেলার এই ধাঁচেই শুরু হল রাজ্য সরকার আয়োজিত শিল্প সম্মেলন ‘বেঙ্গল গ্লোবাল বিজনেস সামিট-২০১৭’। সম্মেলনের প্রথম দিনে প্রস্তাবিত বিনিয়োগের অঙ্ক দাঁড়াল প্রায় ২৭ হাজার কোটি টাকা। শুক্রবার এই বিনিয়োগকে দু’হাত বাড়িয়ে স্বাগত জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানালেন, সরকার হিসেবে নয়, বাংলাকে বরং পরিবার হিসেবে গণ্য করুন বিনিয়োগকারীরা। তিনি বলেন, ‘‘আমি আমার ভাই-বোনের কাছে লগ্নি চাইছি।’’ গত বছর মমতা দাবি করেছিলেন, তাঁর সরকার শিল্পপতিদের কর্মী হিসেবে কাজ করবে। এ বার আর এক ধাপ এগিয়ে বিনিয়োগকারীদের ‘পরিবারের’ সদস্য হওয়ার আহ্বান জানালেন তিনি।

মুক্তি চেয়ে মরিয়া ভাঙড়, শুধু গ্রিড নয়, আরাবুলের জমি দখলের বিরুদ্ধে যুদ্ধ

Loading...

গামছায় বারবার চোখের জল মুছছিলেন শেখ সামসুদ্দিন। ‘‘বাপ-ঠাকুরদার জমি চাষ করে খাচ্ছিলাম। ওরাই তো পেটে লাথি মারল। জমি কেড়ে নিল। এখন জনমজুরের কাজ করে পেট চালাচ্ছি।’’ বলতে বলতে উত্তেজনায় থরথর করে কাঁপছিলেন সামসুদ্দিন (নাম পরিবর্তিত)। তাঁকে সান্ত্বনা দিচ্ছিলেন জনা দশেক গ্রামবাসী। ক্ষোভ তাঁদেরও কিছু কম নয়! কাদের বিরুদ্ধে ক্ষোভ? সমস্বরে উত্তর: আরাবুল ইসলাম আর ওঁর দলবল। শুক্রবারের দুপুর। ঘটনাস্থল ভাঙড়ের উড়িয়াপাড়া। তিন দিন আগের তাণ্ডবের জেরে এখনও থমথমে। রাস্তার ধারে বসে সামসুদ্দিনের হাহাকার তাই আরও বেশি করে বাজছিল।

শপথ নিলেন আপনারাই, বললেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প

বাগ্মী বলে খ্যাতি ছিল তাঁর পূর্বসূরির। শপথগ্রহণের পরে প্রেসিডেন্ট হিসেবে তাঁর প্রথম বক্তৃতায় ডোনাল্ড ট্রাম্প বুঝিয়ে দিলেন, তিনিও কম যান না! সমবেত চার প্রাক্তন প্রেসিডেন্টকে (জিমি কার্টার, বিল ক্লিন্টন, জর্জ ডব্লিউ বুশ ও বারাক ওবামা) প্রথাগত ধন্যবাদ জানানোর পরে ৪৫তম মার্কিন প্রেসিডেন্ট সোজা চলে গেলেন ‘কাজের কথায়’। বললেন, ‘‘আজকের এই অনুষ্ঠানের একটি বিশেষ মাত্রা রয়েছে। কারণ, আজ শুধু প্রশাসনের বদল বা কোনও দল থেকে আর একটি দলে ক্ষমতার হাতবদল হল না। আজ ক্ষমতা চলে গেল ওয়াশিংটন থেকে। ক্ষমতা ফিরে পেলেন আপনারা— আমেরিকার সাধারণ মানুষ।’’

স্তন ক্যানসারের বাসা খুঁজে পেতে সস্তার দিশা বাঙালির

চেনাজানা পরীক্ষা-নিরীক্ষার একটাও কাজে আসেনি। ম্যামোগ্রামে কিছু ধরা পড়েনি। হাত দিয়ে টিউমার বোঝা যায়নি। অথচ হাল্কা ব্যথা ছিল। স্তনবৃন্ত থেকে ক্ষরণও হচ্ছিল। এমতাবস্থায় মুশকিল আসান হয়ে এল অপ্রচলিত একটি পরীক্ষা। স্তনের ‘মিল্ক ডাক্টে’ চুলের মতো সরু যন্ত্র ঢুকিয়ে অন্দরের হালহকিকত যাচাই করতেই ধরা পড়ল, স্তনের ভিতরের কোষে বাসা বেঁধেছে ক্যানসার!

bartaman_big11

মমতার হাত ধরেই শিল্পের খরা কাটছে : প্রণব

শুক্রবার সকালে মিলনমেলায় বিশ্ব বঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলনের উদ্বোধনী বক্তৃতায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভূয়সী প্রশংসা করলেন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। তিনি বলেন, এই রাজ্য ঋণগ্রস্ত ছিল। তার মধ্যেই যেভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, তা অবিশ্বাস্য। অতীতের বোঝা সরিয়ে তিনি রাজ্যকে এগিয়ে নিয়ে চলেছেন। রাজ্যের পরিকাঠামোর উন্নতি হয়েছে। সুন্দর রাস্তা তৈরি হয়েছে। গ্রামের ছেলেমেয়েরা স্কুলে যাওয়ার জন্য সাইকেল পেয়েছে। রাজ্যে রাজনৈতিক স্থিরতা রয়েছে। বিনিয়োগের পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। রাজ্যে শিল্পের খরা কাটছে। রাজ্যের রাজস্ব আদায় বেড়েছে। দেশ-বিদেশের শিল্পসংস্থার প্রতিনিধি ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের সামনে রাষ্ট্রপতির প্রশংসা শিল্প সম্মেলনে কয়েক কদম এগিয়ে রাখল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। কথা দিয়েও শেষপর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আপত্তিতে শিল্প সম্মেলনে এলেন না কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। শুধু তিনি নন, কেন্দ্রের কোনও মন্ত্রী এদিনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে হাজির হননি। অথচ গতবছর অরুণ জেটলিসহ চারজন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এসেছিলেন। এবার নোট বাতিল ইস্যুতে নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে মমতার সম্পর্ক অত্যন্ত খারাপ হয়েছে। তার পরিপ্রেক্ষিতেই অরুণ জেটলিসহ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা সম্মেলনে আসেননি বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

কেন্দ্রের অস্বস্তি বাড়িয়ে এবার বিস্ফোরক উর্জিত

নোট বাতিলের জেরে পরিস্থিতি কবে আগের মতো স্বাভাবিক হবে঩ তার দিশা দিতে পারল না রিজার্ভ ব্যাংক (আরবিআই)। কার্যত সরকারকে অস্বস্তিতে ফেলে আজ সংসদীয় কমিটির বৈঠকে খোদ আরবিআই গভর্নর উর্জিত প্যাটেল জানিয়েছেন, পরিস্থিতি ঠিক কবে থেকে স্বাভাবিক হবে তা এখনই বলা সম্ভব নয়। কবে আবার ব্যাংক থেকে নিজের টাকা যত ইচ্ছে তোলা যাবে, তারও কোনও নিশ্চয়তা দিতে পারেননি তিনি। বিস্ফোরক উর্জিত বলেন, নোট বাতিলের অন্তত কয়েক মাস আগেই সরকারের সঙ্গে দেশের প্রধান ব্যাংকের আলোচনা শুরু হয়েছিল। সেই সঙ্গে নোট বাতিল ঘোষণার পর গত ৮ নভেম্বর থেকে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত একটিও জাল টাকা ধরা পড়েনি বলেও সংসদীয় কমিটির কাছে লিখিতভাবে জানিয়ে দিলেন উর্জিত প্যাটেল। এমনকী এ পর্যন্ত ব্যাংকে আদৌ কোনও কালো টাকা জমা পড়েছে কি না, তাও বলতে পারেননি রিজার্ভ ব্যাংক কর্তা। নিশ্চিত জবাব দেওয়ার জন্য তিনি কমপক্ষে ১৫ দিন সময় চেয়েছেন।

জঙ্গি-গুজবে জেলায় জেলায় গণপিটুনি, আক্রান্ত পুলিশও

স্রেফ সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ছড়ানো গুজবের জেরে মাওবাদী সন্দেহে শুক্রবার কালনা শহরে বারুইপাড়ায় পিটিয়ে মেরে ফেলা হল একজনকে। ওই ঘটনায় আরও চারজন বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন। মৃতের নাম অনিল বিশ্বাস(৪৮)। অন্যদিকে, এদিনই গ্রামকালনায় ছেলেধরা সন্দেহে দুই যুবককে বেধড়ক মারধর করে আটকে রাখায় তাদের উদ্ধার করতে গিয়ে আক্রান্ত হয় পুলিশ। গাড়ি ভাঙচুর ও কর্মীদের মারধর করায় পুলিশ রবার বুলেট, কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটায়। নদীয়ার শান্তিপুরেও শুক্রবার একই কারণে দুই মানসিক ভারসাম্যহীনকে বেধড়ক মারধর করা হয়। সম্প্রতি সোস্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক গুজব ছড়ানো হচ্ছে। তাতে ছেলেধরা, মাওবাদী ও জঙ্গিরা ঘুরে বেড়াচ্ছে বলে কেউ কেউ আতঙ্ক ছড়াচ্ছে। এর জেরে গত কয়েকদিনে নদীয়ার রানাঘাট, কৃষ্ণনগর ও কল্যাণী মহকুমা এলাকায় একাধিক ভবঘুরে ও নিরীহ মানুষকে নৃশংসভাবে পেটানো হয়েছে। বৃহস্পতিবারও কালনায় দু’জন সাধারণ মানুষকে মারধর করা হয়।

ক্ষুব্ধ মমতার কড়া বার্তা আরাবুল ও রেজ্জাককে

ভাঙড়ে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতির জন্য মন্ত্রী রেজ্জাক মোল্লা ও দলের নেতা আরাবুল ইসলামের উপর ভয়ংকর ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দলনেত্রীর রোষানলে পড়েছেন ব্লক সভাপতি ওহিদুল ইসলাম ও নান্নু হোসেনরাও। সংশ্লিষ্ট নেতারা সংযত না হলে যে কোনও সময় তাঁদের উপর শাস্তির কোপ নেমে আসতে পারে বলে চরম বার্তা দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেক্ষেত্রে রেজ্জাক মোল্লাকে মন্ত্রিত্ব খোয়াতে হতে পারে বলে দলের শীর্ষ নেতারা ইঙ্গিত দিয়েছেন। পাশাপাশি অশান্ত এলাকায় ওই নেতাদের যাওয়া ও মুখ খুলতে নিষেধ করেছেন দলনেত্রী। দলের সর্বভারতীয় সহ সম্পাদক মুকুল রায় এবং দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের মাধ্যমে মুখ্যমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি জানিয়ে দেওয়া হয়েছে নেতাদের। রেজ্জাক মোল্লার সঙ্গে আরাবুল ইসলামের গোষ্ঠী কাজিয়াই পাওয়ার গ্রিডের বিরুদ্ধে অশান্তির আগুন জ্বলে উঠতে সাহায্য করেছে। তাতে ইন্ধন দিয়ে প্রশাসন ও সরকারের বিরুদ্ধে হাজার হাজার মানুষকে শামিল করেছে বহিরাগত নকশালপন্থীরা। তার জেরে অশান্তি ও গুলিতে দু’জনের মৃত্যু হয়েছে।

ei samay

শিক্ষার মানে ক্ষুব্ধ রাষ্ট্রপতি

প্রথমে হিন্দু স্কুল এবং পরে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়- পশ্টিমবঙ্গ সফরের শেষ দিনে কলকাতার দুটি ঐতিহ্যশালী প্রবাদপ্রতিম শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দ্বিশতবর্ষ উদ্যাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সারা দেশের শিক্ষার সার্বিক মানোন্নয়ন নিয়ে নিজের হতাশা প্রকাশ করলেন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় ৷

তিনি দারিদ্র ভাঙিয়ে খাননি, মোদীকে খোঁচা মনমোহনের

গরিবিয়ানার প্রচার নিয়ে এবার যেন নাম না করেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে খানিক ‘শিক্ষা’ দিতে চাইলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং ৷ মাঠে-ময়দানে, সভা-সমিতিতে প্রায়ই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দাবি করেন, ছোটবেলায় চা বেচে খুবই কষ্ট করে তিনি বড় হয়েছেন ৷

লোধা প্রস্তাব জল ঢালতে সুপ্রিম কোর্টে সক্রিয় কেন্দ্র

অনেকটা কটকের যুবরাজ সিংয়ের ঢঙেই চমকপ্রদ প্রত্যাবর্তন বোর্ড কর্তাদের! নরেন্দ্র মোদী সরকারেরই হাত ধরে ৷

‘আগে আমেরিকা, পরে অন্যরা’

বিরোধিতা, বিদ্রোহ উপেক্ষা করে পেনসিলভ্যানিয়া অ্যাভিনিউ ধরে সেই ওভাল অফিসে পৌঁছলেন তিনি ৷ ৪ বছরের জন্য তিনিই হোয়াইট হাউসের অধিপতি ৷

First published: 09:43:18 AM Jan 21, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर